শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ মুহাররম ১৪৪৪

সারা বাংলার খবর

কুষ্টিয়ায় সম্রাটের কার্যালয়ে টর্চার সেল, তার বাইরে গেলেই নির্যাতন!

কুষ্টিয়া থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ জুলাই, ২০২২, ৩:৫৩ পিএম

কুষ্টিয়া শহর মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাহানা সুলতানা বনির ছেলে ও শহর যুবলীগের সাবেক আহবায়ক চিহ্নিত টেন্ডার জিম্মাদার জেড এম সম্রাটকে অস্ত্র-মাদক ও ওয়াকিটকিসহ তার টর্চার সেল থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১২ সিপিসি-১এর একটি অভিযানিক দল টিম।

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) বেলা ১২টায় র‌্যাব-১২ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার মোহাম্মদ ইলিয়াস খান এক প্রেস ব্রিফিংএ লিখিত বক্তব্যে এসব তথ্য তুলে ধরেন।

কোম্পানী কমান্ডার মোহাম্মদ ইলিয়াস খান বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে টেন্ডার জিম্মি, সন্ত্রাস, অস্ত্রবাজি, সাধারণ মানুষকে তুলে নিয়ে মুক্তিপন আদায়, সম্রাটের কার্যালয়ে টর্চার সেল পাওয়া গেছে। নিজের মতের বাইরে গেলেই কার্যালয়ে এনে টর্চার করতেন তিনি ও তার সহযোগীরা।

টর্চার সেলে নিরীহ লোকজনকে ধরে এনে নির্মমভাবে টর্চার করে মোটা অংকের চাঁদা আদায়সহ নানা অপরাধে জড়িত প্রায় অর্ধ ডজন মামলার এজাহার ভুক্ত আসামি জেড এম সম্রাটের নেতৃত্বে কতিপয় চিহ্নিত সন্ত্রাসী বাহিনী শহরজুড়ে সাধারণ জনমনে এক ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে।

এমন একাধিক অভিযোগ ও জিডি সূত্রে র‌্যাবের অভিযানিক দল সম্রাটের মজমপুরস্থ অফিস কাম টর্চার সেলে অভিযান চালায়’। এসময় সেখানে তল্লাশি চালিয়ে ৮রাউন্ড গুলিসহ একটি ওয়ান শুটার, ইয়াবা, ফেনসিডিলসহ নানা ধরণের মাদকদ্রব্য, ৪টি ওয়াকি টকিসহ বেশকিছু সংখ্যক দেশীয় অস্ত্র উদ্ধা করা হয়।’ সেখান থেকে তিনজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের তাদের সংশ্লিষটতা পাওয়ায় অস্ত্র ও মাদক নিয়ন্ত্রন আইনের মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়।’

গ্রেফতার হলেন- কুষ্টিয়া শহরের কমলাপুরের বাসিন্দা আমিরুল ইসলাম এবং শহর মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সাহানা সুলতানা বনির ছেলে জেড এম সম্রাট(৩৩), দুই সহযোগী যথাক্রমে পশ্চিম মজমপুর এলাকার বাসিন্দা গোলাম রসুলের ছেলে দীন ইসলাম রাসেল(৩৩) এবং জুগিয়া গ্রামের আবুল কালামের ছেলে ওসমান হাসান (৩১)। গ্রেফতার তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের পূর্বক কুষ্টিয়া মডেল থানায় সৌপর্দ করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন র‌্যাব-১২'র ওই কর্মকর্তা।

গ্রেফতার জেড এম সম্রাটের মা কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী মহিলা লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাবেক পৌর কাউন্সিলর সাহানা সুলতানা বনি অভিযোগ করেন, ‘আমার ছেলে যুবলীগ নেতা সম্রাটকে কুষ্টিয়ার রাজনৈতিক নেতারা তাদের স্বার্থদ্ধির জন্য ব্যবহার করেন। যখনই এদিক ওদিক হেরফের হয় তখনই আবার র‌্যাব পুলিশকে দিয়ে গ্রেফতার করে অস্ত্র ও মাদক ধরিয়ে দিয়ে মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়া হয়।’ এর আগেও আরও একাধিক বার র‌্যাবকে দিয়ে আমার ছেলেকে ধরিয়ে দিয়েছে ওরা। আমি এর বিচার চাই।’ বলে কান্নায় ভেঙে পড়েন সাহানা সুলতানা বনি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন