মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০২ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রে পাঁচ মাসে গুলিতে প্রাণ হারিয়েছে ছয় সহস্রাধিক মানুষ

প্রকাশের সময় : ২৫ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : চলতি বছরের গত পাঁচ মাসে কমপক্ষে ছয় হাজার ১৫৩ জন বন্দুকের গুলিতে প্রাণ হারিয়েছে। আহত হয়েছে আরো সাড়ে ১২ হাজার মানুষ। স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান গান ভায়োলেন্স আর্কাইভ এক পরিসংখ্যানে এ তথ্য জানিয়েছে। আগ্নেয়াস্ত্রে হতাহতের তথ্যভিত্তিক পরিসংখ্যান তৈরির লক্ষ্যে ২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল এই সংস্থাটি। অলাভজনক এ সংস্থাটির গত বুধবার প্রকাশিত হিসাব মতে, যুক্তরাষ্ট্রে চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে জুনের ২০ তারিখ পর্যন্ত ২৩ হাজার ৯৯২টি ঘটনায় আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহৃত হয়েছে। হতাহতদের মধ্যে ১১ বছরের কমবয়সী শিশুর সংখ্যা ২৬০। ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী কিশোর-কিশোরীর সংখ্যা এক হাজার ৩১৪। এসব ঘটনার মধ্যে নির্বিচার হত্যাকা-ের সংখ্যা হচ্ছে ১৪১টি। নিহতদের মধ্যে পুলিশ ও সামরিক অফিসার রয়েছেন ১৪৭ জন। পারিবারিক ইস্যুতে বন্দুক ব্যবহারের ফলে নিহত হয়েছে ১ হাজার পাঁচজন। আর দুর্ঘটনাবশত গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঘটনা ছিল এক হাজার ৬৩টি। ২০১৫ সালে ওই একই সময় আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহৃত হওয়ার ঘটনা ছিল ৫৩ হাজার ২৮১টি। এসব ঘটনায় নিহত হয়েছিল ১৩ হাজার ৪৩০ জন। আহত হয়েছিল ২৭ হাজার ৮ জন। আর নির্বিচার গুলিবর্ষণের ঘটনা ছিল ৩৩১টি। এদিকে ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অব সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড মেডিসিনের একদল বিশেষজ্ঞের মতে, চিকিৎসা-ব্যবস্থায় আরো উন্নতি ঘটালে বন্দুকের গুলিতে আহত আরো ৩০ হাজার নাগরিকের প্রাণ বাঁচানো সম্ভব। বিশেষজ্ঞের হিসাব মতে, ২০০১ সাল থেকে চলতি বছরের ১৫ জুন পর্যন্ত বন্দুকের গুলিতে আহত ব্যক্তির সংখ্যা ২০ লাখ।
প্রসঙ্গত, উন্নত বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রেই আগ্নেয়াস্ত্রের মাধ্যমে সবচেয়ে বেশি প্রাণহানির ঘটনা ঘটে। এই সংখ্যা অন্যান্য উন্নত দেশগুলোর চেয়ে প্রায় ১০ গুণ বেশি। বিভিন্ন সংস্থার হিসাব অনুযায়ী, দেশটির সাধারণ নাগরিকের কাছে ২ থেকে ৩ কোটি আগ্নেয়াস্ত্র রয়েছে, যার মধ্যে মারাত্মক ধরনের আগ্নেয়াস্ত্রের সংখ্যাই বেশি। বেশ কিছুদিন ধরেই ওবামা প্রশাসন অস্ত্র আইনে কড়াকড়ি আরোপ করতে চাইছে। সবশেষ, গত বছর সান বার্নারডিনোতে হামলার পর প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা চোখের পানি ফেলে লাগামহীন অস্ত্র বেচাকেনায় নিয়ন্ত্রণ আনতে নির্বাহী ক্ষমতা প্রয়োগের ঘোষণা দিয়েছিলেন। আর শুরু থেকেই আত্মরক্ষা এবং নিরাপত্তার দোহাই দিয়ে এর বিরোধিতা করে আসছে রিপাবলিকানরা। উল্লেখ্য, বহুল আলোচিত আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণ বিল প্রত্যাখ্যাত হয় মার্কিন সিনেটে।
২০ জুন সিনেটে এ বিষয়ে ভোটাভুটি হয়েছিল। সেখানে অস্ত্রের ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে ডেমোক্রেটিক ও রিপাবলিকান পার্টির সিনেটররা দুটি করে মোট চারটি প্রস্তাব তুলেছিলেন। তবে রিপাবলিকান পার্টি নিয়ন্ত্রিত সিনেটে উত্থাপিত চারটি প্রস্তাবের সবকটিই পর্যাপ্ত ভোটের অভাবে বাতিল হয়ে যায়। বিবিসি, গার্ডিয়ান, রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন