বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

বিশ্বে করোনায় মৃত্যু নামল হাজারের নিচে, কমেছে শনাক্তও

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ মে, ২০২২, ৯:১৯ এএম

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বজুড়ে প্রাণহানি ও শনাক্তের তালিকা লম্বাই হচ্ছে। দুই বছর ধরে তাণ্ডব চালানো ভাইরাসটির প্রকোপ এখন অনেকটা কমে এসেছে।

চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে মৃত্যুর সংখ্যা হাজারের নিচে নেমেছে। এই সময়ে ৯২৬ জনের প্রাণ কেড়েছে ভাইরাসটি। একই সময় অদৃশ্য ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে দুই লাখ ৬৮ হাজারের বেশি মানুষের দেহে।

করোনাভাইরাসের লাইভ আপডেট দেওয়া ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, সোমবার সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে দুই লাখ ৬৮ হাজার ৪০২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ৯২৬ জনের।

নতুন শনাক্তদের নিয়ে মোট ৫১ কোটি ৩৫ লাখ ৮০ হাজার ৯৩১ জনের করোনা ধরা পড়ল। এছাড়া মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৬২ লাখ ৬১ হাজার ৫৯৮ জনে। ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪৬ কোটি ৭৬ লাখ ৯৫ হাজার ৩০ জন।

গত একদিনে বেশি সংক্রমিত হয়েছে ইতালিতে। এই সময়ে দেশটিতে ৪০ হাজার ৭৫৭ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। মারা গেছেন ১০৫ জন।

দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে আছে রাশিয়া। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৪৭ জনের এবং নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৭ হাজার ৪৭ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ হাজার ৫১৮ জন এবং মারা গেছেন ২১ জন। করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৮ কোটি ৩০ লাখ ৮৩ হাজার ৪২৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১০ লাখ ২০ হাজার ৮৫৪ জন মারা গেছেন।

ফ্রান্সে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৬ হাজার ৭২৬ জন এবং মারা গেছেন ৩২ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ৮৬ লাখ ৮২ হাজার ১১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৪৫ হাজার ৯৬২ জন মারা গেছেন।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন আক্রান্ত ৩৭ হাজার ৭৭১ জন, মৃত্যু ৮১; ব্রাজিলে নতুন আক্রান্ত ছয় হাজার ২৫৪, মৃত্যু ১৬; জার্মানিতে নতুন আক্রান্ত আট হাজার ৯৯৫, মৃত্যু ১৩; রাশিয়ায় নতুন আক্রান্ত সাত হাজার ৪৭, মৃত্যু ১৪৭; তুরস্কে নতুন আক্রান্ত এক হাজার ৪৮০, মৃত্যু ১২ এবং ভিয়েতনামে নতুন আক্রান্ত তিন হাজার ৭১৭ এবং একজনের মৃত্যু হয়েছে।

২০১৯ সালের শেষ দিকে চীনের উহান শহরে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এরপর ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বের দুই শতাধিক দেশ ও অঞ্চলে।

মহামারি শুরুর প্রায় এক বছর পর টিকা আবিষ্কার করতে সক্ষম হন বিজ্ঞানীরা। তারপর থেকে করোনার ঢেউ অনেকটা কমে আসে। এমন অবস্থার পর করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন বিশ্বজুড়ে ফের আতঙ্ক সৃষ্টি করে। বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ করোনা টিকার বুস্টার ডোজের ওপর জোর দিচ্ছে। করোনার প্রকোপ থেকে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরছে বিশ্ব।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps