ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

‘পিছু ছাড়ছে না’ বার্সা

| প্রকাশের সময় : ১ মে, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক : ‘শেষ পর্যন্ত আমরা তোমাদের পিছু ছাড়ছি না’ কাতালান ডার্বি জয়ের পর চীরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদকে এই বার্তাই দিলেন লুইস সুয়ারেজ। তার জোড়া গোলেই নগর প্রতিদ্বন্দ্বী এস্পানিওলকে ৩-০ গোলে হারায় বার্সেলোনা। আগের ম্যাচে ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে রিয়াল মাদ্রিদ ২-১ গোলে জেতায় জিনেদিন জিদানের দলের সাথে লুইস এনরিকের দলের পয়েন্ট ব্যবধানটা আগের মতই রইল। মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে থাকায় সমান ৮১ পয়েন্ট নিয়েও শীর্ষে বার্সা। মেসিরা অবশ্য ম্যাচ একটি বেশি খেলেছে।
টানা পাঁচ ম্যাচ গোলের দেখা পাননি সুয়ারেজ। এরপরই শুরু হয়ে যায় সেই চেনা কানাঘুসো গোলক্ষরায় ভুগছেন সুয়ারেজ। উরুগুয়ান স্ট্রাইকার এর জবাব দিলেন জোড়া গোলের মাধ্যমে। ‘গোলক্ষরা নিয়ে সাবেক লিভারপুল স্ট্রাইকারের দর্শনটা আবার অন্যরকম, ‘ফুটবলে এমনটা ঘটতেই পারে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল দলকে সাহায্য করা, কে গোল করল সেটা মুখ্য বিষয় নয়।’
স্কোরবোর্ড বড় জয়ের কথা বললেও বার্সার শুরুটা মোটেও ‘বার্সাসুলভ ছিল না। ঘরের মাঠে শুরুতে গোলের সহজ সুযোগ পায় এস্পানিওল। ক্ষণে ক্ষণে পাল্টা আক্রমণে তারা ত্রাস ছড়ায় বার্সা রক্ষণে। ৫০ মিনিট পর্যন্ত মেসি-নেইমারদের আটকেও রেখেছিল স্বাগতিকরা। এ সময় নিশ্চয় শঙ্কা পেয়ে বসেছিল বার্সা সমর্থকদের। পা হড়কালেই যে লিগ শিরোপার স্বপ্নটা আরো ধূসর হয়ে যাবে। প্রথমার্ধে তাদের একের পর এক ব্যর্থ আক্রমণ সেই আভাসই দিচ্ছিল। কিন্তু ্এস্পানিওল রক্ষণের ভুলে ৫০ ও ৮৭তম মিনিটে পাওয়া সুয়ারেজের জোড়া গোল ও লিওনেল মেসির সেই টেডমার্ক ড্রিবলিংয়ে ডি বক্স্রে ঢুকে ইভান রাকিটিচকে দিয়ে করানো ৭৬তম মিনিটের গোলে সেই শঙ্কা দূর হয়। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে মাঠে ফেরা নেইমারও ছিল সেই চেনা ভুমিকায়।
প্রথমার্ধে দলের একের পর এক হোঁচট চোখে বিধেছে এনরিকেরও। তবে ম্যাচ শেষে জয় পাওয়াতেই খুশি বার্সা কোচ। লিগ ও কাপ শিরোপা জিততে শেষ পর্যন্ত এই ধারা বজায় চান বলেও জানান তিনি, ‘আমাদের লক্ষ্য পরিষ্কার, লিগ ও কোপা দেল রে; এবং এই দু’টি শিরোপার জন্য আমরা সবকিছু করতে চাই।’
এর আগে নিজেদের মাঠে ভ্যালেন্সিয়াকে হারিয়ে তালিকার শীর্ষে উঠেছিল রিয়াল। মার্সেলোর ৮৬তম মিনিটের গোলে মহাগুরুত্বপূর্ণ দুই পয়েন্ট রক্ষা করে লস বø্যাঙ্কোসরা। প্রথমার্ধে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর গোলে এগিয়ে ছিল রিয়াল। ম্যাচ শেষ হওয়ার ৮ মিনিট আগে বার্নাব্যু সমর্থকদের স্তব্ধ করে স্কোর বোর্ড সমতা আনে সফরকারীরা। কিন্তু শেষ দিকে মার্সেলোর গোলে যেন জীবন ফিরে পায় স্বাগতিকরা। লা লিগায় সার্জিও রামোসের ৪০০তম (রিয়াল মাদ্রিদ ৩৬১, সেভিয়া ৩৯) ম্যাচটিও তাই হয়ে থাকল জয়ে মোড়ানো।
দেড় মাসেরও বেশি সময় পর এদিন লিগে গোলের দেখা পান রোনালদো। ২৬ ম্যাচে ২০ গোল নিয়ে লিগ গোলদাতার তালিকায় তিন নম্বরে পর্তুগিজ তারকা। ৩১ ম্যাচে ৩৩ গোল নিয়ে সর্বোচ্চ গোলদাতা লিওনেল মেসি, দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৬টি সুয়ারেজের।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন