ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

খেলাধুলা

ধোনিকে কোহলির ধন্যবাদ

| প্রকাশের সময় : ৮ জানুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক : অধিনায়কত্ব ছেড়েছেন প্রায় ৪৮ ঘণ্টা হয়ে গেল। সাবেক থেকে বর্তমান, প্রায় প্রত্যেক ক্রিকেটারই নিজেদের মন্তব্য জানিয়েছেন মহেন্দ্র সিং ধোনির সিদ্ধান্ত নিয়ে। কিন্তু একটাও কথা শোনা যায়নি ধোনির স্থলাভিষিক্ত হওয়া ওয়ানডে ও টি-২০ দলের ডেপুটি বিরাট কোহলির মুখ থেকে। অবশেষে ধোনির ক্যাপ্টেনসি ছাড়া নিয়ে মুখ খুললেন বিরাট। গতকাল সকালেই টুইট করে বললেন, ‘ধন্যবাদ ধোনি ভাই। ইয়ংস্টাররা সবসময় তোমাকে পাশে পেতে চায়। তুমি সবসময়ই আমার অধিনায়ক হয়েই থাকবে।’ কারণ বছরের শুরুতেই ধোনি সবচেয়ে বড় উপহারটা কোহলিকে দিয়েছেন। বেসরকারি ভাবে তার হাতেই ভারতীয় দলের ব্যাটন তুলে দিয়েছেন। শুধু কী এ কারণেই? ধোনির অধিনায়কত্বেই ভারতীয় দলে এসেছিলেন কোহলি। কুঁড়ি থেকে ফুল হয়ে ফুটেছিলেন তাঁরই অধীনে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে সেই কোহলির অধিনায়কত্বে মাঠে নামবেন ধোনি। আগে টেস্টের অধিনায়কত্ব ছাড়লেও অবসর নেওয়ায় কোহলির অধীনে বড় সংস্করণে খেলা হয়নি তাঁর। এ যেন এক দিক বদলের শুরু। এমন একটা মুহূর্তে কোহলি যেন কিছুটা আপ্লুতও। তাঁর কণ্ঠে সাবেক অধিনায়কের প্রতি অগাধ শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা। নিজেই জানিয়েছেন, সীমিত ওভারের ক্রিকেটে সাবেক এই ভারতীয় অধিনায়ক অনেকবারই তাঁকে বাদ পড়ার হাত থেকে বাঁচিয়েছেন।
২০০৮ সালে ভারতীয় দলে অভিষেক কোহলির। ক্যারিয়ারের শুরুর দিনগুলোতে একেবারেই ধারাবাহিক ছিলেন না তিনি। দল নির্বাচনের সময় অনেকবারই তাঁকে বাদ দেওয়ার কথা ভেবেছেন নির্বাচকেরা। প্রতিবারই ধোনির জন্য তিনি টিকে গেছেন দলে। ধোনির কারণে ভারতীয় ক্রিকেটে নিজের অবস্থান শক্ত করতে পেরেছেন বলেই তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞতার শেষ নেই কোহলির, ‘মহেন্দ্র সিং ধোনি আমার ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে আমাকে দিকনির্দেশনা দিয়েছেন। আমাকে সুযোগ দিয়েছেন। ভালো ক্রিকেটার হিসেবে গড়ে উঠতে ধোনি আমাকে যথেষ্ট সময় দিয়েছেন। দল থেকে বাদ পড়া থেকে বাঁচিয়েছেন অনেকবারই।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন