বুধবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১২ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

হিজাব বিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল ইরান, দুই সপ্তাহে নিহত ৮৩

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১২:০২ পিএম

নৈতিকতা পুলিশের হেফাজতে তরুণী মাহসা আমিনির মৃত্যুকে ঘিরে এখনো বিক্ষোভে উত্তাল ইরান। চলমান এই বিক্ষোভে এ পর্যন্ত অন্তত ৮৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। নরওয়েভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা ইরান হিউম্যান রাইটসের (আইএইচআর) বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে রয়টার্স।

ইরান হিউম্যান রাইটস জানায়, দুই সপ্তাহের বিক্ষোভে অন্তত ৮৩ জন নিহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে শিশুও রয়েছে। এ ছাড়া গ্রেপ্তার হয়েছেন বহু বিক্ষোভকারী।

ইরানি কর্তৃপক্ষের এমন ভয়াবহ দমন-পীড়ন সত্ত্বেও থামছে না বিক্ষোভ। টুইটারে পোস্ট করা বিভিন্ন ভিডিওতে দেখা যায়, রাজধানী তেহরান, কোম, রাশত, সানন্দাজ, মাসজিদ-ই-সুলেমানসহ বিভিন্ন শহরে ধর্মীয় শাসকদের পতনের দাবিতে বিক্ষোভ করছেন হাজারো মানুষ।
এর আগে চলমান বিক্ষোভ কঠোরভাবে দমন করার হুঁশিয়ারি দেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি। এই অস্থিরতার জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করে রাইসি বলেন, ‘শত্রুরা জাতীয় ঐক্যকে লক্ষ্য করেছে এবং একে অপরের বিরুদ্ধে জনগণকে দাঁড় করাতে চাইছে।’
উল্লেখ্য, গত ১৩ সেপ্টেম্বর হিজাব আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে মাহসা আমিনি নামের কুর্দি তরুণীকে তেহরান থেকে গ্রেপ্তার করে ইরানের নৈতিকতা পুলিশ (মোরালিটি পুলিশ)। তিন দিন পর হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়। অভিযোগ উঠেছে, পুলিশের নির্যাতনের কারণেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে। এরপর ইরানজুড়ে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে।

বিক্ষোভ দমনে কাঁদানে গ্যাস, বেয়নেট, জলকামান ও গুলির মতো প্রচলিত অস্ত্রের পাশাপাশি ব্যবহার করা হচ্ছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি। বিক্ষোভে হতাহতের পাশাপাশি চলছে গণহারে গ্রেপ্তার। মানবাধিকার সংস্থাগুলো বলছে, দেশটিতে হাজার হাজার বিক্ষোভকারীকে আটক করা হচ্ছে।
মানবাধিকার সংগঠনগুলো বলছে, অনেক কর্মী, শিক্ষার্থী ও শিল্পীকে আটক করা হয়েছে। আর কমিটি টু প্রোটেক্ট জার্নালিস্ট এক টুইটবার্তায় জানায়, ২৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত নিরাপত্তা বাহিনী কমপক্ষে ২৮ জন সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করেছে। সূত্র : রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Mohmmed Dolilur ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ২:০৪ পিএম says : 0
ইসলাম বিরোধী সবাইকে হত্যা করা জরুরি,যদি তাহারা ইসলামের আইন না মানে ওদের রাস্তায় টাংক দিয়ে পিষে মারতে ইরান সরকারের প্রতি অনুরোধ করতেছি,এরা ইসরাইল এবং পশ্চিমাদের অনুসারী,এদের হত্যা করা জরুরি এবং করতে ইরান সরকারের প্রতি অনুরোধ রইল,আর যদি এরা ইসলামের পতি সম্মান করতে চায় এবং মানতে রাজি হয়,ওদের হত্যা করার পয়োজন নেই,এদের সময় দিয়ে দিন,সময় শেষ হলে যদি তার পরে ও ইসলাম বিরোধী করেন,এদের হত্যা করা ছাড়া আর কিছুই করার নেই,।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন