বৃহস্পতিবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১৩ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

সারা বাংলার খবর

স্বামী ও শাশুড়ির সাথে অভিমানে গৃহবধূর আত্মহনন

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৫ অক্টোবর, ২০২২, ৭:১৫ পিএম

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে স্বামী ও শাশুড়ির সাথে বিবাদে জড়ানোর পর অভিমানে ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহনন করেছে এক গৃহবধূ। বুধবার দুপুরে পৌর শহরের চরনিখলা গ্রামে নিজ ঘরের আড়ার সাথে ঝুলে আত্মহনন করে ওই গৃহবধূ।

জানা যায়, ঈশ্বরগঞ্জ পৌর শহরের চরনিখলা গ্রামের আবু ড্রাইভারে'র ছেলে মিজানুর রহমানের সাথে প্রায় ৫বছর পূর্বে বিবাহ হয় উপজেলার আঠারবাড়ি ইউনিয়নের চুরগাঁও গ্রামের ইসলাম উদ্দিনের কন্যা জেবুন্নেছা জেবুর। বিবাহের পর দীর্ঘদিন যাবত তাদের সংসার ভালোভাবেই চলে আসছিলো। বৈবাহিক জীবনে ৩ বছর বয়সী একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে তাঁদের। কিন্তু বেশ কিছুদিন যাবত গৃহবধূ জেবুন্নেছা জেবুর সাথে স্বামী ও শাশুড়ির সংসারের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিবাদ সৃষ্টি হয়ে আসছে। এরই মাঝে বুধবার জেবুন্নেছা জেবু তার স্বামী ও শাশুড়ির সাথে সংসারের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা-কাটাকাটি হয়। সেই কথা-কাটাকাটি রেশ ধরে বুধবার দুপুরে নিজ ঘরের আড়ার সাথে ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহনন করে গৃহবধূ জেবু। এদিকে স্বামী বাহির থেকে এসে ঘরে ঢুকে দেখতে পায় স্ত্রী জেবু ঘরের আড়ার সাথে ঝুলে আছে। এঅবস্থায় স্বামী মিজান স্ত্রী জেবু কে ঘরের আড়া থেকে নামিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে হাসপাতাল থেকে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায় পুলিশ।

নিহত জেবুর বাবা ইসলাম উদ্দিন বলেন, আমার মেয়েকে ওরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন করতো। ওরা পরিকল্পিত ভাবে মেরে ফেলেছে আমার মেয়েকে। আমি এদের কাউকে ছাড় দেবো না। আমি আমার মেয়ে হত্যার বিচার চাই।


ঈশ্বরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ পীরজাদা শেখ মোহাম্মদ মোস্তাছিনুর রহমান বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন