ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ট্রাম্প-কিম বৈঠক নিষ্ফলা, ৫ কর্তাকে গুলি করে মারল পিয়ংইয়ং

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩১ মে, ২০১৯, ৫:৩২ পিএম

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে দ্বিতীয় শীর্ষ বৈঠক ফলপ্রসূ না হওয়ায় খুব চটে গিয়েছেন উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং-উন। তার সঙ্গে ‘বিশ্বাসঘাতকতা’র জন্য চরম শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছেন তার একদা ঘনিষ্ঠ, আস্থাভাজনদের বিরুদ্ধে। হ্যানয়ে ট্রাম্প-কিম বৈঠক আয়োজনের জন্য উত্তর কোরিয়ার বিশেষ দূত কিম হায়োক চোলকে ফায়ারিং স্কোয়াডের সামনে দাঁড় করিয়ে খুন করা হয়েছে। শুক্রবার এই খবর দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার একটি দৈনিক ‘চোসুন ইলবো’।
দৈনিকটি এও জানিয়েছে, গত ফেব্রুয়ারিতে হ্যানয়ে ট্রাম্পের সঙ্গে তার শীর্ষ বৈঠকে যিনি দোভাষীর কাজ করেছিলেন, সেই শিন হ্যায়ে ইয়ং তার ‘বক্তব্য সঠিক ভাবে তুলে ধরতে পারেননি’ বলে তাকে পাঠানো হয়েছে পিয়ংইয়ঙের কাছে একটি বন্দি শিবিরে। ওই বৈঠকে মার্কিন পররাষ্ট্রসচিব মাইক পম্পেওর সমতুল্য যিনি ছিলেন উত্তর কোরিয়ার দায়িত্বে, পিয়ংইয়ঙের কমিউনিস্ট পার্টির সেই প্রবীণ নেতা কিম ইয়ং চোলকে পাঠানো হয়েছে শ্রম শিবিরে। ফেব্রুয়ারিতে ওই বৈঠকের শেষে ‘তা হলে সমস্যা কিছুই মিটল না’ বলে টেবিল ছেড়ে বেরিয়ে যেতে দেখা যায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে।
দৈনিকটি জানিয়েছে, গত মার্চেই মিরিম বিমানবন্দরে ফায়ারিং স্কোয়াডের সামনে দাঁড় করিয়ে খুন করা হয়েছে কিম হায়োক চোল ও তার সঙ্গী পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের চার জন কর্তাকে। হ্যানয়ে, শীর্ষ বৈঠকের আয়োজকদের অন্যতম চোল পিয়ংইয়ং থেকে বিশেষ ট্রেনে হ্যানয়ে যাওয়ার সময় প্রেসিডেন্ট কিম জং-উনের সহযাত্রী হয়েছিলেন। তার বিরুদ্ধে পিয়ংইয়ঙের অভিযোগ, ‘প্রেসিডেন্ট কিম জং-উনের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করে বৈঠকের আগেই তিনি আমেরিকার কাছে মাথা নুইয়ে ফেলেছিলেন।’ ওই বৈঠক আয়োজনের ক্ষেত্রে যে ভূমিকা নিয়েছিলেন আমেরিকার তরফে স্টিফেন বাইগান, উত্তর কোরিয়ার তরফে সেই একই দায়িত্ব ছিল চোলের। তবে তার সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের আর যে ৪ জন অফিসারকে গত মার্চে মিরিম বিমানবন্দরে গুলি করে মারা হয়েছে, তাদের নাম জানায়নি দক্ষিণ কোরিয়ার দৈনিকটি। উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে সংযুক্তির প্রস্তাব খতিয়ে দেখছে দক্ষিণ কোরিয়ার যে মন্ত্রণালয়, তারা অবশ্য ওই দৈনিকের খবর নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে রাজি হয়নি। যদিও দক্ষিণ কোরিয়ার সংসদীয় গোয়েন্দা কমিটি গত এপ্রিলে জানিয়েছিল, চোলকে সেন্সর করেছে পিয়ংইয়ং।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Mahbub Alam ৩১ মে, ২০১৯, ১১:৩৪ পিএম says : 0
Who will save the north Korean people from the made president?
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন