বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ১২ মাঘ ১৪২৮, ২২ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

লাইফস্টাইল

নিয়মিত পেয়ারা খান : সুস্থ থাকুন

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ নভেম্বর, ২০২১, ১১:০০ এএম

এই একটি ফল বাংলাদেশের বাজারে সব সময় পাওয়া যায়। যার নাম পেয়ারা। নানা পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতার জন্য পেয়ারাকে ডাকা হয় ‘সুপার ফ্রুট’ নামে। বর্ষা মৌসুমের ফল হলেও এখন সারাবছর বাজারে পাওয়া যায় পেয়ারা।

অন্যান্য ফলের চেয়ে পেয়ারার পুষ্টিগুণ বেশি। বিশেষ করে ভিটামিন ‘সি’ এর পরিমাণ এত বেশি যে আমলকী ছাড়া অন্য কোনো ফলে এত ভিটামিন ‘সি’ পাওয়া যায় না।

পেয়ারায় ভিটামিন ‘সি’ ছাড়া আর কি পুষ্টিগুণ ও উপকারিতা রয়েছে, চলুন জেনে নেওয়া যাক।

১. পেয়ারাতে প্রচুর ভিটামিন ‘সি’ আছে। ১০০ গ্রাম পেয়ারায় ১৮০ মি.গ্রাম ভিটামিন ‘সি’ রয়েছে। ফলটি ঠাণ্ডা কাশির পথ্য। তাছাড়া শ্বাসতন্ত্র, গলা ও ফুসফুসকে ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণ থেকে সুরক্ষা করে। রক্তসঞ্চালন ঠিক রাখে তাই হার্টের রোগীরা পেয়ারা খেতে পারেন।

২. পেয়ারাতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘এ’ রয়েছে। যা দৃষ্টি শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। যাদের কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যা রয়েছে তারা পাকা পেয়ারা খেতে পারেন।

৩. পেয়ারায় যে পরিমাণ ভিটামিন ‘সি’ থাকে তা শরীরে গেলে ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করে শরীরের রোগ প্রতিরোধ করতে পারে।

৪. যেকোনো ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ বা পেটের গোলযোগে কার্যকরী। এই ফলটিতে অ্যাস্ট্রিজেন্ট ও অ্যান্টি-মাইক্রোবাল উপাদান থাকে যা পাকস্থলির স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাহায্য করে। তাছাড়া ত্বক ভালো রাখার সঙ্গে সঙ্গে ত্বককে টানটান রাখে।

৫. পেয়ারা ডায়বেটিস, ক্যানসার, প্রস্টেট ক্যানসার মতো রোগ প্রতিরোধে কার্যকরী ভূমিকা রাখে। পেয়ারা ডায়রিয়ার বিরুদ্ধে লড়তে পারে। তাই নিয়মিত পেয়ারা খেলে ডায়রিয়া হওয়ার আশঙ্কা কমে যাবে অনেকটা। পেয়ারার আছে ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে লড়াই করার ক্ষমতা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Khondaker Shahjahan ২৮ নভেম্বর, ২০২১, ৬:৩১ পিএম says : 0
এত গুণ থাকলে সব ঔষধ বাদ দিয়ে পেয়ারা খেলেই তো চলে।
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন