ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

ইসলামী প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন : অনেকে বাংলায় লেখা ( আনুবাদ নয়) কুরআন শরীফ পড়ে, ইহাতে আদৌ সওয়াব হয় কি না। নাকি ভুল উচ্চারনের জন্য গোনাহ হবে। যদি জায়েজ হয় তবে প্রতি হরফে দশ নেকি হিসাব কেমনে হবে। আনেক সময় লম্বা টান না দিলে অর্থ বিপরীত হয়ে যায়, তার করনীয় কি?

নুরুল মোমেন খান
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ৬ অক্টোবর, ২০১৯, ৭:৩৬ পিএম

উত্তর : আরবী ছাড়া অন্য কোনো ভাষায় লেখা কোরআনের আয়াত পড়লে কোনো সওয়াব হয় না। বরং এভাবে উচ্চারণ লেখা পড়া শরীয়তে জায়েজ নেই। কেননা, আরবী শব্দ যেভাবে উচ্চারণ করা উচিত তা অনারব ভাষায় করা সম্ভব নয়। যার ফলে কোরআন ও কোরআনের অর্থ পরিবর্তিত হয়ে যায়। যে কাজটি শরীয়তে হারাম। এমন না করে কোরআনের ছোট্ট ছোট্ট সূরা ও সহজ কিছু আয়াত শিখে নিয়ে কেবল এসবই সাধ্যমতো পড়লে অনেক নেকী পাওয়া যাবে। প্রতি হরফে ১০ নেকী তো কমপক্ষে পাওয়া যাবেই। আবেগ ও মহব্বতের কারণে আল্লাহ অগণিত সওয়াব দিবেন। আরবীতে কোরআন শুদ্ধ উচ্চারণে পড়ার চেষ্টা করা অনেক সওয়াবের কাজ। কিন্তু অনারবী ভাষায় কোরআন ভুল উচ্চারণে পড়া গুনাহের কাজ। 

সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতাওয়া বিশ্বকোষ।
উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন