ঢাকা, শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৭ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ভার্জিনিয়া-বোস্টনের পর এবার বাল্টিমোরেও ভাঙা হলো কলম্বাসের মূর্তি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ জুলাই, ২০২০, ৩:১৮ পিএম

আমেরিকার আবিষ্কারক হিসেবে খ্যাত ক্রিস্টোফার কলম্বাসের আরো একটি মূর্তি ভেঙে দেওয়া হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া এবং বোস্টনে গত জুনের শুরুতে ক্রিস্টোফার কলম্বাসের মূর্তির মাথা ভাঙ্গার পর দেশটির ম্যারিল্যান্ড রাজ্যের বাল্টিমোরের কলম্বাসের মূর্তিটি ভেঙে ফেলেছে বিক্ষোভকারীরা। গত শনিবার বিক্ষোভকারীরা কলম্বাসের স্ট্যাচু নামিয়ে এনে তা ইনার হারবারে নিক্ষেপ করেন।
মার্কিনিদের দাবি, কলম্বাস হলেন গণহত্যার প্রতীক। তিনি আমেরিকার আদি বাসিন্দাদের নির্বিচারে হত্যা করেছিলেন। তাই তার মূর্তিকে নামিয়ে ফেলা হয়েছে।
স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম জানায়, প্রতিবাদকারীরা ‘লিটল ইতালি’ নামক জায়গায় রাখা এই দীর্ঘদিনের স্ট্যাচুটি নামিয়ে আনেন। বিক্ষোভকারীরা ইতালির অনুসন্ধানকারী, ক্রিস্টোফার কলম্বাসের বিরুদ্ধে গণহত্যা এবং আদিবাসী জনগোষ্ঠীর ওপর শোষণের অভিযোগ তোলেন।
এর আগে জর্জ ফ্লয়েডের হত্যার পর গেলো মাসে যুক্তরাষ্ট্রজুড়েই বিক্ষোভ চলছে। সেই ক্ষোভ আছড়ে পড়েছে কলম্বাসের মূর্তির ওপর। ভার্জিনিয়া ও বোস্টনে। ভার্জিনিয়ায় মূর্তির মাথা ভেঙে বিক্ষোভকারীরা তাতে আগুন ধরিয়ে দেন। তার পর মূর্তিটি একটি লেকে ফেলে দেওয়া হয়।
উল্লেখ্য, ১৪৯২ সালের ১২ অক্টোবর আমেরিকা আবিষ্কার করেন ইতালীয় নাগরিক ক্রিস্টোফার কলম্বাস। স্পেনের তৎকালীন রানির অর্থানুকূল্যে এ ভূখণ্ডে অবতরণ করেন তিনি। সমালোচকদের অনেকেই তাকে আমেরিকায় ইউরোপীয় উপনিবেশবাদের হোতা এবং স্থানীয় আদিবাসীদের ওপর গণহত্যার অগ্রদূত হিসেবে আখ্যায়িত করে থাকেন।
জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ডের জেরে যুক্তরাষ্ট্রে শুরু হওয়া বর্ণবাদ বিরোধী বিক্ষোভের সময়ে কলম্বাস বিরোধী মনোভাব জোরালো হয়েছে। ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যে তার একটি ভাস্কর্যে আগুন দেয় বিক্ষোভকারীরা। স্থানীয় সময় ৯ জুন মঙ্গলবার রাতে ভার্জিনিয়ার রিচমন্ড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের পর ভাস্কর্যটি লেকের পানিতে ফেলে দেয় তারা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন