শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০, ১২ শাবান সানি ১৪৪৫ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

মেগা প্রকল্পে বিশ্বব্যাংকের কাছে টাকা চেয়েছে ঢাকা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ জানুয়ারি, ২০২৩, ৮:১০ এএম

দেশে মেগা প্রকল্পগুলোর ব্যয় নির্বাহে বিশ্বব্যাংকের কাছে টাকা চেয়েছে বাংলাদেশ। বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে ৫০ বছরের অংশীদারত্ব সামনে রেখে ঢাকাকে আরও বাসযোগ্য করে গড়ে তুলতে অর্থায়নের এই অনুরোধ জানানো হয়েছে।

বিশ্বব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, অপারেশন্স অ্যাক্সেল ভ্যান ট্রটসেনবার্গ শনিবার (২১ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাকায় পৌঁছে বিকালে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। বৈঠকে বিশ্বব্যাংকের কাছে মেগা প্রকল্পে অর্থায়ন চেয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

বাংলাদেশে এটিই অ্যাক্সেল ভ্যান ট্রটসেনবার্গের প্রথম আনুষ্ঠানিক সফর। তিন দিনের এই সফরে তিনি বাংলাদেশ ও বিশ্বব্যাংকের মধ্যে অংশীদারত্ব সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি এবং বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য উন্নয়ন অর্জন উদযাপন অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।

শনিবার অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

অর্থমন্ত্রী বিশ্বব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কে বাংলাদেশে স্বাগত জানান। তিনি বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের বিভিন্ন উদ্যোগে বিশ্বব্যাংকের আরও জোরদার ও ফলপ্রসূ অংশীদারত্বের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

অর্থমন্ত্রী বিশ্বব্যাংককে বাংলাদেশের অন্যতম উন্নয়ন সহযোগী হিসেবে অভিহিত করে এখানে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বিদ্যুৎ, দুর্যোগ মোকাবেলা খাতসহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প বিশেষ করে করোনার সময়ে বাজেট সহায়তা, কভিড মোকাবেলা এবং কভিড ভ্যাকসিন কেনায় অর্থায়নের জন্য ধন্যবাদ জানান।

বৈঠকে বিশ্বব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন বিশেষত দারিদ্র্য দূরীকরণে অভাবনীয় সাফল্যের প্রশংসা করেন। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশের বিভিন্ন সময়োচিত পদক্ষেপেরও প্রশংসা করেন। বাংলাদেশের উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশের অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছতে বিশ্বব্যাংকের পাশে থাকার অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেন তিনি।

অ্যাক্সেল ভ্যান বিশ্বব্যাংকের খসড়া কান্ট্রি পার্টনারশিপ ফ্রেমওয়ার্ক (সিপিএফ) নিয়েও আলোচনা করেন এবং জানান, সিপিএফ-এ বাংলাদেশকে উচ্চ-মধ্যম আয়ের দেশে রূপান্তরে অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছে।

দ্বিপক্ষীয় এই বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার, অর্থ বিভাগের সিনিয়র সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব শরিফা খান, অতিরিক্ত সচিব মো. শাহরিয়ার কাদের ছিদ্দিকী এবং বিশ্বব্যাংকের পক্ষে মার্টিন রেইজার, দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট, আব্দুলায়ে সেক, কান্ট্রি ডিরেক্টর, ড্যানডান চেনসহ অর্থ মন্ত্রণালয় ও বিশ্বব্যাংকের কর্মকর্তাবৃন্দ।

বাংলাদেশের উন্নয়ন নিজ চোখে দেখতে বিশ্ব আর্থিক খাতের মোড়ল সংস্থা বিশ্বব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) অ্যাক্সেল ভ্যান ট্রটসেনবার্গ ঢাকায় এসেছেন।

সফরকালে ভ্যান ট্রটসেনবার্গ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এবং জ্যেষ্ঠ সরকারি কর্মকর্তা, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি ও উন্নয়ন অংশীদারদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। এ ছাড়া তিনি বিশ্বব্যাংকের সহায়তাপুষ্ট বিভিন্ন প্রকল্প পরিদর্শন করবেন। তার সঙ্গে থাকবেন দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের বিশ্বব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট মার্টিন রেইজার।

বিশ্বব্যাংক ঢাকা অফিসের সিনিয়র এক্সটার্নাল অ্যাফেয়ার্স অফিসার মেহরিন আহমেদ মাহবুব বলেন, বাংলাদেশে অবস্থানকালে অ্যাক্সেল ভ্যান ট্রটসেনবার্গ ঢাকা ও কক্সবাজারে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে বাস্তবায়িত কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্প পরিদর্শন করবেন। বাংলাদেশ ও বিশ্বব্যাংকের মধ্যে সুন্দর সম্পর্কের ৫০ বছর উদযাপন করতেই মূলত তিনি ঢাকায় এসেছেন। একই সঙ্গে তিনি বাংলাদেশের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড সরেজমিনে পরিদর্শন করবেন।

২৪ জানুয়ারি রাতে তিনি ঢাকা ছাড়বেন বলে জানান মেহরিন।

ঢাকা সফর উপলক্ষে এক বিবৃতিতে অ্যাক্সেল ভ্যান ট্রটসেনবার্গ বলেন, মানব উন্নয়ন, নারীর ক্ষমতায়ন এবং জলবায়ু অভিযোজনে সফল উদ্ভাবনের মাধ্যমে দারিদ্র্য কমাতে কী করা যেতে পারে তা বাংলাদেশ বিশ্বকে দেখিয়েছে। বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশের সঙ্গে তার ৫০ বছরের অংশীদারত্ব এবং দেশের উল্লেখযোগ্য উন্নয়নযাত্রার অংশ হিসেবে গর্বিত। আমি আমার সফরের জন্য এবং এই সাফল্যগুলো সরাসরি দেখার জন্য অপেক্ষা করছি।

স্বাধীনতার পর বাংলাদেশকে সহায়তাকারী প্রথম উন্নয়ন সহযোগী বিশ্বব্যাংক। তারপর থেকে এই দাতা সংস্থাটি প্রায় ৩৯ বিলিয়ন ঋণসহায়তা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, যার বেশির ভাগই অনুদান বা রেয়াতি ঋণের (কম সুদে)। বাংলাদেশে বর্তমানে বিশ্বব্যাংক গ্রুপের ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের (আইডিএ) বৃহত্তম চলমান কর্মসূচি রয়েছে।

৫০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠান আজ রোববার বিশ্বব্যাংক ঢাকা অফিসের কর্মকর্তা মেহরিন আহমেদ মাহবুব বলেন, রোববার বিকেল ৩টায় বিশ্বব্যাংক এমডি রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ ও বিশ্বব্যাংকের মধ্যে অংশীদারত্ব সম্পর্কের ৫০ বছর উদযাপন অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। তার সঙ্গে থাকবেন সংস্থাটির দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট মার্টিন রেইজার। অর্থ মন্ত্রণালয় ও বিশ্বব্যাংক যৌথভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান, বিশ্বব্যাংকের বিকল্প নির্বাহী পরিচালক আহমদ কায়কাউস, মেট্রোপলিটন চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এমসিসিআই) সাবেক সভাপতি নিহাদ কবির, গবেষণা সংস্থা পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (পিআরআই) আহসান এইচ মনসুর এবং বিশ্বব্যাংক গ্রুপের প্রতিষ্ঠান মাল্টিলেটারাল ইনভেস্টমেন্ট গ্যারান্টি এজেন্সির (মিগা) ভাইস প্রেসিডেন্ট জুনায়েদ কামাল আহমদ বক্তব্য দেবেন।

উদযাপন অনুষ্ঠানের ফাঁকে সম্মেলন কেন্দ্রটির কার্নিভাল হলে অর্থমন্ত্রী ও বিশ্বব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক যৌথভাবে একটি মাল্টিমিডিয়া ফটো প্রদর্শনী ‘এ জার্নি টুগেদার’ উদ্বোধন করবেন। প্রদর্শনীটি ওইদিন রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে।

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হবেন বিশ্বব্যাংক এমডি রোববার সন্ধ্যা ৫টায় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হবেন বিশ্বব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অ্যাক্সেল ভ্যান ট্রটসেনবার্গ। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের মিডিয়া বাজারে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

সংবাদ সম্মেলনে সংস্থাটির দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট মার্টিন রেইজার এবং বিশ্বব্যাংকের বাংলাদেশ ও ভুটানের কান্ট্রি ডিরেক্টর আবদৌলায়ে সেক উপস্থিত থাকবেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
আমান ২২ জানুয়ারি, ২০২৩, ৯:০২ এএম says : 0
যে পরিমাণ বাংলাদেশ ঋণ নিচ্ছে ভবিষ্যতে দেশের অবস্থা নাজুক হবার সম্ভাবনাই বেশি
Total Reply(0)
আলি ২২ জানুয়ারি, ২০২৩, ৯:০৩ এএম says : 0
আরো একবার লুটপাট করার ধান্দা
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন