রোববার ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০২ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

রাশিয়ার সাথে যোগ দিয়েছে কিয়েভের ২ হাজার সেনা

একদিনে ইউক্রেনের ১১০ জনেরও বেশি সেনা নিহত নিষেধাজ্ঞাগুলো ইইউ’র জন্য বুমেরাং হয়েছে : হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রী পরমাণু অস্ত্র নিয়ে হুমকি না দিতে রাশিয়াকে আহ্বান যুক্তরাষ্ট্রের ইরানের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১২:০৭ এএম

রাশিয়ার ব্ল্যাক সি ফ্লিটের ডেপুটি কমান্ডার ব্য্যাচেস্লাভ রোডিওনভ বলেছেন, রাশিয়ার সাথে ক্রিমিয়ার পুনর্মিলনের আগে ইউক্রেনের সেনাবাহিনীতে কাজ করা ২ হাজারেরও বেশি সাবেক সৈনিককে রাশিয়ান সেনাবাহিনীতে যুক্ত করা হয়েছে। তারা গতকাল রাশিয়ার প্রতি আনুগত্য স্বীকার করেছে। এদিকে, রাশিয়ার আক্রমণের ফলে একদিনে ইউক্রেনের ১১০ জনেরও বেশি সেনা নিহত হয়েছে বলে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।

সেভাস্তোপলের গভর্নর মিখাইল রাজভোজায়েভের মতে, সামরিক শপথ অনুষ্ঠানটি সেই তাদের জন্য অনুষ্ঠিত হয়েছিল যারা ‘সংরক্ষিত ছিল, ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীতে কাজ করেছিল এবং রাশিয়ান সশস্ত্র বাহিনীতে কাজ করেনি।’ মঙ্গলবার এই লোকদের মোতায়েনের জায়গায় পাঠানো হবে। ‘২ হাজারেরও বেশি লোক উপস্থিত হয়েছে। বিশেষজ্ঞ: রাইফেলম্যান, গ্রেনেড লঞ্চার অপারেটর, এটিজিএম অপারেটর, আর্টিলারিস্ট, কমব্যাট ভেহিকেল ড্রাইভার। তারা আজ শপথ নিয়েছে এবং এখন প্রশিক্ষণ শুরু করবে। সময়ই দেখাবে তাদের দিয়ে কোন কাজগুলি করানো হবে,’ রোডিওনভ বলেছেন রাজভোজায়েভ এর আগে বলেছিলেন যে, সেভাস্তোপলের প্রায় ৩-৪ শতাংশ বাসিন্দা রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন কর্তৃক ঘোষিত আংশিক সমাবেশের আওতায় পড়বে। যাদের ডাকা হয়েছে তাদের আর্থিক সহায়তা হিসাবে ২ লাখ রুবল (৩,৪৩৯ মার্কিন ডলার) প্রদান করা হবে।

একদিনে ইউক্রেনের ১১০ জনেরও বেশি সেনা নিহত : রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট জেনারেল ইগর কোনাশেনকভ গতকাল জানিয়েছেন, নিকোলায়েভ এবং ক্রিভয় রোগের দিকে রাশিয়ার আক্রমণের ফলে একদিনে ইউক্রেনের ১১০ জনেরও বেশি সেনা নিহত হয়েছে। পাশাপাশি ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীর ১৩টি সামরিক সরঞ্জাম ইউনিটও ধ্বংস করা হয়েছে। ‘সব মিলিয়ে, নিকোলায়েভ এবং ক্রিভয় রোগের দিকে ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীর ১১০ জনেরও বেশি সেনা নিহত হয়েছে। সেইসাথে তারা ১৩টি সামরিক সরঞ্জাম ইউনিট হারিয়েছে,’ তিনি বলেছিলেন।

নিষেধাজ্ঞাগুলো ইইউ’র জন্য বুমেরাং হয়েছে : হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর অরবান বলেছেন যে, রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞাগুলো ‘বুমেরাং’ হয়েছে এবং বøকটিতে জ্বালানির দাম বাড়িয়েছে। রাশিয়া সামরিক সমাবেশ ঘোষণা করার পরে অনেকেই দেশ ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছেন, পশ্চিমাদের এমন দাবির প্রেক্ষিতে ক্রেমলিন বলেছে যে, রাশিয়ার সীমানা বন্ধ করার বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি । ইউক্রেনের চারটি অধিকৃত অঞ্চলে সংযুক্তিকণের জন্য গণভোট চলছে, ফলাফলগুলি অনিবার্য হিসাবে দেখা হয়েছে। জাতিসংঘের পারমাণবিক পর্যবেক্ষণ সংস্থার প্রধান বলেছেন যে, তিনি জাপোরিজিয়া পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে একটি সুরক্ষা অঞ্চল স্থাপনের বিষয়ে এই সপ্তাহে ইউক্রেন এবং রাশিয়ার সাথে আলোচনা করতে প্রস্তুত।

পরমাণু অস্ত্র নিয়ে হুমকি না দিতে রাশিয়াকে আহŸান যুক্তরাষ্ট্রের : মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এন্টনি বিøঙ্কেন বলেছেন, ওয়াশিংটন প্রশাসন পারমাণবিক অস্ত্র নিয়ে হুমকি দেয়া বন্ধ করার জন্য রাশিয়াকে আহŸান জানিয়েছে। রোববার সিবিএস নিউজের সাথে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘আমরা রাশিয়ানদের সাথে প্রকাশ্যে এবং ব্যক্তিগতভাবে, পারমাণবিক অস্ত্র সম্পর্কে আলগা আলোচনা বন্ধ করার জন্য খুব স্পষ্ট ছিলাম।’

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র পারমাণবিক যুদ্ধের হুমকি সম্পর্কে ক্রেমলিনের সাথে যোগাযোগ করেছে কিনা জানতে চাইলে বিøঙ্কেন ইতিবাচক উত্তর দেন। মার্কিন শীর্ষ ক‚টনীতিক যোগ করেছেন, ‘এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ যে মস্কো যেন আমাদের কথা শুনে এবং আমাদের কাছ থেকে জানে যে এর পরিণতি হবে ভয়াবহ। এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান বলেছিলেন, রাশিয়া যদি ইউক্রেনে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করে তাহলে এর পরিণতি হবে ‘বিপর্যয়কর’। ইউক্রেনের কাছ থেকে দখলকৃত ভ‚খÐে কথিত গণভোটের ঘটনায় রাশিয়ার ওপর আরও অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপেরও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন জ্যাক সুলিভান।

ইরানের ড্রোন দিয়ে ওডেসায় বোমা বর্ষণ করেছে রাশিয়া : ইউক্রেন রোববার বলেছে যে, দক্ষিণের বন্দর শহর ওডেসায় শনিবার রাতে ইরানের তৈরি ড্রোন হামলা চালিয়েছে রুশ সেনা। ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর অপারেশনাল কমান্ড সাউথ বলেছে, ‘ওডেসায় আবার শত্রæ কামিকাজে ড্রোন দিয়ে আক্রমণ করেছে।’

ইউক্রেনের সাউথ কমান্ডের মুখপাত্র নাটালিয়া গুমেনিউক পরে বলেন, ‘এগুলো ছিল ইরানি ড্রোন।’ ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনী জানিয়েছে, শুক্রবার দেশটির দক্ষিণে ইরানের তৈরি চারটি ড্রোন গুলি করে ভ‚পাতিত করা হয়েছে। কিয়েভ বলেছে যে, পরে তারা রাশিয়াকে ড্রোন সরবরাহের জন্য ইউক্রেনে ইরানের ক‚টনৈতিক উপস্থিতি হ্রাস করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, রাষ্ট্রদূত ইউক্রেনে না থাকায় বহিষ্কার করা যাবে না বলে এই পদক্ষেপের পরিণাম বহিষ্কার। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির একজন মুখপাত্র বলেছেন, ‘রাশিয়ার সেনাদের দ্বারা ইরানের তৈরি অস্ত্রের ব্যবহার... আমাদের রাষ্ট্রের সার্বভৌমত্ব এবং আঞ্চলিক অখন্ডতার বিরুদ্ধে এবং ইউক্রেনের নাগরিকদের জীবন ও স্বাস্থ্যের বিরুদ্ধে ইরানের নেয়া পদক্ষেপ।’

এ বিষয়ে শনিবার এক সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাসের কানানি বলেন, বিদেশি গণমাধ্যমে প্রকাশিত এমন সব প্রতিবেদনের ভিত্তিতে ইরানের সঙ্গে ক‚টনৈতিক সম্পর্ক অবনমনে ইউক্রেনের সিদ্ধান্ত ‘দুঃখজনক’, যেসব প্রতিবেদনের সত্যতার বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। সূত্র : আল-জাজিরা, ডন, তাস, নিউইয়র্ক টাইমস।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
Md Hassan ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৭:৩৫ এএম says : 0
ইউক্রেনের সাবেক সেনাদেরকে অসংক্ষ ধন্যবাদ
Total Reply(0)
মু.রায়হান উদ্দিন ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৭:৩৫ এএম says : 0
কিছু আবেগী আছে রাশিয়ারে বাহ্ বাহ্ দিয়ে দরবেশ বানিয়ে ফেলতেছে,,সকলের উচিৎ মাজলুমের পক্ষে থাকা,,,আমি এই খেলাই দুটার দংশ চাই,,, তাদের হাত এখনও মুসলমান ও নিরীহ -মাজলুমানদের রক্তে রঞ্জীত।
Total Reply(0)
Nazmul Hasan ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৭:৩৬ এএম says : 0
আমেরিকা যখন জাপানে পারমাণবিক হামলা করেছিল, তখন আমেরিকা ছাড়া কারো কাছে পারমাণবিক বোমা ছিল না। যে কারনে কেউ এর প্রতিশোধ নিতে পারেনি। কিন্তু, এখন রাশিয়া একই কাজ করতে গেলে, তিনটি দেশ আমেরিকা, বৃটেন, ফ্রানস এক সাথে প্রতিশোধ নেবে।ফলে ধুলোয় মিশে যাবে রাশিয়া।
Total Reply(0)
Monnes Shahidar ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৭:৩৬ এএম says : 0
ইউক্রেনের সৈন্যদের বিশ্বাস করা হবে রাশিয়ার জন্য ভয়ানক ভুল
Total Reply(0)
Kamrul Islam ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৭:৩৬ এএম says : 0
শুভ কামনা রইলো সবসময় রাশিয়ার জন্য, বিশ্বের ক্ষমতাধর নেতা ভ্লাদিমির পুতিনের জন্য,,,
Total Reply(0)
Mohammad Abdul Karim ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১০:০৪ এএম says : 0
রাশিয়া সঠিক পথে আছে, এমেরিকা দোকাবাজ
Total Reply(0)
Mominul Hoque ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১০:০৯ এএম says : 0
ইউক্রেনীয় সৈন্যদের বিশ্বাস করা রাশিয়ার জন্য নিরাপদ নয়। যদিও তাদেরকে রাশিয়া সেনাবাহিনীতে অন্তর্ভূক্ত করা হয় তবে যুদ্ধের মাঠে পাঠানো একেবারই সঠিক হবে বলে মনে হচ্ছে না।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন