সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯, ২৬ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

রাশিয়ার চেয়েও বড় বিপদ চীন

জর্জ ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ে অ্যান্থনি ব্লিঙ্কেন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ মে, ২০২২, ১২:০০ এএম

রাশিয়ার চেয়েও চীনকে আরো বড় বিপদ বলে মনে করে যুক্তরাষ্ট্র। তাদের মতে, রাশিয়া এখন বিপদের কারণ হয়েছে। চীন ভবিষ্যতে আরো বড় বিপদের কারণ হতে পারে। বৃহস্পতিবার জর্জ ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাষণ দিচ্ছিলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন। সেখানেই তিনি যুক্তরাষ্ট্রের এই মনোভাবের কথা স্পষ্ট করে জানান। তিনি বলেন, চীনের মোকাবিলায় ও তাদের থামাতে আন্তর্জাতিক বিশ্বকে একজোট হতে হবে।

ব্লিংকেন বলেন, চীন এমন একটা দেশ যাদের আন্তর্জাতিক পরিস্থিতিকে প্রভাবিত করার মতো আর্থিক, সামরিক, প্রযুক্তিগত ও কূটনৈতিক দক্ষতা আছে এবং তাদের সেই ইচ্ছে আছে। যুক্তরাষ্ট্র মনে করে, রাশিয়া বর্তমানে বিপদের কারণ। কিন্তু দীর্ঘমেয়াদী দৃষ্টিতে দেখতে গেলে চীন অনেক বড় বিপদের কারণ। ইউক্রেন আক্রমণ করার আগে রাশিয়া চীনের সঙ্গে সীমাহীন নিরাপত্তা চুক্তিতে সই করেছে। সেখানে মস্কো অবশ্য ন্যাটোর বিপদের মোকাবিলা করার কথা বলেছে। কিন্তু চীন ইংরেজিতে যে বিবৃতি জারি করেছে, সেখানে ন্যাটোর বিপদের মোকাবিলা করার কথা নেই।

চীনকে নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য যুক্তরাষ্ট্র তার বন্ধু ও সহযোগী দেশগুলোর ওপর নির্ভর করবে। মার্কিন কর্মকর্তারা মনে করেন, চীনের চারপাশে এমন একটা পরিবেশ তৈরি করে রাখা উচিত, যা চীনের নীতিকে প্রভাবিত করবে। যুক্তরাষ্ট্রের একজন প্রধান কূটনীতিকের মতে, ঠিক যেভাবে রাশিয়ার মোকাবিলা করা হচ্ছে, সেভাবেই চীনের মোকাবিলা করতে হবে। দুই মডেল একই হওয়া দরকার। ব্লিংকেন বলেন, ’আমরা পুতিনকে সফল হতে দিইনি। যে চ্যালেঞ্জ এসেছিল, তার মোকাবিলা করা গেছে। পরমাণু শক্তিধর দেশগুলো যুদ্ধে জড়ায়নি’।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সম্প্রতি দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান সফর করেছেন। দুই জায়গাতেই আলোচনায় চীন প্রাধান্য পেয়েছে। চার দেশের কোয়াড শীর্ষবৈঠকে চীন নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে। বাইডেন জানিয়ে দিয়েছেন, চীন যদি তাইওয়ান আক্রমণ করে, তাহলে যুক্তরাষ্ট্র চুপ করে বসে থাকবে না। তারাও যুদ্ধে সামিল হবেন। সূত্র : সিএনএন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
Rasel ২৮ মে, ২০২২, ১০:১২ এএম says : 0
চীনের একটা বড় ক্ষমতা অর্জন করা দরকার। বিশ্বের একক কৃতত্ব থাকলে বিশ্ব আলো নষ্ট হয়।
Total Reply(0)
Rasel ২৮ মে, ২০২২, ১০:১৩ এএম says : 0
বিশ্বের মাঝে শান্তি ফিরিয়ে আনতে হলে বড় বড় দেশগুলোর মাঝে একতা থাকা দরকার। এজন্য আমেরিকা, চীন যুত্তরাষ্ট ও রাশিয়ার মাঝে খারাপ বন্ধন সৃষ্টি হলে বিশ্ব ধ্বংসের দিকে ধাবিত হবে
Total Reply(0)
MD Anisur Rahman Titu ২৮ মে, ২০২২, ৩:২৬ এএম says : 0
চীনকে আলাদা একটা বলয় গড়ে তুলতে হবে।
Total Reply(0)
Ismail Sagar ২৮ মে, ২০২২, ৩:২৯ এএম says : 0
চীন এমন একটা দেশ যাদের সবক্ষেত্রে নিজস্ব সক্ষমতা আছে।
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps