রোববার, ১৯ মে ২০২৪, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১০ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিজরী

ইসলামী প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন : বোনের সম্পদ দেওয়া প্রসঙ্গে।

আব্দুল খালেক
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ৮:০৭ পিএম

প্রশ্নের বিবরণ : আব্বা বেঁচে থাকা অবস্থায়, অভাবের কারণে আমার আব্বা তার নাতনি (আমার ভাগ্নি) কে বাড়িতে নিয়ে এসে কয়েক বছর লালন পালন করার পর তাকে বিয়ে দিয়ে দেন। এ সময় আমার আব্বা ১৫ শতক জমি বিক্রি করে প্রাপ্য টাকা পাত্রপক্ষকে যৌতুক হিসাবে দেন। এখন আমার আব্বা - মা বেঁচে নেই। তাই আমার বোন জমির অংশ চায়। তাই আমি বোনকে বলেছি যে, তুমি যে জমির অংশ পাবা তা থেকে তোমার মেয়ে কে বিয়ে দেবার সময় আব্বা যে ১৫ শতক জমি বিক্রি করেছিল সেই ১৫ শতক জমি তোমার মোট পাওনা জমি থেকে কম নিতে হবে বা বাদ দিতে হবে। এখন আমি কি উক্ত ১৫ শতক জমি হিসেবে ধরে আমার বোনকে তার পাওনা মোট জমির অংশ থেকে বোনকে কম দিতে পারবো বা বাদ দিতে পারবো? ইসলামী শরিয়া মোতাবেক তা কি হারাম হবে? উল্লেখ্য যে, আমার আব্বা এ বিষয়ে কিছুই বলে যায়নি।


উত্তর : আইনত আপনি এ জমি বাদ দিতে পারেন না। কারণ আপনার আব্বা তার জীবদ্দশায় নিজ মালিকানাধীন সম্পদ তার নাতনি পেছনে ব্যয় করেছেন। তিনি বলেন নি যে, এ সম্পদ ওয়ারিশি সূত্রে দিলাম। এখন যদি আপনার বোন আপসে এই খরচটিকে নিজের প্রাপ্য সম্পদ থেকে কেটে দেন, তাহলে তিনি তা পারেন। এবং এটি বিবেচনা করা তার উচিত। আপনারা আপসে মিমাংসা করে নিলে শরীয়তে কোনো বাধা নেই। আর যদি তারা না মানে, তাহলে ওই সম্পদ বাদ দিয়েই নতুন হিসাব হবে।


উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী
সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতওয়া বিশ্বকোষ।
প্রশ্ন পাঠাতে নিচের ইমেইল ব্যবহার করুন।
inqilabqna@gmail.com

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
মাহবুবা বেগম ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ১২:৪৪ পিএম says : 0
অনেকে বলে হজ্জে যাবার সময় আত্নীয়-স্বজনে টাকা দিতে হয় নাকি ? ইসলাম কি বলে । দ্রুত উত্তর
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন