ঢাকা সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ২৯ চৈত্র ১৪২৭, ২৮ শাবান ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

গণঅভ্যুত্থানে গণদুশমন সরকারের পতন হবে

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১১ অক্টোবর, ২০১৭, ১২:০০ এএম

চট্টগ্রামে রিজভীর কর্মসূচিতে পুলিশের বাধা গ্রেফতার ১০
নগরীতে গতকাল (মঙ্গলবার) বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর দু’টি কর্মসূচিতে বাধা দিয়ে সেখান থেকে ২০ দলীয় জোটের শরিক লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান ইরানসহ ১৩ জনকে আটক করে পুলিশ। পরে ইরানসহ ৩ জনকে ছেড়ে দেয়া হলেও বাকি ১০ জনকে গ্রেফতার দেখানো হয়।
সকালে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব ও দুপুরে নাসিমন ভবনস্থ বিএনপি দলীয় কার্যালয় চত্বর থেকে এসব নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশি বাধা উপেক্ষা করে দু’টি ভেন্যুতেই কর্মসূচি পালন করেছে বিএনপি। এ ঘটনাকে ন্যাক্কারজনক উল্লেখ করে বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী অবিলম্বে গ্রেফতার নেতাকর্মীকের মুক্তি দাবি করেছেন। তিনি বলেন, অবৈধ ফ্যাসিস্ট সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য বিরোধী দলের উপর চরম জুলুম নির্যাতন শুরু করেছে। দমন পীড়ন চালিয়ে জনগণের আন্দোলন দমানো যাবে না গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে গণদুশমন এ সরকারের পতন হবে।
দলীয় কর্মসূচিতে অংশ নিতে চট্টগ্রাম আসেন রুহুল কবির রিজভী। সকালে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল খালেক মিলনায়তনে লেবার পার্টির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন তিনি। ওই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে বিএনপি, লেবার পার্টি ও বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে প্রেসক্লাব এলাকায় জড়ো হওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয় এবং তিনজনকে আটক করে। নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) শাহ মোহাম্মদ আব্দুর রউফ বলেন, লেবার পার্টির আলোচনা সভার অনুমতি থাকলেও সেখানে রুহুল কবির রিজভীর যোগ বিষয়টি বলা ছিল না। আর লেবার পার্টির অনুষ্ঠানে বিএনপি নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে আসায় তাদের সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তখন তিনজনকে আটক করা হয়েছে। ওই আলোচনা সভা শেষ করে রিজভীসহ চট্টগ্রাম নগর বিএনপির নেতারা অনুষ্ঠানস্থল থেকে বের হওয়ার সময় পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে জড়িয়ে পড়েন। এ সময় লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ইরানসহ আরও চারজনকে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ।
এদিকে নাশকতার এক মামলায় কুমিল্লায় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে নগর যুবদল দুপুরে আগে নাসিমন ভবনে নগর বিএনপি কার্যালয় থেকে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে। প্রেসক্লাবের অনুষ্ঠান শেষ করে সেখানে যান রুহুল কবির রিজভীবিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের কর্মীরা সে সময় মিছিল নিয়ে দলীয় কার্যালয়ে প্রবেশ করতে চাইলে পুলিশ সেখানেও তাদের বাধা দেয় এবং তিনজনকে আটক করে। কোতোয়ালি থানার ওসি জসীম উদ্দিন বলেন, নাসিমন ভবনে মিছিল সমাবেশ করার কোনো অনুমতি ছিল না। সেখানে জড়ো হয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করায় তাদের বাধা দেওয়া হয়েছে।
কোতোয়ালী থানার ওসি জানান, দুই জায়গা থেকে মোট ১৩ জনকে আটক করা হয়। তাদের মধ্যে ইরানসহ ৩ জনকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। বাকিদের বিরুদ্ধে মামলা থাকায় তাদের গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। পুলিশ মোট ১৩ জনকে আটকের কথা বললেও নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাৎ হোসেনের দাবি, বিএনপি, তাদের সহযোগী সংগঠন এবং লেবার পার্টির ২৫ নেতাকর্মীকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।
খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে যুবদলের সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন রুহুল কবির রিজভী। কেন্দ্রীয় যুবদলের কর্মসূচির অংশ হিসেবে চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের উদ্যোগে সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন নগর যুবদলের সভাপতি কাজী বেলাল উদ্দিন। প্রধান বক্তা ছিলেন নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নগর বিএনপিসাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর ও সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান। উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা এম এ আজিজ, মোঃ শাহ আলম, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, আনোয়ার হোসেন লিপু, কামরুল ইসলাম, মো: শাহজাহান কবির শাহীন প্রমুখ।
রুহুল কবির রিজভী বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নামে মামলা করে গণতন্ত্রের প্রতীক মাটি ও মানুষের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে গণআন্দোলন রুখা যাবে না। অবৈধ ভোটের মাধ্যমে বাংলার মসনদে বসে গণতন্ত্রকামী মানুষদেরকে গুম, খুন করে এবং হাজার হাজার নেতাকর্মীদেরকে মামলা এবং হামলা করে আন্দোলন স্তব্ধ করা যাবে না। যতই গুম, খুন, মামলা, হামলা করবে ততই আন্দোলন তীব্র থেকে তীব্র হবে। আপনার পায়ের নিচের মাটি সরে গেছে। নির্দলীয় নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে দেশ ও জাতিকে গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরিয়ে দিন। বেগম খালেদা জিয়ার নামে সকল মিথ্যা মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহার করা হোক। আপনার সরকার এবং আওয়ামী প্রশাসন যন্ত্র আপনাকে রক্ষা করতে পারবে না, শিয়ালের মত সবাই পালিয়ে যাবে আন্দোলনের স্রোতে। যতদিন মৌসুমী বায়ু প্রবাহিত হবে, কোকিলের সুর বাংলাদেশের আকাশে বাতাসে ধ্বনিত হবে ততদিন জিয়াউর রহমানের নাম মানুষের হৃদয়ে বেঁচে থাকবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Kamal Pasha ১১ অক্টোবর, ২০১৭, ৯:০৭ এএম says : 0
ইনশা আল্লাহ।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন