বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

খেলাধুলা

বৃষ্টিবিঘ্নিত প্রথম দিনে প্রোটিয়া বোলিং তোপে ধুঁকছে ইংল্যান্ডের ইনিংস

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ আগস্ট, ২০২২, ১১:২২ পিএম

টেস্ট ক্রিকেট ইংল্যান্ডের আগ্রাসী 'বাজবল' টেকটিক নিয়ে গত কয়েক মাসে আলোচনা হয়েছে অনেক।সাদা পোশাকের এ ফরম্যাটে ধীরগতি ব্যাটিংয়ের চিরচারিত প্রথা ভেঙ্গে নতুন কোচ ও অধিনায়কের নেতৃত্বে ইংল্যান্ড খেলা শুরু করেছিল এট্যাকিং ক্রিকেট। ব্র্যান্ডন ম্যাককালামের কোচিং যুগেই শুরু হয়েছে বলে কিনা ব্রিটিশ গণমাধ্যম এই কৌশলের নাম দেয় 'বাজবল'।ইনিংসের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত একই আগ্রাসী মনোভাবে ব্যাটিং করে প্রতিপক্ষের উপর চাপ সৃষ্টি করার এই কৌশল শুরুতে কাজেও লেগেছিল বেশ ভালোভাবে।

সাউথ আফ্রিকার সাথে ঘরের মাঠে তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে দলটির অধিনায়ক ডিন এলগারকে ইংল্যান্ডের নতুন কৌশলে আলাদা করে ভাবাচ্ছে কিনা এ প্রশ্ন করা হলে তার স্পষ্ট জবাব ছিল,ইংল্যান্ডের 'বাজবল' ব্যাটিং মন্ত্র তাকে মোটেও ভাবাচ্ছে না।নিজেদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে পারলে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয় কঠিন কোন কাজ না বলেও তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেছিলেন।

বিশ্বমানের পেস এট্যাক থাকার কারণেই হয়ত প্রোটিয়া দলপতির বিশ্বাস ছিল তার দলের বিপক্ষে মার মার খাট খাট ক্রিকেট খেলা খুব একটা সহজ হবেনা।আজ লর্ডসে প্রথম টেস্টের প্রথম দিনেই অধিনায়কের আস্থার প্রতিদান দিয়েছেন সাউথ আফ্রিকার বোলাররা।

'ক্রিকেটর মক্কা'খ্যাত এ মাঠে সুইং এর জন্য সহায়ক মেঘলা পরিবেশ দেখে টস জিতে স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় সাউথ আফ্রিকা। প্রথম থেকে নিয়ন্ত্রিত লাইন-লেংথে দারুণ সুইং বোলিংয়ের প্রদর্শনীতে স্বাগতিকদের চাপে ফেলে দেয় প্রোটিয়া বোলাররা।

দলটির সবচেয়ে বড় তারকা পেসার কাগিজো রাবাদা নতুন বলে দুই ইংলিশ ওপেনারকে সাজঘরে ফেরান।এরপর ইংলিশ শিবিরে সবচেয়ে বড় আঘাত হানেন বাহাতি প্রোটিয়া মিডিয়ম পেসার মার্কো জেনসেন। দারুন এক ইনসুইংয়ে স্বাগতিকদের সব থেকে বড় ও টেস্ট ক্রিকেটের নাম্বার ওয়ান ব্যাটসম্যান জো রুটকে এলবিডাব্লির ফাদে ফেলেন তিনি।রুটের ব্যাট থেকে এসেছে মাত্র ৮ রান।

একটু পরেই আরেক পেসার এনরিক নর্জে রানের খাতা খোলার আগেই জনি বেয়ারেস্টোর স্টাম্প উপড়ে ফেললে ৫৫ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ইংল্যান্ড তখন অল্প রানে অলআউট হয়ে যাওয়ার শঙ্কায়।তবে ওয়ান ডাউনে নামা অলি পোপ ও অধিনায়ক বেন স্টোকস এরপর জুটি করে ইংল্যান্ডকে ম্যাচে ফেরানো চেষ্টা করেন।

লাঞ্চের ঠিক আগের বলে স্টোকস স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফিরলে এই দুইজনের মধ্যে ৪৫ রানের জুটি ভাঙ্গে। লাঞ্চের পর বৃষ্টির কারণে পুরো দিনে মাত্র ছয় ওভার খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।এর মধ্যে স্বাগতিকদের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট তুলে নিয়েছেন প্রোটিয়া বোলার নর্জে। ইংল্যান্ডের উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান বেন ফোকসকে ক্লিন বোল্ড করেন তিনি।দিন শেষে ইংল্যান্ডের দলীয় সংগ্রহ ৬ উইকেট হারিয়ে ১১৬ রান।ওলি পোপ ক্রিজে আছেন অপরাজিত ৬২ রান করে। সাউথ আফ্রিকার হয়ে সর্বোচ্চ তিন উইকেট নেন এনরিক নর্জে।

কাল দ্বিতীয় দিনে ইংল্যান্ডের বাকি থাকা টেল এন্ডারদের আউট করে দ্রুত ইনিংস গুটিয়ে ফেলতে চাইবে সাউথ আফ্রিকা। অন্যদিকে স্বাগতিকরা চাইবে পোপের ব্যাটে ভর করে ম্যাচে ঘুরে দাঁড়াতে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন