শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯, ১১ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

জাতীয় সংবাদ

শান্তিপূর্ণ সমাবেশ এবং মৌলিক স্বাধীনতা রক্ষা করুন : বিবৃতিতে মার্কিন দূতাবাস

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ ডিসেম্বর, ২০২২, ৬:৩৭ পিএম | আপডেট : ৭:৫৬ পিএম, ৮ ডিসেম্বর, ২০২২

১০ ডিসেম্বর বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশকে কেন্দ্র করে বিএনপির নেতাকর্মী ও আইন শৃংখলা বাহিনীর সংঘর্ষে নিহত ও আহতের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাস। একই সঙ্গে শান্তিপূর্ন সমাবেশের প্রত্যাশা ব্যক্ত করে শান্তিপূর্ণ সমাবেশের মৌলিক স্বাধীনতা রক্ষা করতে আহ্বান জানানো হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) এক বিবৃতিতে এ আহবান জানানো হয়।

মার্কিন দূতাবাস বিবৃতিতে বলেছে, গতকাল (৭ ডিসেম্বর, বুধবার) ঢাকায় সংঘর্ষে নিহত ও আহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।

দূতাবাসের পক্ষ থেকে আরো জানানো হয়, আমরা ঢাকায় ভয়ভীতি ও রাজনৈতিক সহিংসতার খবরে উদ্বিগ্ন এবং আইনের শাসনকে সম্মান করার এবং সহিংসতা, হয়রানি এবং ভয় দেখানো থেকে বিরত থাকার জন্য সবাইকে আহ্বান জানাই। আমরা সরকারী কর্তৃপক্ষকে সহিংসতার এই প্রতিবেদনতগুলো তদন্ত করতে এবং মতপ্রকাশ, সমিতি এবং শান্তিপূর্ণ সমাবেশের মৌলিক স্বাধীনতা রক্ষা করতে আহ্বান জানাই।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
ম নাছিরউদ্দীন শাহ ৮ ডিসেম্বর, ২০২২, ৯:২২ পিএম says : 0
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মর্জিনা বিরুদ্ধে সরকারের আচরণ পরবর্তী রাষ্ট্রদূতের গাড়িতে হামলা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে সরকার প্রধান পরারাষ্ট্রমন্ত্রী সরকারের গুরুত্বপূর্ণ ব‍্যাক্তিরা কি এমন শব্দ বাকী রেখেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে বলার? বিএনপি মানুষ দেখলেই শরিকদের সম্মিলিতভাবে বিরোধীদের সাথে ঐক্যবদ্ধ হবেন। কেন কৌশল গত আন্দোলন শক্তিশালী অবস্থান না করে ঢাকায় কর্মিদের নেতাদের মার খাওয়াচ্ছেন। এইগুলো করে সরকার পরিবর্তন করা সম্ভব? সাধারণ মানুষ কেন জীবন দিতে যাবেন? ডাকসুর ভিপি নুরু ইতিমধ্যে দেশ জাতির কাছে জাতীয় ঐক্যের কথা বলেছেন। আপনার কি আলাউদ্দীনের চেরাগ জ্বালাবেন ১০ডিসেম্ভর বলুন। মানুষের গনজোয়ার গন আন্দোলনের ক্রেত্র কোথায়? বিভাগীয় শহরে আন্দোলন মানুষের সমাগম দেশের মাঝে বিএনপির জনপ্রিয় দল প্রমাণিত হলো। ঢাকা সকল হিসাব কিতাবের বাহিরে এই অবরোধ করতে হব। জামায়াত হেফাজত চরমোনাই আলেম দের ঐক্য করতে হবে। খসরু সাহেবরা ইতিমধ্যে নারায়ে তাকবিরের বিরুদ্ধে তাদের চিহ্নিত করতে হবে। আপনি যদি মুসলমান হয়ে থাকেন আপনাকে বিশ্বাস করতে হবে বিজয় আল্লাহর হাতে। পকৃত ক্ষমতার মালিক আল্লাহ। আর কতদিন বর্তমান সরকার ক্ষমতাই থাকবেন আল্লাহ জানেন। আপনাদের নৈতিক দায়িত্ব আন্দোলন করা। আল্লাহর সাহায্য চাওয়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাহায্য নয়। দেখছিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা বেনজির নজির বিহীন ভাবে নিষেধাজ্ঞা নিয়ে বীর দর্পে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সফর করেছিলেন। পাকিস্তানের বিরোধী দলীয় নেতা লাউয়াল পিন্ডি গিয়ে ছিলেন গুলি বিদ্ধ শরীর নিয়ে ইসলামাবাদ অবরোধ করবেন বলে। পাকিস্তানের বিশাল জনগোষ্ঠী প্রায় ১২ মাইলের বেশী লক্ষ লক্ষ জনতার জোয়ার সত্বেও ইসলামাবাদ অবরোধ করেননি সরকার পতনের জন্যে। কারণ কি। সরকারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ যান পিটিআইয়ের কর্মি সমর্থক মৃত্যু বড় ধরনের খতি হতে পারে এই আশংকা। এই কঠিন কঠোর পরিস্থিতিতে বিএনপির নেতৃত্বে বড় অভাবের চিত্র ফুটে উঠেছে। আওয়ামীলীগ পরাজয় করা সহজ হবেনা। সকল প্রশাসন সম্পর্ন নিয়ন্ত্রণে। বতর্মান সরকার দেশের সকল সড়ক স্বর্ন দিয়ে বানিয়ে মানুষ হাটতে দিলে ও আওয়ামীলীগ কে ভোট দিবে না। সরকারের উপর মানুষের ক্ষোভ বিক্ষোভ এতটাই বেশী বলার প্রযোজন নাই। সরকার ও বিশালাকার উন্নয়ন করে ক্লান্ত। সব বিপরীত। দূন্নীতির পাহাড়ের চিত্রনাট্য প্রতিদিন প্রকাশ হচ্ছে। বিদেশ কুটনৈতিক রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশ নিয়ে বক্তব্য দিবেন। দিচ্ছেন। আল্লাহ না করুক বাংলাদেশের বিরুদ্ধে আমেরিকা বা ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশ গুলো অবরোধ বা নিষেধাজ্ঞা দেয় বাংলাদেশের অর্থনীতি ধ্বংস হবে কৌশলী রাজনীতি মানুষের জীবনের নিরাপত্তা গনজোয়ারের মাষ্টার প্লান না করে।সমাবেশ করার করুন পরিণতি। ধন্যবাদ।
Total Reply(0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন