ঢাকা শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি ২০২১, ০৮ মাঘ ১৪২৭, ০৮ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ব্রিটেনে নির্বাচন টিউলিপ জিতলেই জিতবে বাংলাদেশ

| প্রকাশের সময় : ৭ জুন, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ফয়সাল আমীন, যুক্তরাজ্য থেকে : মাত্র ১দিন। সেকেন্ড, মিনিট, ঘন্টার হিসাবে বেয়েই নির্বাচনী দামামায় বৃটেন। প্রত্যাশিত সেইদিন আগামীকাল বৃহস্পতিবার। ম্যানচেষ্টার ও লন্ডনে সন্ত্রাসী হামলা ঘটনায় নির্বাচনী আকাশ কিছুটা মেঘলা হলেও চূড়ান্ত ফলাফলের নির্ধারিত দিনই হচ্ছে নির্বাচন। সেই নির্বাচনকে ঘিরে বৃটেনে বসবাসরত বাংলাদেশীদের মধ্যে চলছে নানা হিসাব নিকাশ। তার কারণ বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত ১৪ জন প্রার্থী অবতীর্ণ হয়েছেন ভোট যুদ্ধে। এদের মধ্যে সর্বাধিক পরিচিত ও আলোচিত প্রার্থী হচ্ছেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতনি ও শেখ রেহানার কন্যা টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিকী । হ্যামস্টেড এন্ড কিলবার্ন আসনে লেবার পার্টির হয়ে লড়ছেন তিনি। ২০১৫ সালে ওই আসন থেকে বিজয়ী হয়েছিলে টিউলিপ। এমপি হিসাবে অভ্যন্তরীন ও বহির্বিশ্বমুখী বিভিন্ন ইস্যুতে জোরালো ভূমিকা পালন করে বৃটেনের রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ একজনে পরিণত হয়ে উঠেন তিনি। তার রাজনীতিক ঈর্ষণীয় দক্ষতা ও গ্রহণযোগ্যতায় তিনি হয়ে উঠতে পারেন বৃটেনের ভবিষ্যত রাজনীতির অন্যতম এক ইতিহাস, এরকম প্রত্যাশা সচেতন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূতদের। সে কারণে বৃটেনের বসবাসরত বাংলাদেশীরা টিউলিপের নির্বাচনী প্রচারণায় অন্তঃপ্রাণ ও একনিষ্ট। বিশেষ করে, স্থানীয় আ্ওয়ামীলীগ সহ অংগ সংগঠনের নেতাকর্মীরা টিউলিপের পাশে সদা তৎপর। সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত মূল্যবান সময় ব্যয় করে নির্বাচনী ক্যাম্পেইনে ব্যস্ত তারা। প্রচারণার প্রাণচাঞ্চল্যে নির্ভর ব্যতিক্রম এ দৃশ্যে গোটা বৃটেনের মধ্যে একমাত্র টিউলিপের নির্বাচনী এলাকায়। তাই টিউলিপ ঘিরে বাংলাদেশিদের ভাবনা, আত্মবিশ্বাস ও স্বপ্ন আকাশছোঁয়া। তারা মনে করছে টিউলিপের জয় মানে বাংলাদেশের জয়। লেবার পার্টির পাশাপাশি যুক্তরাজ্য আ্ওয়ামীলীগ ও অংগ সংগঠন নেতাকর্মীরা টিউলিপের পাশে সক্রিয়। বিশেষ করে যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক, বঙ্গবন্ধু পরিবারের পরীক্ষিত ও আস্থাভাজন আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর ভূমিকা অপরিসীম। তার পরামর্শ ও ডায়ানামিক নেতৃতে প্রচারণায় অংশ নিচ্ছে একাধিক টিম। তাদের মধ্য অন্যতম হচ্ছেন, যুক্তরাজ্য আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আহাদ চৌধুরী, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক সাবকে ভিপি খসরুজ্জামান খসরু, লন্ডন সংস্কৃতি ফোরামের সভাপতি রাবেয়া বেগম জ্যোৎসা, যুবলীগ সভাপতি ফখরুল ইসলমা মধু, যুবলীগ নেতা নাজমুল ইসলাম, তারেক আহমদ, লন্ডন মহানগর যুবলীগ সেক্রেটারী ফয়ছল আহমদ সুমন, প্রজন্ম লীগ সভাপতি গোলাম ফারুক, মতছির চৌধুরী জনি, আলী আকবর, বদরুল ইসলাম সেলিম, রাজা মিয়া, মিনার মিয়া, শিপলু আহমদ, হাফিজ আহমদ কানু, ছাত্রলীগ সেক্রেটারী সজীব ভূইয়া প্রমুখ। শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় টিউলিপের পাশে এখন ভাই রেদওয়ান সিদ্দিকী ববি। ববির উপস্থিতিতে ভিন্ন মাত্রায় উচ্ছ¡ল, প্রাণবন্ত প্রচারণা ও প্রচারক সদস্যরা। ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রী কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুলের স্বামী খন্দকার মাসরুর হোসাইনও নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়ে কর্মীদের উৎসাহ যুগিয়ে ছিলেন।
কিলবার্নের বাসিন্দা ও ভোটার গোলাম জিলানী সুহেল বলেন, টিউলিপ প্রতিভাধর এক রাজনীতিক, এলাকার মানুষের কাছে তাব জনপ্রিয়তা প্রচুর। কিলবার্ন এলাকায় এশিয়ানদের সংখ্যাধক্য রয়েছে, যদ্ওি হ্যামস্টেডে এশিয়ান প্রায় শূন্য। তারপর আমরা জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী। নির্বাচনী প্রচারণায় কর্মীদের আন্তরিক কর্মযজ্ঞ ভোটাদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে বলেও জানান তিনি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন