মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২, ০১ ভাদ্র ১৪২৯, ১৭ মুহাররম ১৪৪৪

জাতীয় সংবাদ

ছাত্রলীগে দ্বিধাবিভক্তি

রাহাদ উদ্দিন | প্রকাশের সময় : ৪ আগস্ট, ২০২২, ১২:০২ এএম

শোকের মাস আগস্ট। ১৯৭৫ সালের এ মাসে ঘটে যাওয়া মর্মান্তিক ঘটনার (বঙ্গবন্ধু সপরিবারে হত্যা) স্মৃতি ধারণ করে এ মাসে কমিটি দেয়া হয় না আওয়ামী লীগ ও তার ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলোতে। তবে রেওয়াজ ভেঙে এ মাসের শুরুতেই কমিটি উৎসবে মেতে উঠেছে সংগঠনটির ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। একদিনেই সংগঠনটি ঘোষণা করেছে ১১টি জেলা, জেলা সমমনা ও উপজেলা কমিটি। এতে দ্বিধাবিভক্তি তৈরি হয়েছে দেশের সর্ববৃহৎ এ ছাত্র সংগঠনটিতে। সংগঠনের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ এনে ছাত্রলীগেরই এক পক্ষ তীব্র সমালোচনা করছেন নেতৃদ্বয়ের। কমিটি দেয়ার ক্ষেত্রে সংগঠনের গঠনতন্ত্র মানা হচ্ছে না বলে অভিযোগ করছেন তারা।

২০১৯ সালের অক্টোবরে একটি বিশেষ মুহূর্তে প্রথমে ভারপ্রাপ্ত ও ৩ মাস পর ভারমুক্ত হয়ে দলের পূর্ণ দায়িত্ব পান জয় ও লেখক। তবে ভারমুক্ত হওয়ার পরও তাদের দায়িত্বের মেয়াদ শেষ হয়েছে প্রায় সাত মাস। কিন্তু এখনো অনেকগুলো ইউনিটের কমিটি দেয়া বাকি। কোথাও কোথাও পাঁচ থেকে দশ বছরের পুরোনো কমিটি দিয়ে চলছে ছাত্রলীগ। এমতাবস্থায় দলটির আসন্ন ৩০তম সম্মেলনকে ঘিরে নানা জল্পনা কল্পনা উঠে আসায় তাড়াহুড়ো করে একদিনে জেলা ও জেলা সমমান ১১ ইউনিটের কমিটি ঘোষণা করে জয়-লেখক।

তবে শোকের মাসের শুরুতেই এই কমিটি উৎসবের তীব্র সমালোচনা করছেন নেটিজেনরা। সাধারণত শোকের মাসে আওয়ামী লীগ ও তার ভাতৃপ্রতীম সংগঠনগুলোতে কমিটি দেয়ার রেওয়াজ নেই। তবে এবার রেওয়াজ ভেঙে কমিটি দেয়াতে জয়-লেখকের ধূর্ত রাজনৈতিক চিন্তার বহিঃপ্রকাশ দেখছে নেটিজেনরা। খোদ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতারাই দাবি করছেন, নানা অনিয়ম ও সংগঠনের গঠনতন্ত্র বিরোধী কর্মকাণ্ডের চাপ অতিক্রম করতেই শোকের মাসে কমিটি দিয়েছে জয়-লেখক। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ইয়াজ আল রিয়াদ বলেন, গঠনতন্ত্র না মেনে নিজেদের খেয়াল-খুশি মতো তারা (জয়-লেখক) ছাত্রলীগকে চালাচ্ছে। এটা খুবই দুঃখজনক। আরেক সহ-সভাপতি সৈয়দ আরিফ হোসেন বলেন, শোকের মাস আগস্ট-এর প্রাক্কালে কমিটি গঠনের মাধ্যমে আনন্দ-উৎসবের যে বিষয়টি এসেছে তা খুবই দুঃখজনক। এটা আমাদের নৈতিকতার সঙ্গে যায় না।

গত ৩১ জুলাই রাতে জেলা, জেলা সমমনা ও উপজেলা মিলে কোথাও পূর্ণাঙ্গ, কোথাও আংশিক এসব কমিটি ঘোষণা করে সংগঠনটি। একই সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হল ইউনিটে শীর্ষ পদে আসতে না পারা পদপ্রত্যাশী ও ঢাকা কলেজের কয়েকজনসহ প্রায় ২৫০ থেকে ৩০০ জনকে বিভিন্ন উপ-সম্পাদক, সহ-সম্পাদক ও সদস্য হিসেবে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্বাহী সংসদের বর্ধিত কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। অথচ সংগঠনের গঠনতন্ত্রের ১১ নং ধারানুযায়ী কেন্দ্রীয় কমিটির মোট সদস্য সংখ্যা হবে ৩০১।

ঘোষণা দেওয়া ইউনিটগুলো হলো- ঝিনাইদহ জেলা, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, নরসিংদী জেলা, লক্ষ্মীপুর জেলা, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম জেলা উত্তর, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ঝিনাইদহ সদর ও চকরিয়া উপজেলা।
এসব ইউনিটের মাঝে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) ছাত্রলীগের কমিটিতে সভাপতি করা হয়েছে মন্দির ভাংচুরের ঘটনায় বহিষ্কৃত এক ছাত্রলীগ নেতাকে। ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত নামের এ ছাত্রলীগ নেতা ২০১৬ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসির নিচ তলায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের উপাসনালয় ভাংচুরের ঘটনায় সম্পৃক্ত ছিলেন। এ ঘটনায় তৎকালীন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী কার্যক্রমে অংশ নেওয়ায় তাকে ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়।

এদিকে দুই সদস্যের কমিটি গঠনের তিন বছর পর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। তবে সেখানে গঠনতন্ত্র না মেনে প্রায় ৪০০ সদস্যের কমিটি দেয়া হয়েছে। ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রের ১০ নং ধারায় বলা হয়েছে জেলা ও জেলা সমমান কমিটি হবে ১৫১ সদস্য বিশিষ্ট। এ বিষয়ে চবি শাখা ছাত্রলীগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক হায়দার মোহাম্মদ জিতু অভিযোগ করে বলেন, এ কমিটি দেয়ার ক্ষেত্রে চবি শাখা ছাত্রলীগ আমার সঙ্গে সমন্বয় করেনি।

দীর্ঘ তিন বছর পর এ শাখা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হলেও বিভিন্ন অপকর্মে জড়িত, বিবাহিত ও অছাত্রদের পদায়ন করায় বিশ্ববিদ্যালয় অবরোধ করে আন্দোলন করে পদবঞ্চিত একাংশ। গভীর রাতে ভাঙচুর করা হয় আবাসিক হলের ৪০ টির মত কক্ষ। প্রতিপক্ষের কর্মীদের ওপর হামলার ঘটনাও ঘটে। গত সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়গামী শাটল ট্রেনের তিন চালককে অপহরণ করা হয়। এরপর ফটকে তালা দিয়ে বিক্ষোভের নামে রীতিমত নৈরাজ্য চালায় সংগঠনটির একাংশ। টানা দু›দিন ধরে অচল থাকে বিশ্ববিদ্যালয়। পাঁচটি বিভাগের পরীক্ষা সময় মতো নিতে পারেনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। অবশেষে টানা ৩৫ ঘন্টা অবরোধের পর মঙ্গলবার সকাল ১১টায় অবরোধ প্রত্যাহার করে নেয় পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে গণিত বিভাগের ২০১৩-১৪ সেশনের শিক্ষার্থী ও অমর একুশে হল ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন দীপুর বিরুদ্ধে। বর্তমানে তার ছাত্রত্ব নেই বলে বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে। শুধুমাত্র কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের ঘনিষ্ঠ এবং একই উপজেলার বাসিন্দা হওয়ায় তাকে কেন্দ্রীয় কমিটিতে উপ-বিজ্ঞানবিষয়ক সম্পাদক করা হয়েছে। ছাত্রত্ব না থাকায় এর আগে তিনি হল ছাত্রলীগের শীর্ষ পদে আসতে পারেননি বলেও ছাত্রলীগ সূত্রে জানা গেছে।
এছাড়া ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়ের ঘনিষ্ঠ হওয়ায় কেন্দ্রীয় কমিটিতে পদ পেয়েছেন বিবাহিত ও এক সন্তানের জনক আশিকুর রহমান অণু। এ নিয়ে ফেসবুকে স্ত্রী-সন্তানের ছবিসহ পোস্ট করে ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা যায় কয়েকজন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীকে। এছাড়াও নিয়মিত মাদক সেবন, হলে হলে শিক্ষার্থী নির্যাতন, চাঁদাবাজি ও সিট দখলের অভিযোগে অভিযুক্ত বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীকে পদায়ন করা হয়েছে বর্ধিত এ কমিটিতে।

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় দফতর সম্পাদক ইন্দ্রনীল দেব শর্মা রনি বলেন, বিশেষ ক্ষেত্রে গঠনতন্ত্রের বাইরে গিয়ে সভাপতি-সম্পাদকের এখতিয়ারে সদস্য পদায়ন করা যায়। গঠনতন্ত্রের মধ্যে থাকতে পারলেই সবচেয়ে ভালো হয়। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে অনেক সক্রিয় নেতাকর্মী থাকায় গঠনতন্ত্রের অনুসরণ করা সম্ভব হয়ে উঠে না। সাংগঠনিক গতিশীলতা ধরে রাখার জন্য অনেক ক্ষেত্রে সবার সাথে সমন্বয় করাও হয়ে উঠে না।
সার্বিক বিষয়ে জানতে সংগঠনটির সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যকে একাধিকবার ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপে ক্ষুদে বার্তা পাঠালেও কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি।

এদিকে সংগঠনটির দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক বলেন, এসব কমিটি দেয়ার ক্ষেত্রে আমার সাথে সমন্বয় করা হয়নি। অন্য কারো সাথে আলাপ করেছে কিনা তাও আমি জানি না।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন