মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯, ১০ মুহাররম ১৪৪৪ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

আল্লামা আব্দুল খালেক সাম্ভলীর জানাজা ও দাফন সম্পন্ন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩১ জুলাই, ২০২১, ১২:০৪ পিএম | আপডেট : ১২:০৬ পিএম, ৩১ জুলাই, ২০২১

ভারতের বিশ্বখ্যাত বিদ্যাপীঠ উম্মুল মাদারিস দারুল উলুম দেওবন্দের নায়েবে মুহতামিম ও মুহাদ্দিস বিশ্ববরেণ্য আলেম আল্লামা আব্দুল খালেক সাম্ভলী রহ. এর জানাজা ও দাফন সম্পন্ন হয়েছে। ভারতের স্থানীয় সময় ১১ টা ৪৫ মিনিটে দেওবন্দের মুলসূরীতে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর দেওবন্দের মাকবারায়ে কাসেমীতে দাফন করা হয় বিখ্যাত এ ইলমের ধারক আলেমকে।
এর আগে শুক্রবার (৩০ জুলাই) বিকাল ৪টায় ভারতের মুজাফফরনগর এলাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনি ইন্তেকাল করেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়িন্না ইলাইহী রাজিউন। মুত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৭৫ বছর। তিনি দীর্ঘদিন যাবত ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন।
আল্লামা আব্দুল খালেক সাম্ভলীর রহ. এর ইন্তেকালে শোকে ভাসছে মুসলিম বিশ্ব। তার ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন দেওবন্দের মুহতামিম ও শায়খুল হাদিস আল্লামা মুফতি আবুল কাসেম নোমানী। দেওবন্দের সদরুল মুদাররিসীন ও জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের (একাংশ) সভাপতি আল্লামা আরশাদ মাদানী। এছাড়াও জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের (একাংশ) সভাপতি সাইয়েদ মাহমুদ মাদানী তার ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।
আল্লামা আব্দুল খালেক সাম্ভলীর রহ. এর আগে ক্যান্সারের চিকিৎসার জন্য মিরাঠের স্থানীয় এক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর গত ২১ জুন দিল্লির রাজীব গান্ধি ইন্টারন্যাশনাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। হাসপাতালে ভর্তির দুদিন পর ২৩ জুন সুস্থ হয়ে মাদরাসায় ফিরেছিলেন তিনি। এরপর পুনরায় গত ২৬ জুলাই থেকে অসুস্থতাবোধ করলে মুজাফফর নগর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিলো দেওবন্দের নায়েবে মুহতামিম ও মুহাদ্দিস আল্লামা আব্দুল খালেক সাম্ভলী রহ. কে।
আল্লামা আব্দুল খালেক সাম্ভলী রহ. ১৯৫০ সালের ৫ জানুয়ারি মুরাদাবাদ জেলার সানভাল শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম মাওলানা নাসির আহমেদ। যিনি একজন দয়ালু, নম্র-ভদ্র, সরল মনের অধিকারী ও  প্রতিভাবান ছিলেন। তিনি একজন কবিও ছিলেন।
তার উস্তাদদের মধ্যে হজরত মাওলানা আফতাব আলী, মাওলানা ফরিদ-উদ-দীন, মাওলানা ফখরুদ্দিন মুরাদাবাদী, দেওবন্দের সাবেক মুহতামিম মাওলানা ক্বারী মুহাম্মদ তৈয়ব, মাওলানা মাহমুদ আল হাসান, মাওলানা শরীফ আল হাসান অন্যতম।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন