সোমবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯, ০৭ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

কোরআন সম্পর্কে পড়াশোনা করে আরবিতে চিঠিও লিখেছেন চার্লস

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১২:০০ এএম

রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুর পর ব্রিটেনের নতুন রাজা হয়েছেন তার ছেলে চার্লস। রাজা হিসেবে নতুন করে পরিচিত হলেও গত কয়েক দশক ধরেই মিডিয়ার আকর্ষণ ছিল তাকে ঘিরে। বিশ্বের বিভিন্ন জাতি ও ধর্মের বিষয়ে তার চিন্তা-ভাবনাও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। ইসলাম ধর্মের বিষয়েও রাজা চার্লস একাধিকবার খোলাখুলি কথা বলেছেন। প্রশংসা করেছেন এ ধর্ম এবং এর অনুসারীদেরও। আল-জাজিরা জানিয়েছে, রাজা চার্লস মুসলিমদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কোর-আন সম্পর্কে পড়াশুনা করেছেন এবং মুসলিম নেতাদের কাছে তিনি আরবিতে চিঠিও লিখেছেন। রবার্ট জবসনের লেখা ‘চার্লস অ্যাট সেভেন্টি’ বইতেও বিষয়টি উঠে এসেছে। রাজা চার্লস সবসময়ই ছিলেন পরিবেশ ইস্যুতে সোচ্চার এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তিনি আবহাওয়া পরিবর্তন ঠেকাতে দীর্ঘ মেয়াদী পদক্ষেপের পক্ষে কথা বলেছেন বহুবার। ২০১০ সালে অক্সফোর্ডের ইসলামিক স্টাডিজ সেন্টারেও পরিবেশ ইস্যুতে বক্তব্য দেন চার্লস। সেসময় তিনি বলেন, ইসলাম অনুযায়ী প্রকৃতির প্রাচুর্যের সীমা আছে। আর তাই মুসলিমদের সীমা লংঘন না করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। রাজা তৃতীয় চার্লস দীর্ঘকাল ধরে মুসলিম বিশ্ব এবং পশ্চিমা দেশগুলোকে কাছাকাছি আনার পক্ষে কথা বলেছেন। তিনি বরাবরই বলে এসেছেন যে, পশ্চিমা দেশগুলোতে ইসলাম সম্পর্কে প্রচুর ‘ভুল বোঝাবুঝি’ রয়েছে। ১৯৯৩ সালে অক্সফোর্ড সেন্টার ফর ইসলামিক স্টাডিজে দেওয়া বহুল আলোচিত এক বক্তৃতার সময় রাজা তৃতীয় চার্লস বলেছিলেন, ‘ইসলামের প্রকৃতি সম্পর্কে পশ্চিমে যদি অনেক ভুল বোঝাবুঝি থাকে, তবে ইসলামিক বিশ্বের কাছে আমাদের নিজস্ব সংস্কৃতি এবং সভ্যতার ঋণ সম্পর্কেও (আমাদের) অনেক অজ্ঞতা রয়েছে। এটি একটি ব্যর্থতা বলেই আমি মনে করি। ইতিহাস থেকে যা আমরা উত্তরাধিকারসূত্রে পেয়েছি।’ চার্লস সতর্ক করে দিয়ে সেসময় বলেছিলেন, চরমপন্থাকে কেবল ইসলামের ‘বিষয়’ হিসাবে দেখা উচিত নয়। তিনি বলেছিলেন, এটি কেবল ‘ইসলামের একচেটিয়া অধিকার নয় বরং এটি খ্রিস্টানসহ অন্যান্য ধর্মের একচেটিয়া বিষয়’। উল্লেখ্য, মায়ের মৃত্যুর পর গত শনিবার ব্রিটেনের নতুন রাজা হয়েছেন প্রিন্স চার্লস। ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের নিয়ম অনুযায়ী, রানির মৃত্যুর পর স্বয়ংক্রিয়ভাবে এবং কোনো ধরনের আনুষ্ঠানিকতা ছাড়াই রাজার পদবি পান সাবেক এই প্রিন্স অব ওয়েলস। নতুন এই ব্রিটিশ রাজা ‘রাজা তৃতীয় চার্লস’ নামে পরিচিত হবেন। একই সঙ্গে তিনি ১৪টি কমনওয়েলথ দেশেরও রাজা হবেন। আল-জাজিরা, রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন