ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ সফর ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ওয়ান ইলেভেনের ঘটনা তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি : স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

প্রকাশের সময় : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ওয়ান ইলেভেনের (১/১১) সময় রাজনীতিক, সাংবাদিক, বুদ্ধিজীবী, সুশীল ও পেশাজীবীরা কে কী করেছে তা খুঁজে বের করতে তদন্ত কমিশন গঠনের দাবি জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, আজকে অন্ধকার থেকে বেরিয়ে আসতে হলে, ওয়ান ইলেভেনের সময় যা যা হয়েছে, যে যা করেছে-এর জন্য কমিশন হওয়া উচিত। কমিশন করে বের করতে হবে কারা এ কাজ করেছে। তাহলেই ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে না।
গতকাল রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে তিন দিনব্যাপী ৬ষ্ঠ সাউথ এশিয়ান নিউরোসার্জিক্যাল কংগ্রেস ও ৮ম আন্তর্জাতিক বৈজ্ঞানিক সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মঙ্গলবার তিনি এ মন্তব্য করেন।
নাসিম বলেন, ওয়ান ইলেভেনের সময় যারা ভিলেন ছিলেন, তারা নায়ক হয়ে যাচ্ছেন। একজন মি. মাহফুজ আনাম। তিনি বললেন, ভুল করেছিলেন। রাজনীতিবিদরা রাজনীতি করবেন, ডাক্তার সাহেবরা ডাক্তারি করবেন, সাংবাদিক বন্ধুরা সাংবাদিকতা করবেন। এটাই বড় কথা। যার যার সীমানা আছে। সীমানা কেউ অতিক্রম করলে, ভুল করাই স্বাভাবিক। তিনি বলেন, রাজনীতিবিদরা ভুল করতেই পারে। তবে রাজনীতিবিদরাই দেশ স্বাধীন করেছেন। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ স্বাধীন হয়েছে। আর শেখ হাসিনা দেশ এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। রাজনীতিবিদরাই দেশ সৃষ্টি করেছেন। আমাদের দেশের রাজনীতিবিদরা ভালো করতে পারেন, খারাপও করতে পারেন।
স্বাস্থ্য মন্ত্রী বলেন, ওয়ান ইলেভেনের সময় চক্রান্ত করে শেখ হাসিনা ও খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে সরানোর চেষ্টা করা হয়েছে। কিছু অশুভ শক্তি ক্ষমতা দখল করতে চেয়েছিল। আমরা সবাই জানি শেখ হাসিনা দক্ষতার সঙ্গে, যোগ্যতার সঙ্গে গণতন্ত্র রক্ষা করেছেন।
একই সঙ্গে কিন্তু অতীতকে ভুলে যাওয়া সম্ভব না। অতীত থেকে আমরা শিক্ষাগ্রহণ না করলে, আমরা এগিয়ে যেতে পারব না। সেজন্য আজ যে কথাগুলো বলা হচ্ছে ভুল করেছিলাম। এ ভুলের জন্য কী হয়েছে? একজন মানুষকে জেলখানায় বন্দি থাকতে হয়েছে। আমাকে ২ বছর বন্দি অবস্থায় রাখা হয়েছে। ফলে আমি অসুস্থ হয়ে পড়েছি। কে ফিরিয়ে দেবে আমার সুস্থতাকে? এ ভুলের জন্য স্বীকার করলে হবে না। দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করা উচিত ছিল। যেটি আমি প্রথম বলেছিলাম মাহমুদুর রহমানের সময়। দায়িত্বজ্ঞানহীন ব্যক্তিকে দায়িত্বে যদি রাখতে হয়, তবে তাকে পদত্যাগ করতে হবে, বলেন নাসিম।
বাংলাদেশ সোসাইটি অব নিউরোসার্জনস’-এর সভাপতি প্রফেসর ডা. কনক কান্তি বড়ুয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি প্রফেসর ডা. মাহমুদ হাসান, মহাসচিব এম ইকবাল আর্সলান, স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক প্রফেসর আবুল কালাম আজাদ, সাউথ এশিয়ান অ্যাসোসিয়েশন অব নিউরোসার্জনসের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি প্রফেসর ইউ পি দেবকোটা প্রমুখ। সাউথ এশিয়ান অ্যাসোসিয়েশন অব নিউরোসার্জনস ও বাংলাদেশ সোসাইটি অব নিউরোসার্জন যৌথভাবে এ সম্মেলনের আয়োজন করে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন