শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৫ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রে ফেডারেল বিচারক পদে প্রথম বাংলাদেশি আমেরিকান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০০ এএম

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ফেডারেল বিচারপতি হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভ‚ত আমেরিকান নাগরিক নুসরাত জাহান চৌধুরী। নিয়োগ পেলে তিনি হবেন প্রথম নারী মুসলিম-আমেরিকান ফেডারেল বিচারপতি। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এই মনোনয়ন দিয়েছেন বলে জানানো হয়েছে হোয়াইট হাউজের এক বিবৃতিতে।

নতুন বিচারপতিদের মনোনয়ন দেয়ার ক্ষেত্রে প্রেসিডেন্ট বাইডেনের একটি লক্ষ্য ছিল আমেরিকার বিচার বিভাগে বৈচিত্র্য আনা। প্রেসিডেন্টের এ মনোনয়ন যদি মার্কিন সংসদের উচ্চকক্ষ সিনেটে পাশ হয়, তাহলে নুসরাত জাহান চৌধুরী নিউইয়র্ক স্টেটের ফেডারেল কোর্টে বিচারকার্য পরিচালনা করবেন। হোয়াইট হাউজের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ফেডারেল বিচারপতি হিসেবে প্রেসিডেন্ট ৮ জনকে মনোনয়ন দিয়েছেন এবং তাদের সবাই অসাধারণ যোগ্যতাসম্পন্ন, অভিজ্ঞ এবং আইনের শাসন ও সংবিধানের প্রতি প্রতিশ্রæতিবদ্ধ।

নুসরাতের মনোনয়ন সিনেট অনুমোদন করলে তিনি হবেন দেশটিতে ফেডারেল বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পাওয়া প্রথম বাংলাদেশি আমেরিকান। একই সঙ্গে নুসরাত হবেন যুক্তরাষ্ট্রে ফেডারেল বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পাওয়া প্রথম মুসলিম নারী। আর মুসলিম ব্যক্তি হিসেবে নুসরাত হবেন দেশটির দ্বিতীয় ফেডারেল বিচারক। প্রথম মুসলিম ব্যক্তি হিসেবে দেশটিতে ফেডারেল জাজ হয়েছেন জাহিদ কোরেশি। তিনি পাকিস্তানি বংশোদ্ভ‚ত আমেরিকান।

হোয়াইট হাউজের বিবৃতিতে নুসরাত জাহান চৌধুরীর একটি সংক্ষিপ্ত পরিচিতি দেয়া হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, নুসরাত চৌধুরী ২০২০ সাল পর্যন্ত ইলিনয় অঙ্গরাজ্যের আমেরিকান সিভিল লিবার্টিজ ইউনিয়নের লিগ্যাল ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করেছেন। এছাড়া তিনি ২০০৮ সাল থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত নিউইয়র্কে আমেরিকার সিভিল রাইটস ইউনিয়নে বিভিন্ন পদে কাজ করেছেন। সর্বশেষ ২০১৮ সাথে ২০২০ সাল পর্যন্ত তিনি রেসিয়াল জাস্টিস প্রোগ্রাম-এর ডেপুটি ডিরেক্টর ছিলেন। নুসরাত জাহান চৌধুরী ২০১৬ সাথে ২০১৮ সাল পর্যন্ত রেসিয়াল জাস্টিস প্রোগ্রাম-এর সিনিয়র স্টাফ অ্যাটর্নি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ইয়েল ল স্কুল, প্রিন্সটন স্কুল অব পাবলিক অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্স এবং কলাম্বিয়া ইউনিভার্সিটিতে পড়াশুনা করেন।

হোয়াইট হাউজের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের বিচারালয়ে বৈচিত্র্য থাকার বিষয়টি আমেরিকার অন্যতম একটি বড় সম্পদ। প্রেসিডেন্ট বাইডেন এ বৈচিত্র্যের প্রতি প্রতিশ্রæতিবদ্ধ এবং এ দফায় যাদের মনোনয়ন দেয়া হয়েছে, সেটি প্রেসিডেন্ট বাইডেনের প্রতিশ্রæতি পূরণ করার ধারাবাহিকতা। প্রেসিডেন্ট বাইডেন ক্ষমতায় আসার পর গত এক বছরে ১৩ দফায় ৮৩ জন বিচারপতি মনোনয়ন দিয়েছেন। সূত্র : বিবিসি, ট্রিবিউন।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (3)
Harunur Rashid ২১ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:৩২ এএম says : 0
Congratulation ! I hope your confirmation goes through.
Total Reply(0)
Saidul Islam ২১ জানুয়ারি, ২০২২, ৭:২২ এএম says : 0
অভিনন্দন
Total Reply(0)
M Khaled Mosharrof ২১ জানুয়ারি, ২০২২, ৭:২২ এএম says : 0
Congratulations
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন