শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯, ১২ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

অভ্যন্তরীণ

কাবিটা প্রকল্পের টাকায় প্রভাবশালীর ফিশারি খননের অভিযোগ ইউএনওর কাছে

প্রকাশের সময় : ৩ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ফুলপুর (ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদদাতা
উপজেলার সিংহেশ্বর ইউনিয়নে রাস্তা নির্মাণের নামে কাবিটা প্রকল্পের টাকায় জনৈক প্রভাবশালীর ফিশারি খনন করার অভিযোগ দায়ের হয়েছে। এ নিয়ে জনমনে ক্ষোভ, সংঘর্ষ ও মামলা-পাল্টা মামলাসহ নানা অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটছে। জানা যায়, ২০১৪-১৫ অর্থবছরে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতরের কাবিটা প্রকল্পের বিশেষ কর্মসূচির আওতায় ফুলপুর উপজেলার সিংহেশ্বর ইউনিয়নের হরিরামপুর লিয়াকত আলীর বাড়ি থেকে কুটুরাকান্দা কান্দাপাড়া জহির উদ্দিন চিশতীর মাজার পর্যন্ত প্রায় তিন কি.মি. রাস্তার মাটি ভরাট কাজে ১২ লাখ টাকা বরাদ্দ হয়। এ প্রকল্পে মাটি কাটার নামে রাস্তার দুই পাশসহ ব্যক্তি মালিকানাধীন সহস্রাধিক গাছপালা কর্তন করা হয়। যা মামলা পর্যন্ত গড়ালেও অধিকাংশ এলাকাবাসী উন্নয়নের স্বার্থে মেনে নেন। পরে প্রকল্পের টাকায় ঢাকাস্থ উত্তরা মডেল টাউন এলাকার গার্মেন্ট ব্যবসায়ী প্রভাবশালী আনোয়ার কবির চিশ্তির কুটুরাকান্দা কান্দাপাড়া গ্রামের বাড়িতে ফিশারি খনন করেই প্রকল্প কাজ স্থগিত করা হয়। এদিকে রাস্তার কাজ না করেই প্রকল্প এলাকা থেকে মাটি কাটার ভেকু মেশিন সরিয়ে নিতে চাইলে এলাকাবাসী বাধা দেন। পরে পুলিশের সহায়তায় মালিক ভেকু ফিরিয়ে নেন। এ ব্যাপারে এলাকাবাসী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর আনোয়ার কবির চিশতির বিরুদ্ধে রাস্তা নির্মাণের নামে অবৈধ জায়গা দখল, সহস্রাধিক গাছপালা কর্তন ও প্রকল্পের টাকায় নিজস্ব ফিশারি খননের অভিযোগ দায়ের করেন। এ নিয়ে আনোয়ার কবিরের লোকজনের সঙ্গে অভিযোগকারীদের সংঘর্ষ বাধে। এতে আনোয়ার কবিরের পক্ষের একজন আহত হলে প্রতিপক্ষের বাড়িঘর অবরুদ্ধ করার ঘটনা ঘটে। আনোয়ার কবির চিশতির পিএস দেলোয়ার হোসেন জানান, বরাদ্দের ৬ লাখ টাকা উত্তোলন করে প্রকল্প চেয়ারম্যান ইউপি সদস্য কামরুল ইসলামসহ অন্যরা আত্মসাত করেছে। তাই রাস্তার কাজ হয়নি। ফিশারিতে আমরা নিজস্ব টাকায় মাটি কেটেছি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন