শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩ আশ্বিন ১৪২৮, ১০ সফর ১৪৪৩ হিজরী

আইসিটি এন্ড ক্যারিয়ার

অনন্য অভিজ্ঞতা দিতে মাইক্রোসফট নিয়ে এল উইন্ডোজ ১১

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ জুন, ২০২১, ৬:২০ পিএম

সম্প্রতি উইন্ডোজ ১১ উন্মোচন করেছে মাইক্রোসফট। উইন্ডোজের সর্বশেষ এই সংস্করণটি ব্যবহারকারীদেরকে তাদের প্রিয় বিষয় ও মানুষদের আরও কাছাকাছি নিয়ে আসবে। উইন্ডোজ ১১ এর ইনটিউটিভ ডিজাইন ফিচার মাল্টি টাস্কিং -কে করেছে আরও সহজ। সম্পূর্ণ নতুন মাইক্রোসফট স্টোরে ব্যবহারকারীরা এখন সহজেই খুঁজে পাবেন অ্যাপ, গেম ও মুভি। কাজ, শেখা, বিনোদন সকল ক্ষেত্রেই নতুন উইন্ডোজ ১১ ব্যবহারকারীদের অনন্য অভিজ্ঞতা দিবে।

এ সম্পর্কে মাইক্রোসফটের চিফ প্রোডাক্ট অফিসার পানোস পানায় বলেন, গত ১৮ মাসে আমাদের কম্পিউটার ব্যবহারের ধরণে আমুল পরিবর্তন এসেছে। আগে যেই কম্পিউটার আমরা কাজের প্রয়োজনে ও ব্যবহারিক কাজের অংশ হিসেবে ব্যবহার করতাম, এখন কম্পিউটারের ব্যবহার আমাদের ব্যক্তিগত জীবন ও অনুভূতির ক্ষেত্রেও সম্পৃক্ত হয়েছে। এ বিষয়টি আমাদেরকে কোটি কোটি মানুষের আস্থার প্ল্যাটফর্ম উইন্ডোজ’র পরবর্তী প্রজন্ম তৈরিতে অনুপ্রেরণা দিয়েছে। উইন্ডোজ ১১ এর মাধ্যমে আমরা এমন একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরি করতে চেয়েছি যেখানে প্রত্যেকে আরো ভালোভাবে নতুন নতুন জিনিস তৈরি করবে, শিখতে পারবে এবং নিজেদের কানেক্ট করতে পারবে।

এ বছরের শেষের দিকে নতুন কম্পিউটারে পাওয়া যাবে উইন্ডোজ ১১, একইভাবে উইন্ডোজ ১০ থাকা কম্পিউটারে বিনামূল্যে উইন্ডোজ ১১ আপগ্রেড হবে।

ব্যবহারকারীদের সহজে কাজ সম্পন্ন করতে এবং তাদের সৃষ্টিশীলতাকে উৎসাহ প্রদানে উইন্ডোজ ১১ -এ রয়েছে নতুন ও সহজ ইন্টারফেস এবং সাবলীল সব ফিচার। স্ক্রিনের কেন্দ্রে থাকা স্টার্ট বাটনটি ক্লিক করে ব্যবহারকারীরা সহজেই তাদের প্রয়োজনীয় জিনিসগুলি খুঁজে নিতে পারবেন। স্টার্ট বাটনটি ক্লাউড ও মাইক্রোসফট ৩৬৫ ব্যবহার করে, যা বিভিন্ন ডিভাইস ও প্ল্যাটফর্মে ব্যবহৃত সর্বশেষ ফাইল ব্যবহারকারীদের দেখাবে। এতে ব্যবহারকারী অ্যান্ড্রয়েড বা আইওএস অন্য কম্পিউটারে কাজ করা সর্বশেষ ডকুমেন্ট সহজেই খুঁজে নিতে পারেন।

উইন্ডোজ ১১ -এর স্ন্যাপ লেআউট, স্ন্যাপ গ্রুপ ও ডেস্কটপ এর মতো ফিচারগুলো আরও সুসংসহভাবে উইন্ডোজ ব্যবহারে সহায়তা করবে পাশাপাশি তাদের স্ক্রিন রিয়েল এস্টেট (কোনো অ্যাপ্লিকেশনের আউটপুট প্রদানে ডিসপ্লে’তে থাকা জায়গা) -এর সর্বোচ্চ ব্যবহার করতে পারবেন। কম্পিউটারের স্ক্রিনে একইসাথে কয়েকটি উইন্ডোজ ব্যবহারের সুবিধার পাশাপাশি ব্যবহারকারীরা একাধিক অ্যাপ পাশাপাশি রেখে একসাথে সাবলীলভাবে কাজ করতে পারবেন। ডেস্কটপের মাধ্যমে কাজ, গেমিং বা স্কুলসহ যেকোনো জিনিসের জন্য ব্যবহারকারীরা স্পেস কাস্টোমাইজ করতে পারবেন এবং সেগুলো সুবিধা অনুযায়ী পরিবর্তন করাতে পারবেন।

উইজেটস এর মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা তাদের পছন্দসই তথ্য জানতে পারবেন। এটি এআই প্রযুক্তির ব্যবহার করে ব্যবহারকারীর পছন্দ অনুযায়ী নির্বাচিত নিউজ ফিড দেখাবে। হালনাগাদ উইন্ডোজে মাইক্রোসফট এজ এর মাধ্যমে ব্রাউজিং অভিজ্ঞতা হবে অসাধারণ। ক্রিয়েটর ও পাবলিশারদের জন্য উইজেটস পার্সোনালাইজড কন্টেন্ট প্রদানে নতুন রিয়েল এস্টেট চালু করবে।

হাইব্রিড ওয়ার্ক (অনলাইন ও অফলাইনে কাজের সমন্বয়) ও শেখার ক্ষেত্রে সুরক্ষিত অপারেটিং সিস্টেম প্রদানে বিশেষভাবে ডিজাইন করা হয়েছে উইন্ডোজ ১১। এতে বিল্ট-ইন সুরক্ষা প্রযুক্তি রয়েছে এবং বিভিন্ন ডিভাইস ব্যবহারে ও তথ্য সুরক্ষিত রাখতে রয়েছে জিরো ট্রাস্ট-রেডি অপারেটিং সিস্টেম।

উইন্ডোজ ১০ এর মতোই উইন্ডোজ ১১ -এও অ্যাপ অ্যাসিউর এর মাধ্যমে অ্যাপ কম্প্যাটিবিলিটি’র প্রতি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ মাইক্রোসফট। অ্যাপ এসিউর এর মাধ্যমে অতিরিক্ত কোনো খরচ ছাড়াই ১৫০ বা তারও বেশি অ্যাপ বিষয়ক সমস্যার সমাধান করা হয়।

উইন্ডোজ ১১ সিস্টেম হার্ডওয়্যারের পূর্ণ সম্ভাবনা উন্মোচন করবে; ফলে, সা¤প্রতিক কিছু গেমিং প্রযুক্তি উইন্ডোজ সমর্থন করবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন