শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৮ মাঘ ১৪২৮, ১৮ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

আইসিটি এন্ড ক্যারিয়ার

অ্যাপের নাম ফেসবুক, কোম্পানি মেটা

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ অক্টোবর, ২০২১, ৯:৩০ এএম | আপডেট : ১১:৫৮ এএম, ২৯ অক্টোবর, ২০২১

অবশেষে মার্ক জাকারবার্গের মূল প্রতিষ্ঠানের নাম পরিবর্তন করা হলেও ফেসবুক অ্যাপের নাম বদলাচ্ছে না। জানা গেছে মার্ক জাকারবার্গের কোম্পানির নতুন নাম হচ্ছে ‘মেটা’। নতুন যে নামে সংস্থাটি (মেটা) আত্মপ্রকাশ করছে তার অধীনে একটি অ্যাপের নাম হয়ে থাকবে ফেসবুক। আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যম এ তথ্য জানায়।
বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) নতুন নাম ঘোষণা করেন ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক জাকারবার্গ। এখন থেকে ‘মেটা’ নামে ব্যবসায়িক সব কার্যক্রম পরিচালনা করবে কোম্পানিটি। অপরিবর্তিত থাকবে ফেসবুকের অধীনে থাকা সব অ্যাপসগুলোর নাম। খবর, ফোর্বস।
এমন একটি সময় নতুন নামটি ঘোষণা করা হলো যখন ব্যবসায়িক কৌশল নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ক্রমবর্ধমান সরকারি তদন্তের মুখোমুখি হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক। সরকার ও বিরোধী দলের নেতাদের ব্যাপক সমালোচনার মুখোমুখি হচ্ছে প্রযুক্তি জায়ান্ট।
আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যম জানায়, মূল প্রতিষ্ঠানের নাম পরিবর্তন করা হলেও ফেসবুক অ্যাপের নাম বদলাচ্ছে না। নতুন যে নামে সংস্থাটি আত্মপ্রকাশ করছে তার অধীনে একটি অ্যাপের নাম হয়ে থাকবে ফেসবুক।
ফেসবুকের রয়েছে ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপ, অকুলাসের মতো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের আরো বেশ কিছু অ্যাপ। নতুন নামে ব্র্যান্ডিংয়ের কারণে ফেসবুক ইনকরপোরেশনের এ অ্যাপগুলো একটি মূল কোম্পানির অধীনে চলে আসবে।
এমন একটি সময় নতুন নামটি ঘোষণা করা হলো যখন ব্যবসায়িক কৌশল নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ক্রমবর্ধমান সরকারি তদন্তের মুখোমুখি হচ্ছে ফেসবুক। সরকার ও বিরোধী দলের নেতাদের ব্যাপক সমালোচনার মুখোমুখি হচ্ছে প্রযুক্তি জায়ান্টটি।
এ সময় ‘মেটা’র আওতায় নতুন বিভিন্ন অ্যাপস ও প্রযুক্তি পণ্য বাজারে আনার ঘোষণা দেন তিনি।
তিনি বলেন, সামাজিক বিভিন্ন ইস্যুর সাথে লড়াই করে আমরা অনেক কিছু শিখেছি। এবার আমাদের শেখা সবকিছু দিয়ে পরের অধ্যায়ে যাওয়ার সময় এসেছে।
কোম্পানিটির কর্মকর্তারা বলছেন, ফেসবুক ইনকরপোরেশনের আওতায় বর্তমানে ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপের মতো একাধিক প্ল্যাটফর্ম রয়েছে, তাই মূল প্রতিষ্ঠানের নাম ফেসবুক হওয়া বাঞ্ছনীয় নয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Shanto ২৯ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০৩ পিএম says : 0
ফেসবুক টুইটার ইউটিউব গুগল এবং মূলধারার গণমাধ্যমের মতো বড় বড় কারিগররা মানব, মানবতা, মানবাধিকার, মানুষের স্বাধীনতা এবং বাক স্বাধীনতার জন্য কাজ করছে না, বরং তারা তাদের দুষ্ট সাইকোপ্যাথিক শয়তান মালিকদের জন্য কাজ করছে। আমরা এখন মিথ্যা ভণ্ড শয়তানবাদের অন্ধকার যুগে আছি।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন