বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯, ১৭ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

চাপে নতি স্বীকার সুইডেনের

কুর্দি সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলো বৈধ লক্ষ্যবস্তু তুরস্কের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ ডিসেম্বর, ২০২২, ১২:০০ এএম

সিরিয়ায় থাকা কুর্দি সশস্ত্র গোষ্ঠীর স্থাপনাকে ‘বৈধ লক্ষ্যবস্তু’ বলে মন্তব্য করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট কার্যালয়ের মুখপাত্র ইব্রাহিম কালিন। সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরাকে সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি (পিকেকে), কুর্দিশ পিপলস প্রোটেকশন ইউনিট (ওয়াইপিজি) এবং ডেমোক্রেটিক ইউনিয়ন পার্টি (পিওয়াইডি) শাখায় হামলা চালাতে পারে আঙ্কারা। সাক্ষাৎকারে তিনি আরও বলেন, পিকেকে, পিওয়াইডি, ওয়াইপিজির সামরিক স্থাপনা আমাদের জন্য বৈধ লক্ষ্যবস্তু। সেটি তুরস্ক অথবা সিরিয়ায় যেখানেই হোক না কেন। ইব্রাহিম কালিন অভিযোগ করে বলেন, পিকেকে, পিওয়াইডি এবং ওয়াইপিজি অতীতে নিজেদের রক্ষা করার জন্য যুক্তরাষ্ট্র এবং সিরীয় সরকারের পতাকা ব্যবহার করেছে। গত মাসে ইস্তাম্বুলে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় পিকেকে গোষ্ঠীকে দায়ী করেছে আঙ্কারা। যদিও এ ঘটনার সঙ্গে তাদের কোনও হাত নেই বলে অস্বীকার করেছে সশস্ত্র গোষ্ঠীটি। বিস্ফোরণের জেরে নতুন করে সিরিয়ার সীমান্ত এলাকায় কুর্দি বিরোধী অভিযান শুরু করেছে তুর্কি সরকার। উল্লেখ্য, বিগত কয়েক দশক ধরে কুর্দি বিদ্রোহীদের সংগঠন কুর্দিস্তান ওয়ার্কাস পার্টির (পিকেকে) বিরুদ্ধে লড়াই করছে তুরস্ক। কুর্দি সশস্ত্র গোষ্ঠী পিকেকে তুরস্ক, যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন কর্তৃক একটি সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে তালিকাভুক্ত। আঙ্কারার দাবি, নারী ও শিশুসহ ৪০ হাজার মানুষকে হত্যা করেছে পিকেকে সন্ত্রাসীরা। তুরস্ক বলছে, যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক আনুষ্ঠানিকভাবে সন্ত্রাসী তালিকাভুক্ত হলেও গোষ্ঠীটিকে সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে ওয়াশিংটন। তুরস্কের চাপে নিষিদ্ধ ঘোষিত কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টির (পিকেকে) একজন দোষী সাব্যস্ত সদস্যকে আঙ্কারার কাছে হস্তান্তর করেছে সুইডেন। পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্যপদ লাভের অংশ হিসেবে সুইডেন এমন পদক্ষেপ নিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। খবর আল জাজিরার। দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, সশস্ত্র পিকেকের গোষ্ঠীর সদস্যপদের জন্য মাহমুদ তাতকে ছয় বছর ১০ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছিল তুরস্ক। কিন্তু ২০১৫ সালে সুইডেনে পালিয়ে যায় সে। সেখানে রাজনৈতিক আশ্রয়ের জন্য আবেদন করলে তা প্রত্যাখান করে দেশটি। বেসরকারি এনটিভি সম্প্রচারমাধ্যমে জানা গেছে, মাহমুদকে ইস্তাম্বুল বিমানন্দরে পাঠানো হলে তাকে নিয়ে যায় পুলিশ। শনিবার আদালতে পাঠানো হয়। ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের জেরে পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্য পদ পেতে গত মে মাসে আবেদন করে ফিনল্যান্ড ও সুইডেন। তবে এই আবেদনের বিরোধিতা করে আসছিল ন্যাটোর অন্যতম সদস্য রাষ্ট্র তুরস্ক। তাদের দাবি, হেলসিঙ্কি ও স্টকহোম কুর্দি গোষ্ঠীকে সহায়তা করছে এবং আঙ্কারার ওপর অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। যদিও তুরস্ক-সুইডেন একে অপরের নিরাপত্তার হুমকির বিরুদ্ধে পূর্ণ সমর্থন দিয়ে যাবে বলে একটি চুক্তিতে যৌথ স্বাক্ষরের পর আপত্তি প্রত্যাহারে সম্মত হয় আঙ্কারা। আল-জাজিরা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন