শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৬ বৈশাখ ১৪৩১, ০৯ শাওয়াল ১৪৪৫ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

কিমের থেকে উপহার পাওয়া কুকুর ফেরাচ্ছেন মুন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ নভেম্বর, ২০২২, ১২:২১ পিএম

উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের উপহার হিসেবে দেয়া কুকুরগুলি ছেড়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিলেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন। ২০১৮ সালে উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উন উপহার হিসেবে কুকুরগুলিকে পাঠিয়েছিলেন। গত মে মাসে মেয়াদ শেষের পর কুকুরগুলি নিজের ব্যক্তিগত বাসভবনে নিয়ে গিয়েছিলেন ইন। কিন্তু তারপরেই কুকুরগুলি ছেড়ে দেয়ার সিদ্ধান্তে তৈরি হয়েছে কৌতূহল।

গত মে মাসে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট পদের মেয়াদ শেষ হয় মুন জায়ে ইনের। কিন্তু তার পর থেকে নিজের ব্যক্তিগত বাসভবনে ছিল ‘গোমি’ এবং ‘সোংগাং’ নামে কুকুর দু’টি। আসলে, উপহার পাওয়া কুকুরগুলিকে রাষ্ট্রর সম্পত্তি হিসেবে সাধারণত দেখা হয়। সরকারি প্রোটোকল অনুযায়ী এক্ষেত্রে কুকুর দু’টির দায়িত্ব বর্তায় দক্ষিণ কোরিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের উপরই। কিন্তু তা সত্ত্বেও সেগুলি কী ভাবে প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট নিয়ে গেলেন, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে জল্পনা।

এদিকে, উপহার পাওয়া কুকুর বিতর্কে বর্তমান দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টেরও হাত রয়েছে দাবি করেছেন সাবেক প্রেসিডেন্টের অফিস। এ ব্যাপারে দেশের বর্তমান আইনের সংশোধনের প্রস্তাব করা হলেও, বর্তমান প্রেসিডেন্ট ইউন সুক ইওল প্রশাসন সংশোধনীর বিরোধিতা করছে বলে দাবি করেছে মুনের অফিস। তবে, বর্তমানে কুকুরগুলি সরকারের কাছে অর্পণ করার জন্য যেভাবে নির্দেশ দেয়া হয়েছে, সেক্ষেত্রে প্রোটোকল মানা হয়নি বলে সাবেক প্রেসিডেন্টের অফিস জানিয়েছে।

কিন্তু এর পিছনে অন্য কারণ রয়েছে বলে মনে করছেন বিশ্ব কূটনৈতিক মহলের একাংশ। গত ১ নভেম্বর ১০টির বেশি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালায় কিম জং উনের দেশ। এর মধ্যে একটি ক্ষেপণাস্ত্র দক্ষিণ কোরিয়ার জলসীমার কাছাকাছি আছড়ে পড়েছে বলে জানা যায়। এরপরেই সমুদ্রসীমায় ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার জেরে দক্ষিণ কোরিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় একটি দ্বীপে বিমান হামলার সতর্কতা জারি করে প্রশাসন। সেখানকার বাসিন্দাদের বাংকারে আশ্রয়ে নিতে বলা হয়।

সিউলের প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে যে, ১৯৫৩ সালে কোরিয়া বিভক্ত হওয়ার পর এই প্রথম উত্তর কোরিয়ার কোনও ক্ষেপণাস্ত্র দক্ষিণ কোরিয়ার জলসীমায় এসে আছড়ে পড়ল। দক্ষিণ কোরিয়ার মূল ভূখণ্ডের থেকে মাত্র ৫৭ কিলোমিটার অর্থাৎ ৩৫ মাইল পূর্বে জলসীমায় আছড়ে পড়ে বলে ওই দেশের সামরিক বাহিনী দাবি করে। এই ঘটনা নতুন করে তৈরি হয় দুই কোরিয়ার মধ্যে উত্তেজনা। আর তার জেরেই ২০১৮ সালে কিমের দেয়া উপহার বর্তমান দক্ষিণ কোরিয়া সরকার ফিরিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। সূত্র: পলিটিকো।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন