বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সাতক্ষীরা পরিবার পরিকল্পনা অফিসের উপ-পরিচালক রওশন আরা জামানের দূর্নীতির তদন্ত শুরু

সাতক্ষীরা জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৮ আগস্ট, ২০২২, ৫:৪১ পিএম

সাতক্ষীরা পরিবার পরিকল্পনা অফিসের উপ-পরিচালক

রওশন আরা জামানের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার, দূর্ণীতি, স্বেচ্ছাচারিতা ও
বদলি বাণিজ্যসহ নানা অভিযোগে তদন্ত শুরু হয়েছে। সোমবার (০৮ আগষ্ট) বিকাল তিনটা থেকে
সন্ধ্যা ছয়টা পর্য়ন্ত চলে এই তদন্ত কার্যক্রম। সাতক্ষীরা জেলা পরিবার
পরিকল্পনা অফিসের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা সচেতন নাগরিক কমিটির
সভাপতি মফিজুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক গাজী শাহাজান কর্তৃক অভিযোগের বিষয়
নিয়ে এই তদন্ত কার্যক্রম শুরু হয়। তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটির আহবায়ক
ছিলেন খুলনা বিভাগীয় পরিবার পরিকল্পনা অফিসের পরিচালক হাবিবুল হক খান। তিন
সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটির মধ্যে অপার দুইজান ছিলেন খুলনা পরিবার
পরিকল্পনা অফিসের উপ-পরিচালক আনোয়ারুল আজিম ও খুলনা জেলা পরিবার পরিকল্পনা
অফিসের সহকারি পরিচালক ডাঃ এস এম সামছুল আহসান।
এর আগে সোমবার সকালে একই
অভিযোগে আশাশুনি উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসের প্রাক্তন কর্মকর্তা
বর্তমানে পটুয়াখালী জেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসের সহকারি কর্মকর্তা
জাহাঙ্গীর আলম ও আশাশুনি মেডিকেল অফিসার ডাঃ পলাশ দত্তের বিরুদ্ধে তদন্ত
করেন তারা।
তবে তদন্ত করার সময় অভিযোগ কারিদের ডাকা হয়নি। অথচ সরকারের
বিভিন্ন দফতরে পাঠানো নোটিশে বলা হয়েছে, উভয় পক্ষকে তদন্ত চলাকালিন সময়ে
উপস্থিত থাকতে হবে।
লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, রওশন আরা জামান দীর্ঘদিন যাবত সাতক্ষীরায়
কর্মরত রয়েছেন। অফিসের যন্ত্রাংশ ক্রয়ের নামে তিনি লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে
নিয়েছেন। তিনি ইচ্ছা খুশি মত অফিস করেন। তার অত্যাচারে পরিবার পরিকল্পনা
অফিসের অন্যান্য কর্মকর্তা কর্মচারিরা অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন। বদলি বাণিজ্য
করে লক্ষ লক্ষ টাকা আদায় করছেন। জেলা উপ-পরিচালকের ভবন নির্মাণ করার সময়
পরস্পর যোগসাজসে পর্যাপ্ত পরিমানে অনিয়ম ও দূর্নীতি করেছেন।
সাতক্ষীরা জেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা সচেতন নাগরিক কমিটির
সাধারণ সম্পাদক গাজী সাহাজান জানান, তারা লিখিত ভাবে বিভিন্ন দফতরে
অভিযোগ করেন। সোমবার বিকালে তদন্ত কার্যক্রম শুরু হয়েছে। তবে তদন্তের
বিষয়টি জানতেন না তিনি। সাংবাদিকদের মাধ্যমে বিকালে জানতে পেরেছেন।
তিনি শহর থেকে অনেক দুরে থাকার কারণে আসতে পারেননি। তাকে না জানিয়ে তদন্ত
করলে এক তরফা হবে। এই তদন্ত মেনে নেবেন না বলে জানান। তিনি তার উপস্থিতিতে
পুনরায় তদন্ত দাবি করেন।
সোমবার বিকালে এই তদন্ত চলাকালে এই প্রতিবেদকসহ কয়েকজন সাংবাদিক জেলা
পরিবার পরিকল্পনা অফিসে যেয়ে রওশন আরা জামানের সাথে কথা বলার চেষ্টা
করেন। কিন্তু উপপরিচালক রওশন আরা জামান জানান তদন্ত কর্যক্রম চলতে থাকায়
তিনি ব্যস্ত আছেন। এজন্য কথা বলবেন না।
এসময় তদন্ত কমিটির সদস্যদের সাথে কথা বলার চেষ্টা করা হলে অফিসের লোক
মাধ্যমে জানিয়ে দেন তারা ডিজি মহোদয়ের সাথে জুম মিটিংয়ে আছেন। এখন কথা
বলা সম্ভব না বলে এড়িয়ে যান ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন