বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫ হিজরী

খেলাধুলা

পাক-ভারত টেস্ট সিরিজ ইংল্যান্ডে!

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১২:৫৪ এএম

২০১৩ সালের জানুয়ারির পর থেকে বহুজাতিক প্রতিযোগিতা বাদে একে অপরের মুখোমুখি হয় না ভারত-পাকিস্তান। টেস্টে দুই দলের সর্বশেষ লড়াই ক্রিকেট বিশ্ব দেখেছিল তারও আগে, ২০০৭ সালের ডিসেম্বরে। মূলত ভারত-পাকিস্তান দুই দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতির কারণে বন্ধ হয়ে গেছে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলা। যার কারণে এখন কেবল এশিয়া কাপ, বিশ্বকাপ এসব টুর্নামেন্টেই দেখা যায় ভারত-পাকিস্তান লড়াই। ক্রিকেটবিশ্বের আরাধ্য এই দ্বৈরথের লম্বা অপেক্ষার অবসান ঘটানোর উদ্যোগ নিয়েছে ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) কাছে ভারত-পাকিস্তান টেস্ট সিরিজ আয়োজনের প্রস্তাবনা উত্থাপন করেছে ইসিবি।
৭ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে এই মুহূর্তে ইংল্যান্ড দল আছে পাকিস্তানে। মঈন আলী-জস বাটলারদের সঙ্গে আছেন ইসিবির ডেপুটি চেয়ারম্যান মার্টিন ডারলোও। এই সুযোগেই পিসিবির চেয়ারম্যান রমিজ রাজাকে প্রস্তাবনার ব্যাপারে অবগত করেছেন ডারলো।
পাকিস্তান সফরে ইংল্যান্ডের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মঈন আলী এরকম প্রস্তাবকে অসাধারণ উল্লেখ করে বলেন, ‘এটা দারুণ হবে। বিষয়টি কিছুটা লজ্জাজনক যে তারা বহুজাতিক টুর্নামেন্ট বাদে একে অপরের বিরুদ্ধে খেলে না। তারা উভয়েই দারুণ দুটি দল। পরিসংখ্যান থেকেও ধারণা করা যায় ম্যাচটি (ভারত-পাকিস্তান টেস্ট) সেরা ম্যাচগুলোর মধ্যে অন্যতম হবে। এছাড়া লম্বা সময় ধরে এমন ম্যাচ হয়নি। ম্যাচটি দারুণ হবে কারণ পাকিস্তানের মত ভারতেরও এখন দুর্দান্ত বোলিং লাইনআপ আছে। এছাড়া টেস্টে ভারত দারুণ একটি দলও বটে। এটা বেশ ভালো হবে।’
তবে ধারণা করা যাচ্ছে, এমন প্রস্তাবে পাকিস্তানের রাজি হওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। গত কয়েক বছরে নিজেদের দেশে ক্রিকেট ফেরানোর ব্যাপক প্রচেষ্টা চালাচ্ছে পিসিবি। সেই চেষ্টায় অনেকটাই সফল তারা। এর আগে বছরের পর বছর সংযুক্ত আরব আমিরাতে হোম ভেন্যু বানিয়ে ক্রিকেট খেলতে হয়েছে তাদেরকে। বিসিসিআই এর পক্ষেও রাজি হওয়ার সম্ভাবনা শূন্যের কোঠায়। পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার এখতিয়ার বিসিসিআইয়ের নেই, বরং দেশের সরকার জানাবে সিদ্ধান্ত।
আপাতদৃষ্টিতে ভারত-পাকিস্তান টেস্ট ম্যাচ অসম্ভব বলেই মনে হচ্ছে। তবে যদি দুই দলই তাদের আসন্ন টেস্ট ম্যাচগুলোতে ভালো খেলে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের টেবিলের শীর্ষ দুইটি স্থান দখল করে নিতে পারে সেক্ষেত্রে হয়ত ২০২৩ সালের টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে দেখা যেতে পারে ভারত-পাকিস্তান লড়াই। ততদিন পর্যন্ত অপেক্ষায় থাকুক ক্রিকেটভক্তরা।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন