ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে ভারতকে স্থায়ী সদস্যে পাকিস্তানের আপত্তি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৯:৪৯ এএম

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য হওয়ার ভারতের দাবিতে আপত্তি জানিয়েছে পাকিস্তান। গত রবিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) জাতিসংঘে নিযুক্ত পাকিস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি মনির আকরাম বলেছেন, তার দেশ এই বিশ্ব সংস্থায় সংস্কার আনার বিষয়টিকে সমর্থন করলেও স্থায়ী সদস্যপদ বাড়ানোর বিরোধী। এর পরিবর্তে পাকিস্তান নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্যপদ ১০ থেকে বাড়িয়ে ২০টি করার আহ্বান জানাচ্ছে।

তিনি বলেন, জাতিসংঘের ১৯৩ সদস্যদেশের মধ্যে নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী পদগুলো যাতে সমভাবে বণ্টন করার যায় সেজন্য এসব পদের সংখ্যা বাড়ানো প্রয়োজন।
মনির আকরাম রোববার এক সাক্ষাৎকারে বলেন, নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্যদেশের সংখ্যা বাড়ালে এশিয়া, আফ্রিকা ও ল্যাতিন আমেরিকার ছোট-বড় সব দেশ জাতিসংঘের সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ায় ভূমিকা রাখতে পারবে।
জাতিসংঘে নিযুক্ত পাকিস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি সবশেষে কোনো রাখঢাক না রেখেই বলেন, ইসলামাবাদ প্রকৃতপক্ষে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে ভারতের স্থায়ী সদস্যপদ লাভের বিরোধী।
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি গত সপ্তাহে এক বক্তব্যে বলেছিলেন, জাতিসংঘের স্থায়ী সদস্যপদ পাওয়ার চেষ্টাকে তার দেশ সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়েছে। তবে ভারতের শত্রুভাবাপন্ন দেশ পাকিস্তানের পক্ষে এ বিষয়টি মেনে নেয়া সম্ভব নয় বলে পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন। সূত্র: পার্সটুডে

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (8)
Matin Abdul Matin ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:৫৩ পিএম says : 0
ভারত পৃথিবীর ১ নম্বর সন্ত্রাসী দেশ ।
Total Reply(0)
Mohiuddin Faruk ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:৫৪ পিএম says : 0
Bangladesh also has objection on this issue. If India becomes a permanent member in UN Security Council it will abuse its power against the Muslim countries as well as against all its neighboring countries.
Total Reply(0)
Abdullah Al Mamun ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:৫৪ পিএম says : 0
কখনো দেওয়া যেনো না হয়,তার জন্য প্রতিটি দেশে উচিত প্রতিবাদ করা,ভারত এখন যে ভাবে উগ্রবাদী হয়ে উঠেছে,তা পৃথিবীর জন্য হুমকি একটা দেশে
Total Reply(0)
Badar Uddin ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:৫৫ পিএম says : 0
ভারত যদি নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য হয় সকল মুসলিম দেশ জাতি সংঘ পরিত্যাগ করা উচিত । কারণ ভারত তার দেশে মুসলিমদের নিরাপত্তা নষ্ট করার স্বীকৃতি হিসেবে এই পরিষদের সদস্য হওয়ার সুযোগ পেয়েছে বলে বিবেচিত হবে। যদি ভারতকে করতে হয় একই সঙ্গে মালয়েশিয়া, তুরস্ক , পাকিস্তান ও মিশর পৃথিবীর চার প্রান্ত থেকে এই চারটি মুসলিম দেশকেও সদস্য করা উচিত। সব মিলিয়ে সদস্য সংখ্যা হবে দশ।
Total Reply(0)
Kayum ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:৫৬ পিএম says : 0
মুসলমানদের নেতৃত্বের জন্য সুলতান এরদোগানের তুরস্ককে জাতীসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে স্হায়ী সদস্য পদ দেয়া হোক।
Total Reply(0)
Shahin Alom ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:৫৬ পিএম says : 0
ভারতের মত একটি জঙ্গি ও সাম্প্রদায়িক দেশকে জাতিসঙ্ঘের স্হায়ি সদস্য করা কোন মতেই কাম্য নয়।
Total Reply(0)
Chamily ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ২:৫২ পিএম says : 0
যে দেশ বন্ধু হয়ে ,বন্ধুর পাছায় বাঁশ দেই,তাদের সামরথন দেয়া যাই না।
Total Reply(0)
Hasan ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:২২ পিএম says : 0
জাতিসংঘের স্থায়ী সদস্য পদে বাড়ানো উচিত। বিশেষ করে মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে তুরস্ক, মিশর, ইরান, সৌদি আরব, মালয়েশিয়া কে স্থায়ী সদস্য করা যেতে পারে। কিন্তু ভারতের মত উগ্রবাদী দেশ জাতিসংঘের স্থায়ী সদস্য হলে প্রতিবেশী দেশ গুলো হুমকিতে পড়বে।
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন