শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯, ১২ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

সারা বাংলার খবর

কুড়িগ্রামে গহনা নিয়ে বিয়ে বাড়ীতে সংঘর্ষে একজন নিহত, বরসহ ১২ জন গ্রেফতার

কুড়িগ্রাম সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২ ডিসেম্বর, ২০২২, ৩:৩৬ পিএম

কুড়িগ্রামের প্রস্তাবিত কচাকাটা উপজেলায় বিয়ে বাড়িতে কনের গহনা নিয়ে বর ও কনে পক্ষের সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষে কনের দাদি নিহত হয়েছেন। পুলিশ বর সহ বর পক্ষের ১২জনকে আটক করেছে। নিহত কনের দাদির নাম তহুরন নেছা (৭০)। ঘটনাটি ঘটেছে

বৃহস্পতিবার রাতে কচাকাটার কেদার ইউনিয়নের গোলেরহাট গ্রামে কনের বাড়িতে।পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, গোলের গ্রামের নূরজামাল ইসলামের মেয়ে জেসমিন আকতারের সাথে ভূরুঙ্গামারী উপজেলার বঙ্গসোনাহাট ইউনিয়নের ঘুন্টিঘর এলাকার আলীফ উদ্দিনের ছেলে রাইসুল ইসলাম রিপনের সাথে বিয়ে ঠিক হয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বরযাত্রী আসে কনের বাড়িতে। ভোজ শেষে কনে সাজাতে গিয়ে বর পক্ষের দেয়া গহনা নিয়ে দুপক্ষের বাকবিতন্ডা সৃষ্টি হয়। এক পর্যায় তা সংঘর্ষে রুপ নেয়। এ সময় কনে পক্ষের বেশ কয়েকজন আহত হয়। এর মধ্যে গুরুতর আহত অবস্থায় কনের দাদি তহুরন নেছাকে হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যায়।কনে জেসমিন আকতার জানান, আমার চোখের সামনে আমার দাদিকে খাটের স্টান্ড দিয়ে পিটিয়েছে বরের লোকজন। আমি এর বিচার চাই। খুনিদের ফাঁসি চাই। কনের মা

রুপালী পারভীন জানান, বর পক্ষ যে পরিমাণ সোনার গহনা দেয়ার কথা ছিল তা নিয়ে আসেনি । কনে সাজানোর সময় গহনা নিয়ে দুই পক্ষের মাঝে ঝগড়া বাধে। পরে মারামারির ঘটনা ঘটে। এ সময় আমার শাশুড়িকে তারা মারপিট করলে গুরুতর আহত হন। পরে হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান।
খবর পেয়ে রাতেই কচাকাটা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বরসহ ১২ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। কচাকাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মর্তুজা জানান, এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন