শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৭ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

তেলের বিনিময়ে উত্তর কোরিয়া থেকে অস্ত্র কিনতে পারে রাশিয়া

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৭:৪৯ পিএম

রাশিয়া সম্ভাব্যভাবে তেলের বিনিময়ে উত্তর কোরিয়া থেকে অস্ত্র কিনতে পারে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। তারা বলেছেন, পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞাগুলো ইউক্রেনে অভিযানের কারণে ধ্বংস হয়ে যাওয়া যুদ্ধাস্ত্রের মজুতগুলো পুনরুদ্ধার করার ক্রেমলিনের ক্ষমতাকে সীমিত করে।

নিউইয়র্ক টাইমস দ্বারা প্রথম প্রকাশিত গোপনীয় গোয়েন্দা তথ্য দেখিয়েছে যে, রাশিয়া গোপনে উত্তর কোরিয়ার কাছ থেকে লাখ লাখ আর্টিলারি শেল এবং রকেট কিনতে চাইছে। রাশিয়া প্রতিবেদনটিকে ‘ভুয়া’ বলে অভিহিত করেছে, তবে পেন্টাগন দাবি করেছে যে, মস্কো আলোচনার জন্য উত্তর কোরিয়ার সাথে ‘সংযোগ করেছে’। তাবে দুই দেশের মধ্যে এখনও কোন লেনদেন হয়েছে কিনা সে বিষয়ে তারা কিছু বলতে অস্বীকার করেছে।

তবে এ ক্ষেত্রে রাশিয়া রুবলে অর্থপ্রদান নাও করতে পারে, যখন নিষেধাজ্ঞাগুলি মস্কোকে ডলার বা ইউরোর মতো অন্যান্য বহুল ব্যবহৃত মুদ্রা ব্যবহার করতে বাধা দিয়েছে। পরিবর্তে, উত্তর কোরিয়াকে রাশিয়া তেলের মাধ্যমে মূল্য প্রদান করতে পারে। এ দাবি করেছেন আরএন্ডডি কর্পোরেশন প্রতিরক্ষা গবেষক ব্রুস বেনেট। তিনি উল্লেখ করেছেন যে, রাশিয়া আগে উত্তর কোরিয়াকে তেল সরবরাহ করেছে।

‘রাশিয়া ঐতিহ্যগতভাবে উত্তর কোরিয়াকে ন্যায্য পরিমাণ তেল সরবরাহ করেছে, দৃশ্যত সন্দেহজনক আচরণে,’ বেনেট একটি সাক্ষাতকারে ইনসাইডারকে বলেছেন, ‘এটা স্পষ্ট নয় যে সেটি স্ট্যান্ডার্ড পদ্ধতির মাধ্যমে অনুমোদিত হয়েছে কি না।’ তিনি আরও অনুমান করেছিলেন যে, রাশিয়ান তেল উত্তর কোরিয়ার পূর্ব উপকূলে একটি স্থাপনায় পরিশোধন করা যেতে পারে। তিনি যোগ করেছেন যে রাশিয়া উত্তর কোরিয়া থেকে অস্ত্রের বাইরে অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসগুলিও পেতে পারে, যার মধ্যে ইউক্রেনে কাজ করার জন্য শ্রমিকও থাকতে পারে।

উত্তর কোরিয়ার বিশেষজ্ঞ রামন পাচেকো পার্দো, যিনি কিংস কলেজ লন্ডনের আন্তর্জাতিক সম্পর্কের অধ্যাপক, ওয়াশিংটন পোস্টকে বলেছেন যে, উত্তর কোরিয়া রাশিয়ার কাছে অস্ত্র বিক্রির গুজব বেশ কিছুদিন ধরেই ছড়ানো হচ্ছে, জল্পনা যে রাশিয়ার তেল ও গ্যাসে মূল্য দিতে পারে।

উভয় দেশই বিশ্বের সবচেয়ে বেশি নিষেধাজ্ঞাপ্রাপ্ত শাসন ব্যবস্থার মধ্যে রয়েছে। পিয়ংইয়ংয়ের উপর নিষেধাজ্ঞা এড়াতে উত্তর কোরিয়ায় রাশিয়ার তেলের আগে চালান সমুদ্রে হয়েছিল বলে জানা গেছে। গত মাসে, মার্কিন কর্মকর্তারা দাবি করেছিলেন যে, রাশিয়া ইউক্রেনের বিরুদ্ধে ব্যবহারের জন্য ইরানের তৈরি যুদ্ধের ড্রোন কিনতে শুরু করেছে। সূত্র: ইনসাইডার।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন