মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৪ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

দুই সপ্তাহের মধ্যে ইউক্রেনে ২ লাখেরও বেশি সৈন্য পাঠাবে রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ অক্টোবর, ২০২২, ৯:৪৩ এএম

আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে ইউক্রেনে ২ লাখেরও বেশি সংখ্যক সৈন্য পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছে রাশিয়া। গত ২১ সেপ্টেম্বর রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পারশিয়াল মোবিলাইজেশনের ঘোষণা দেওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত ২ লাখেরও বেশি লোকবল তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। স্থানীয় সময় আজ মঙ্গলবার রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাশিয়ার রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিভিশনে সম্প্রচারিত এক ভাষণে সের্গেই শোইগু বলেছেন, ‘আজ পর্যন্ত ২ লাখেরও বেশি মানুষ সেনাবাহিনীতে অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন।’ ইউক্রেনে চাপের মুখে থাকা রাশিয়ার সেনাবাহিনীকে আরও সৈন্য সরবরাহ করে চাঙা করে তুলতেই মোবিলাইজেশনের ঘোষণা দেন পুতিন। ইউক্রেনের বেশ কয়েকটি ফ্রন্টে রাশিয়ার সৈন্যরা পশ্চাদপসরণের বাধ্য হওয়ায় এই ঘোষণা দেন পুতিন।

পুতিন মোবিলাইজেশনের ঘোষণার পরপরই রাশিয়ার সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয় এটি পূর্ণাঙ্গ মোবিলাইজেশন নয় বরং আংশিক মোবিলাইজেশন। এবং এর আওতায় ৩ লাখ রিজার্ভ সৈন্যকে ইউক্রেনে মূল সেনাবাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে যুক্ত করা হবে।

রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু জানিয়েছেন, যাদের আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে ইউক্রেনের পাঠানো হবে তাঁরা দেশের ৬টি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ৮০ টিরও বেশি মাঠে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। এ সময় শোইগু দেশটির নৌ এবং সেনাবাহিনীর কমান্ডারদের কাছে দ্রুত এই সৈন্য সংগ্রহ প্রক্রিয়া শেষ করতে সহায়তার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন যেন, নতুন যুক্ত হওয়া সৈন্যরা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

এদিকে, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে যেকোনো ধরনের আলোচনা ‘অসম্ভব’ উল্লেখ করে একটি আদেশ জারি করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। তাঁর আদেশের ফলে, ইউক্রেনের কোনো নাগরিক পুতিনের সঙ্গে কোনো ধরনের আলোচনা করতে পারবেন না।

রাশিয়া ইউক্রেনের চারটি অঞ্চল নিজেদের সঙ্গে অন্তর্ভুক্ত করে নেওয়ার প্রতিক্রিয়ায় গত শুক্রবার জেলেনস্কি জানিয়েছিলেন, পুতিনের সঙ্গে আলোচনার সকল পথ বন্ধ। তাঁর সঙ্গে আর কোনো আলোচনা সম্ভব নয়। আজকের এই আদেশের মাধ্যমে জেলেনস্কির সেদিনের কথা আইনে পরিণত হলো। সূত্র : রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন