সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

খেলাধুলা

সুযোগ থাকার পরেও ১৩ ঘন্টা লাইনে দাঁড়িয়ে রানীকে শ্রদ্ধা, প্রশংসায় ভাসছেন ব্যাকহাম

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৯:৪৬ পিএম

আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর তার জীবন সঙ্গী প্রিন্স ফ্লিপের সাথে চিরনিদ্রায় শায়িত হবেন সাত দশক ধরে ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের রানীর আসন অলংকৃত করা সম্রাজ্ঞী দ্বিতীয় এলিজাবেথ। সমাহিত করার আগে কয়েকদিন তার কফির সর্বসাধারণের শ্রদ্ধার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়।ব্রিটিশদের আবেগের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা রানীকে শেষ বিদায় জানাতে ওয়েস্ট মিনিস্টার এ্যাবেতে প্রতিদিন ঢল নামছে লাখো মানুষের।

সব শ্রেণি-পেশার মানুষের পাশাপাশি রাণীর কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে আসছেন অনেক বড় বড় রথী-মহারথীরাও।আর এরই মাঝে কিংবদন্তি ব্রিটিশ ফুটবলার ডেভিড ব্যাকহামের নিয়মানুবর্তিতা এক অসাধারণ উদাহরণ তৈরি করে প্রশংসা কুড়াচ্ছেন সর্বমহলে।

গত বৃহস্পতিবার বিকেলে ওয়েস্ট মিনিস্টার হলের সামনে লাইনে দাঁড়ান এই ফুটবল তারকা। তবে ততক্ষণে রানীকে শ্রদ্ধা জানানোর জন্য তৈরি হওয়া লাইন ৮ কিলোমিটারেরও বেশি দীর্ঘ হয়ে গেছে। খুব দ্রুত যে রানীর কফিনের কাছাকাছি পৌঁছাতে পারবেন না সেটি তিনি অনুমান করতে পেরেছিলেন।তবে পরম শ্রদ্ধেয় রানীকে শ্রদ্ধা জানানোর জন্য হাসিমুখে ঘন্টার পর ঘন্টা লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন তিনি।

ব্যাকহামের এই অবস্থা দেখে এক ব্রিটিশ মেম্বার অফ পার্লামেন্ট তার সাহায্যে এগিয়ে আসেন। দেশের কিংবদন্তি ফুটবলার এত দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে থাকবেন তা হয়তো ঐ এমপির কাছে দৃষ্টিকটু লাগছিল। তিনি লাইন পাশ কাটিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর প্রস্তাব দেন ব্যাকহামকে। তবে সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন ব্যকহাম। সাধারণদের সাথেই অপেক্ষা করতে থাকেন শ্রদ্ধা জানানোর সারিতে।

এ সময়টাতে শ্রদ্ধা জানাতে আসা সাধারণ লোকজনের সাথে তিনি ছবি তুলেছেন,আড্ডা দিয়েছেন।তাদের মধ্যে ক্ষুধার্ত বেশ কয়েকজনের মাঝে বিলি করেছেন সঙ্গে করে নিয়ে আসা কেক জাতীয় খাবার-'ডোনাট'। এভাবে টানা ১৩ ঘন্টা অতিবাহিত হওয়ার পর রানীর কফিনে শ্রদ্ধা জানানোর সুযোগ মিলে এই তারকা ফুটবলারের।

শোকের প্রতীক হিসেবে আপাদমস্তক কালো পোশাক আবৃত ব্যাকহাম রানীর কফিনের ফুল দিয়ে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন। এ সময় তাকে কিছুটা আবেগক্রান্ত দেখাচ্ছিল।বড় মাপের সেলিব্রিটি হয়েও তার এই অতি সাধারণের মত আচরণ প্রশংসা কুড়াচ্ছে সব মহলে।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্রিটিশরা মেতেছেন ব্যাকহাম বন্দনায়।

এ ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে এই জনপ্রিয় ফুটবলার গণমাধ্যমকে জানান, এটি আমাদের একত্রে থাকার সময়। রানীর যে মহান জীবন অতিবাহিত করেছেন সেটি সবার সাথে একসঙ্গে স্মরণ করতে চাই। এ ধরনের বিশেষ মুহূর্ত সাধারনদের সাথে কাটাতে পারা সৌভাগ্যের।অবশ্য দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়ানোর ফলে হাঁটু আর মেরুদন্ডে যে সামান্য টান পড়েছে স্মিতহাস্যে সেটিও স্বীকার করেছেন ব্যকহাম।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন