সোমবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯, ০৭ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

খেলাধুলা

কাতার বিশ্বকাপে কেন এতো ইনজুরি টাইম?

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ নভেম্বর, ২০২২, ১০:৪১ এএম

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পেনাল্টি থেকে ইরান যখন দ্বিতীয় গোল করে তখন ঘড়িতে খেলার সময় ১০২ মিনিট ৩০ সেকেন্ড। সেনেগালের বিরুদ্ধে আবার নেদারল্যান্ডসের দ্বিতীয় গোল আসে ৯৮ মিনিট ১৭ সেকেন্ডে। হিসেব বলছে, প্রথম পাঁচ ম্যাচে ৮৩ মিনিট ইনজুরি টাইম (প্রথমার্ধ ও দ্বিতীয়ার্ধের শেষে যে সময় অতিরিক্ত যোগ করা হয়) দেয়া হয়েছে; যা প্রায় একটি গোটা ফুটবল ম্যাচের সমান। কিন্তু ইনজুরি টাইমে কেন এত বেশি সময় খেলা হচ্ছে এবারের ফুটবল বিশ্বকাপে?

বেশিক্ষণ খেলানোর প্রধান কারণ ফিফার নিয়ম বদল। ফুটবলাররা যাতে পুরো ৯০ মিনিট খেলতে পারেন, বেশি সময় নষ্ট না হয় তার জন্য এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ফিফার রেফারিদের কমিটির প্রধান পিয়েরলুইজি কলিনা বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার আগে বলেছিলেন, আমরা চাই না যে ৪২, ৪৩, ৪৪ মিনিটে একটি হাফ শেষ হয়ে যাক। তাই বদলি ফুটবলার মাঠে নামা, পেনাল্টি, গোলের পর উল্লাস, মেডিক্যাল কারণে ও ভিএআর প্রযুক্তির ফলে যে সময় নষ্ট হয় তা মেটানো হবে।

কলিনার এই বক্তব্য থেকে পরিষ্কার, কেন এবারের বিশ্বকাপে এতক্ষণ অতিরিক্ত খেলানো হচ্ছে।

এবারের বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সব থেকে বেশি অতিরিক্ত সময় দেয়া হয়েছে ইংল্যান্ড বনাম ইরান ম্যাচে। প্রথমার্ধে ১৪ ও দ্বিতীয়ার্ধে ১৩ অর্থাৎ মোট ২৭ মিনিট অতিরিক্ত সময় দেয়া হয়েছিল। তার প্রধান কারণ ছিল, প্রথমার্ধে চোট পেয়ে ইরানের গোলরক্ষক আলিরেজা বেইরানভান্দের বেরিয়ে যাওয়া। সেই সঙ্গে গোটা ম্যাচে আটটি গোল হয়। প্রতিটি গোলের পরে ফুটবলারদের উল্লাসের জন্য সময় নষ্ট হয়েছে। সেটাও যোগ করা হয়েছে।

আর্জেন্টিনা বনাম সৌদি আরব ম্যাচে দুই অর্ধ মিলিয়ে মোট ১৯ মিনিট অতিরিক্ত সময় দেয়া হয়েছে। প্রথমার্ধে ৫ মিনিট অতিরিক্ত সময় দেয়া হয়। দ্বিতীয়ার্ধে ৮ মিনিট দেয়া হলেও সেই অতিরিক্ত সময় গড়ায় ১৪ মিনিটে। সেখানেও কারণ সেই ফুটবলারের চোট। ফুটবলাররা যাতে দুই অর্ধ মিলিয়ে পুরো ৯০ মিনিট খেলতে পারেন তার জন্যই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফিফা। সে কারণেই এত বেশিক্ষণ অতিরিক্ত সময় দেওয়া হচ্ছে এবারের ফুটবল বিশ্বকাপে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন