রোববার ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০২ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ইউরোপের অস্থিতিশীলতা বিশ্বব্যবস্থা পুনর্র্নির্মাণের প্রারম্ভ

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ, তীব্র আবহাওয়া ও জ¦ালানি সঙ্কট

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১২:০১ এএম

রাশিয়া ইউরোপে প্রাকৃতিক গ্যাসের অন্যতম প্রধান সরবরাহ বন্ধ করে দেওয়ার পর মহাদেশটি গত ২০ বছরের মধ্যে জ্বালানির দাম বেড়েছে সর্বোচ্চে পৌঁছেছে। ফলে, ইউরোপ বিদ্যুৎ ঘাটতি এবং শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। সোমবার ইউরোর মূল্য প্রায় ০.৮ শতাংশ কমে ৯৮.৭৮ মার্কিন সেন্টে নেমে এসেছে, যা ২০০২ সালের পর থেকে সর্বোচ্চ দর পতন। অঞ্চলটিতে গ্যাসের দাম ইতোমধ্যে প্রায় ২৫ শতাংশ বেড়ে প্রতি মেগাওয়াট ঘণ্টায় ২শ’ ৬০ ইউরো হয়েছে, যা জ¦ালানির সমতুল্যতার ক্ষেত্রে প্রতি ব্যারেল তেল ৪শ’ ৪০ মার্কিন ডলার দিয়ে কেনার সমান।

তবে, বিশ^জুড়ে তেলের দাম বাড়ায় প্রভাব পড়েছে ইউরোপেও। এছাড়া, তীব্র দাবদাহ এবং খরার কারণে মহাদেশটির জ্বালানি সঙ্কট আরো খারাপ হয়েছে, যা এর পানিবিদ্যুৎ উৎপাদনের ক্ষমতাকে চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে। অঞ্চলটির বেশিরভাগ নদী শুকিয়ে গেছে, পানি থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের হার প্রায় অর্ধেক কমে গেছে। ইউরোপের কিছু পারমাণবিক কেন্দ্র পানির অভাবে উৎপাদন বন্ধ করতে বা কমাতে বাধ্য হয়েছে, যা চুল্লি ঠাণ্ডা করতে ব্যবহৃত হয়।

ইউরোপের বিভিন্ন দেশে ক্রমবর্ধমান জ্বালানি খরচ এবং মুদ্রাস্ফীতির কারণে ইতোমধ্যেই সামাজিক ও রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা দেখা দিয়েছে। ইউরোপের বৃহত্তম অর্থনীতি জার্মানি ইউরোপ জুড়ে জ্বালানি সঙ্কটের কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে, যেখানে প্রাকৃতিক গ্যাসের দাম গত বছরের তুলনায় প্রায় ১০ গুণ বেশি বেড়েছে। দেশটির বামপন্থী এবং অতি-ডানপন্থী দলগুলো চ্যান্সেলর ওলাফ শোলজের জোটের বিরুদ্ধে সাপ্তাহিক বিক্ষোভ শুরুর ঘোষণা দিয়েছে। কিছু ইউনিয়ন আন্দোলন করার হুমকিও দিয়েছে। যদিও ওলাফের সরকার রবিবার ৬৫ বিলিয়ন ডলারের অর্থনৈতিক প্রণোদনা ঘোষণা করেছে, তবে তা কতদিন অসন্তোষ ঠেকিয়ে রাখবে, বলা যাচ্ছে না।

ফিনল্যান্ড রবিবার বলেছে যে, এটি দেউলিয়া হওয়ার মুখোমুখি বিদ্যুৎ সংস্থাগুলিকে ১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের সমতুল্য অর্তের যোগান দেবে। সুইডেনের সরকার বলেছে যে, তারা প্রায় ২৩ বিলিয়ন ডলারের আর্থিক নিশ্চয়তা দেবে, যা জ¦ালানী সংস্থাগুলিকে মার্চ পর্যন্ত সরবরাহ ক্রয় করতে সহায়তা করবে। তবে, এভাবে দীর্ঘ মেয়াদের সমস্যার সমাধান বা সরকাগুলির বেশিদিন ক্ষমতায় টিকে থাকার সম্ভবনা দেখা যাচ্ছে না।

চেক রিপালিকের বর্তমান চেক সরকার জ¦ালানী মূল্যের ঊর্ধ্বগতি রোধে ব্যর্থতার জন্য বিরোধীদের প্ররোচিত একটি অনাস্থা ভোটে আপাতত কোনোমতে বেঁচেছে। তবে, শনিবার জ¦ালানীর দামের ঊর্ধ্বগতি রোধে শক্তিশালী সরকারী পদক্ষেপের দাবিতে বিক্ষোভকারীরা চেকের রাজধানী প্রাগে রাস্তায় নেমে আসে। ডান ও প্রান্তিক রাজনৈতিক দলগুলোর নেতৃত্বে হাজার হাজার বিক্ষোভকারী ন্যাটো এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নে সরকারের সদস্যপদ নিয়েও ব্যাপক সমালোচনা করে।

১৯৭০ এর তেল সঙ্কটের পর ফ্রান্সও তার সবচেয়ে বড় জ¦ালানীশক্তি সংরক্ষণ প্রচেষ্টা শুরু করে। দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁর সরকার তার নাগরিকদের আসন্ন শীতে ‘সংযম’ এর মাধ্যমে একটি নতুন যুগের জন্য প্রস্তুত হওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। এবং বলেছেন যে তার সরকার এতে সর্বাত্মক সহায়তা করবে। করেছিল। বিক্ষোভ ইউরোপীয় নেতাদের মধ্যে ক্রমবর্ধমান উদ্বেগের কথা তুলে ধরে যে জ্বালানি সংকট এবং ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতি বৃহত্তর রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার কারণ হতে পারে।

সোমবার ইতালির ডানপন্থী লিগ পার্টির নেতা মাত্তেও সালভিনি বলেন যে, ইউরোপীয় ইউনিয়নের উচিত মস্কোর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি রাখার পরিবর্তে ইউক্রেন যুদ্ধের জন্য রাশিয়ার উপর নিষেধাজ্ঞার আঘাত থেকে ইউরোপীয় এবং ইতালীয়দের রক্ষা করার জন্য একটি ঢাল তৈরি করা উচিত। তিনি বলেন যে, নিষেধাজ্ঞাগুলি রাশিয়াকে আঘাত করার পরিবর্তে, জ্বালানি ব্যয় বৃদ্ধিতে দেশগুলি উপর চাপ পড়েছে, তাদের ক্ষতি করছে।

এদিকে, ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ এবং মস্কোর ওপর পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞা শুরুর পর দেশটির বানিজ্যিক সাথে সম্পর্ক জোরদার করেছে চীন। এপ্রসঙ্গে ইতালির জাতীয়তাবাদী ব্রাদার্স পার্টির নেতা জর্জিয়া মেলোনি রবিবার সতর্ক করে দিয়ে বলেন, ‘যদি ইউক্রেনের পতন হয় এবং পশ্চিমারা ধ্বংস হয়ে যায়, তবে বড় বিজয়ী হবেন (ভøাদিমির) পুতিনের রাশিয়া নয়, শি জিনপিংয়ের চীন। তিনি বলেন যে, একটি সুবিশাল বরফধ্বসের বিপজ্জনক অগ্রভাগের মতো ইউরোপের অস্থিতিশীলতা বিশ্বব্যবস্থা পুনর্র্নিমাণের প্রারম্ভ। মেলোনি বলেন, ‹ইউক্রেনের যুদ্ধ হল বিশ্বব্যবস্থা পুনর্র্নিমাণের লক্ষ্যে একটি সঙ্ঘাতের আইসবার্গের আগ্রভাগ।› সূত্র: দ্য নিউ ইয়র্ক টাইম্স, ইউরোনিউজ, দ্য গ্লোব এন্ড মেইল।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন