শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ০৫ ভাদ্র ১৪২৯, ২১ মুহাররম ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক সংবাদ

আমাকে ও বাকি বন্দিদের ভুলে যাবেন না

নিউইয়র্ক টাইমস | প্রকাশের সময় : ৬ জুলাই, ২০২২, ১২:০০ এএম

ফেব্রুয়ারি থেকে মাদকের অভিযোগে রাশিয়ায় আটক ডব্লিউএনবি তারকা ব্রিটনি গ্রেইনার গত সোমবার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের কাছে একটি হাতে লেখা চিঠি পাঠিয়েছেন যাতে তাকে ভুলে না যাওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে। গ্রেইনার তার প্রতিনিধিদের শেয়ার করা একটি চিঠিতে বলেছেন, ‘আমি বুঝতে পারছি আপনি অনেক কিছু নিয়ে কাজ করছেন, কিন্তু দয়া করে আমাকে এবং বাকি আমেরিকান বন্দিদের ভুলে যাবেন না। অনুগ্রহ করে আমাদের বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার জন্য আপনি যা করতে পারেন তা করুন’। হোয়াইট হাউসের একজন মুখপাত্র প্রেসিডেন্ট চিঠিটি পেয়েছেন কিনা তা বলেননি, তবে জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের মুখপাত্র অ্যাড্রিয়ান ওয়াটসন একটি বিবৃতি দিয়েছেন। ওয়াটসন বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট বাইডেন ব্রিটনি গ্রেইনারসহ বিদেশে জিম্মি বা অন্যায়ভাবে আটক সমস্ত আমেরিকান নাগরিকদের মুক্তি দেওয়ার প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে স্পষ্ট বলেছেন এবং তাকে বাড়িতে ফেরাতে মার্কিন সরকার সম্ভাব্য প্রতিটি উপায় ব্যবহার করে আক্রমণাত্মকভাবে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে’। ‘প্রেসিডেন্টের দল ব্রিটনির পরিবারের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ করছে’ তিনি যোগ করেছেন। মস্কোর কাছে একটি বিমানবন্দরে তার লাগেজে গাঁজার তেল থাকার অভিযোগে ১৭ ফেব্রুয়ারি গ্রেইনার (৩১ কে গ্রেফতার করা হয়। তিনি রাশিয়ায় পেশাদার মহিলাদের বাস্কেটবল দলের সাথে ছিলেন ইউএমএমসি ইয়েকাটেরিনবার্গের হয়ে খেলতে যার সাথে তিনি বেশ কয়েকটি ডব্লিউএনবিএ-এর সময় প্রতিযোগিতা করেন। তিনি ২০১৩ সাল থেকে ডব্লিউএনবিএ-এর ফিনিক্স মার্কারির হয়ে খেলেছেন, যখন দলটি তাকে প্রথম সামগ্রিক বাছাইয়ের সাথে খসড়া তৈরি করেছিল এবং মার্কিন মহিলা জাতীয় বাস্কেটবল দলের সাথে দুটি অলিম্পিক স্বর্ণপদক জিতেছিল।
রাশিয়ায় মাদকের অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হলে গ্রেইনারকে অপরাধমূলক উপনিবেশে ১০ বছর পর্যন্ত কারাভোগ করতে হবে। শুক্রবার তার বিচার শুরু হয় এবং আইন বিশেষজ্ঞরা বলেছেন যে, তিনি সম্ভবত দোষ স্বীকার করেছেন।
কেনান ইনস্টিটিউটের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক এবং রাশিয়ান আইন বিশেষজ্ঞ উইলিয়াম পোমেরঞ্জ নিউইয়র্ক টাইমসকে বলেছেন, ‘মূলত পক্ষপাতিত্ব রয়েছে, কারণ রাশিয়ান বিচার ব্যবস্থা বলেছে যে, আসামীকে দোষী সাব্যস্ত না করা পর্যন্ত তাদের বিচার করা উচিত নয়’। নতুনভাবে ‘অভিযুক্ত নির্দোষ যে কোন বাস্তব ধারণা বা প্রত্যাশা নেই। প্রকৃতপক্ষে নির্দোষতার কোন অনুমান নেই’।
গ্রেইনার অভিযোগের জবাব দেননি। মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর মে মাসে সিদ্ধান্ত নিয়েছিল যে, তাকে ‘অন্যায়ভাবে আটক করা হয়েছে’, যদিও এটি কীভাবে বা কেন এ সিদ্ধান্তে এসেছে তা জানায়নি। এই সংকল্পের অর্থ হল জিম্মিদের সাথে কাজ করা সরকারি কর্মকর্তারা তাকে মুক্তি দেওয়ার জন্য কাজ করবে। এ বছরের শুরুতে বিশ্বজুড়ে ৪০ জরেরও বেশি আমেরিকানকে অন্যায়ভাবে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানা গেছে।
বাইডেনের কাছে তার চিঠিতে গ্রেইনার চতুর্থ জুলাইয়ের কথা উল্লেখ করেছেন। তিনি বলেন, ‘আমি সাধারণত এ দিনটি যেভাবে উদযাপন করি তা নিয়ে ভাবতে কষ্ট হয় কারণ এ বছর স্বাধীনতা মানে আমার কাছে সম্পূর্ণ আলাদা কিছু’। তিনি যোগ করেছেন যে, তিনি ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রথমবারের মতো ভোট দিয়েছিলেন এবং বাইডেনকে বেছে নিয়েছিলেন।
গ্রেইনারের স্বামী শেরিল গ্রেইনার প্রকাশ্যে বাইডেনকে তার স্ত্রীকে মুক্ত করতে সাহায্য করার জন্য অনুরোধ করেছেন। গত মাসে, গ্রেইনারের এজেন্ট লিন্ডসে কাগাওয়া কোলাস কয়েক ডজন নারী ও নাগরিক অধিকার সংস্থা থেকে বাইডেন এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের কাছে একটি চিঠি সমন্বয় করেছিলেন। চিঠিতে বলা হয়েছে গ্রেইনার ‘অমানবিক আচরণ’ ভুগছেন।
চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘আমরা এখন আপনাকে অবিলম্বে এবং নিরাপদে আমেরিকায় ব্রিটনিকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য একটি চুক্তি করার জন্য অনুরোধ করছি’।
এপ্রিল মাসে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং রাশিয়া একটি বন্দী বিনিময় পরিচালনা করে যা ট্রেভর আর. রিডকে মুক্তি দেয়, যিনি দুই বছরেরও বেশি সময় ধরে হামলার অভিযোগে বন্দি ছিলেন একজন প্রাক্তন মার্কিন মেরিন। বিনিময়ে, মার্কিন রাশিয়ান পাইলট কনস্টান্টিন ইয়ারোশেঙ্কোকে মুক্তি দেয় যাকে ২০১১ সালে ট্রাফিক অভিযোগে ২০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন