শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০, ১২ শাবান সানি ১৪৪৫ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ঘানার সামেদই কি বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা মানুষ?

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ জানুয়ারি, ২০২৩, ১২:০০ এএম

স্বাভাবিকের চেয়ে লম্বা হওয়ার ফলে তার শারীরিক কিছু জটিলতাও ধরা পড়েছে, সেগুলোর চেকআপের জন্য তাকে প্রতিমাসেই হাসপাতালে যেতে হয়। উত্তর ঘানার স্থানীয় একটি হাসপাতাল সাম্প্রতিক এক চেক আপে ২৯ বছর বয়সী সুলেমানা আবদুল সামেদকে তার উচ্চতা ৯ ফুট ৬ ইঞ্চি হয়ে গেছে বলে জানায়। এই হিসেবে সামেদ হয়ে যান বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা ব্যক্তি। কেননা গিনেস রেকর্ড বুকে এখন বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা মানুষ হিসেবে যার নাম আছে তিনি তুরস্কের সুলতান কোসেন, যার উচ্চতা ৮ ফুট ২.৮ ইঞ্চি। সেই রেকর্ড ভাঙতে পেরে উচ্ছ্বসিত হওয়ার কথা, কিন্তু ঝামেলা বেধে যায় অন্যখানে। স্থানীয় ওই হাসপাতাল আসলে সামেদের উচ্চতা সম্পর্কে নিশ্চিত নয়, কারণ তাদের কাছে সঠিক উচ্চতা মাপার সরঞ্জামই নেই।

বিবিসি জানিয়েছে, কয়েক বছর আগে সামেদের জাইগেন্টিজম ধরা পড়ে। যে কারণে তিনি এখনও ক্রমাগত লম্বা হচ্ছেন। স্বাভাবিকের চেয়ে লম্বা হওয়ার ফলে তার শারীরিক কিছু জটিলতাও ধরা পড়েছে, সেগুলোর চেকআপের জন্য তাকে প্রতিমাসেই হাসপাতালে যেতে হয়। তেমনই এক চেকআপের সময় তাকে উচ্চতা মাপার সরঞ্জামের সামনে দাঁড়াতে বলা হয়। ‘তুমি তো স্কেলের চেয়েও লম্বা হয়ে গেছ’, বলেন হতভম্ব হয়ে পড়া এক নার্স। লোকজনের এই হতবিহ্বল হয়ে পড়া উপভোগ করেন সামেদ, যিনি অনেকের কাছেই তার ডাক নাম ‘আউচে’ নামে পরিচিত। ডিউটি নার্স পরে সামেদের উচ্চতা মাপতে তার আরেক সহকর্মীর দ্বারস্থ হয়, সেই সহকর্মী আরেকজনকে ডাকে। এভাবে বেশ কয়েকজন জড়ো হয়ে যায়, যারা ভাবতে শুরু করে সরঞ্জাম ছাড়িয়ে যাওয়া ব্যক্তির উচ্চতা কী করে বের করা যায়।

শেষ পর্যন্ত একজন পরামর্শ দেন, একটি খুঁটি খুঁজে বের করে সেটিকে তাদের সরঞ্জাম মাপার যন্ত্রের ‘এক্সটেনশন’ হিসেবে কাজে লাগিয়ে সামেদের উচ্চতা বের করার। শেষ পর্যন্ত এভাবেই উচ্চতা মাপেন তারা। যেখান থেকে বের হয়, সামেদ ৯ ফুট ৬ ইঞ্চি হয়ে গেছেন। সামেদের খবর কানে যায় বিবিসির এক সাংবাদিকের। কয়েক মাস আগেই তিনি ২৯ বছর বয়সী এ তরুণকে দেখে এসেছেন, কিন্তু সেসময় তার কাছে উচ্চতা মাপার কোনো যন্ত্র ছিল না।

এরপর গত সপ্তাহে তিনি ১৬ ফুট দীর্ঘ একটি টেপ নিয়ে আবার গাম্বাগা গ্রামে যান, যেখানে সামেদের বাস। পরিকল্পনা ছিল, কোনো একটি দেয়ালে পিঠ ঠেকিয়ে তাকে দাঁড় করিয়ে তার মাথার সর্বোচ্চ অবস্থান বরাবর ওই দেয়ালে চিহ্ন কেটে, পরে সঠিক উচ্চতা মেপে বের করা। কিন্তু দেখা গেল, সামেদের উচ্চতা তার এলাকার সব বাড়ির দেয়ালের চেয়ে বেশি। অনেক খুঁজে একটি ভবন বের হল, যার দেয়াল তার চেয়ে বেশি উঁচু। সামেদ তার জুতা খুলে সানন্দেই মাপ দিতে রাজি হলেন, তিনি নিজেও স্থানীয় হাসপাতালের দেওয়া মাপে সন্তুষ্ট ছিলেন না। সূত্র : বিবিসি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন