ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

তুরস্ককে এমনি এমনি ছেড়ে দেব না : রাশিয়া

মুক্ত আকাশ চুক্তি ভঙের অভিযোগ

প্রকাশের সময় : ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : তুরস্কের বিরুদ্ধে ‘মুক্ত আকাশ চুক্তি’ ভঙের অভিযোগ তুলেছে রাশিয়া। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, সিরিয়া সীমান্তসংলগ্ন তুর্কী ভূখ-ের ওপর দিয়ে তাদের পর্যবেক্ষণ ফ্লাইট পরিচালনা করতে না দিয়ে আঙ্কারা একটি বিপজ্জনক উদাহরণ সৃষ্টি করেছে।
দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের জাতীয় পারমাণবিক ঝুঁকি হ্রাস কেন্দ্রের প্রধান সের্গেই রিযকভ বুধবার হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, যথাযথ ব্যবস্থা না নিয়ে এমনি এমনি তুরস্ককে ছেড়ে দেব না আমরা।
রুশ সংবাদ সংস্থা তাস-এর সঙ্গে কথা বলার সময় সের্গেই রিযকভ জানান, ফেব্রুয়ারির ১ থেকে ৫ তারিখ পর্যন্ত তুর্কি বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে রাশিয়ার পর্যবেক্ষকদের তুরস্কের ওপর দিয়ে মুক্ত আকাশ চুক্তির আওতায় একটি পর্যবেক্ষণ ফ্লাইট পরিচালনার কথা ছিল। আঙ্কারা প্রথমে এ ব্যাপারে কোনো শর্ত বা সীমাবদ্ধতা দেয়নি। কিন্তু যখন রুশ প্রতিনিধিরা তুরস্কে পৌঁছলেন, তখন তাদের সেনা কর্মকর্তারা এ ধরনের কার্যক্রম পরিচালনা করতে দিতে অস্বীকৃতি জানায়।
তুর্কিরা তাদের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে আসা নির্দেশের অজুহাত দেখিয়ে ওই পর্যবেক্ষণ ফ্লাইট পরিচালনা আটকে দিয়েছে, অভিযোগ করেন সের্গেই।
তিনি আরও জানান, সিরিয়ার সঙ্গে তুর্কি সীমান্তসহ ন্যাটোর এয়ারফিল্ডের ওপর দিয়ে ফ্লাইটটি পরিচালনার কথা ছিল। এক্ষেত্রে মুক্ত আকাশ চুক্তির শর্তানুযায়ী তুর্কি বিশেষজ্ঞ দল মূল নিয়ন্ত্রকের ভূমিকায় থাকতেন।
সামরিক শক্তি ও কার্যক্রম স্বচ্ছ করার লক্ষ্যে ২০০২ সালের জানুয়ারি মাসে মুক্ত আকাশ চুক্তি স্বাক্ষর করে ৩৪টি দেশ। স্বাক্ষর করা দেশগুলোর মধ্যে রাশিয়া ও তুরস্কও রয়েছে।
তুরস্ক তার ভূখ-ে রুশ পর্যবেক্ষণ ফ্লাইট পরিচালনা করতে দিতে এই প্রথম অস্বীকৃতি জানালো। চুক্তির আওতায় রাশিয়া ২০০৬ সাল থেকে বছরে এ ধরনের দুইটি ফ্লাইট পরিচালনা করে থাকে এবং তুরস্ক বছরে প্রায় চারবার রুশ আকাশসীমায় এ ধরনের ফ্লাইট পরিচালনা করে। সূত্র : আরটি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন