মঙ্গলবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১১ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে ফের সুদহার বাড়াচ্ছে ভারত

ডলারের বিপরীতে রুপির মান রেকর্ড সর্বনিম্নে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১২:১১ এএম

মূল্যস্ফীতির লাগাম টানতে রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়া (আরবিআই) ফের সুদরে হার বাড়াতে যাচ্ছে। এজন্য যুক্তরাষ্ট্রসহ বেশ কিছু দেশ থেকে ফর্মুলা নিতে পারে দেশটি। কারণ এর আগে বেশ কয়েকবার মার্কিন ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংকও সুদের হার বাড়িয়েছে। রোববার দ্য ইকোনমিক টাইমসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছে, আরবিআই মে থেকে স্বল্পমেয়াদী ঋণের (রিপো) হার ১৪০ বেসিস পয়েন্ট বাড়িয়েছে। এখন ফের ৫০ বেসিস পয়েন্টে বাড়িয়ে সুদের হার পাঁচ দশমিক নয় শতাংশ করতে পারে। ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাংকটি মে মাসে রিপো রেট ৪০ পয়েন্টভিত্তিতে বাড়িয়েছে। এরপর জুন ও আগস্টে ৫০ পয়েন্টে বাড়ানো হয়। বর্তমানে এর হার পাঁচ দশমিক চার শতাংশে রয়েছে। এদিকে চলতি বছরের আগস্টে ভারতের মূল্যস্ফীতি পূর্বাভাসের চেয়ে বেড়েছে। জ্বালানি ও খাদ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় মূল্যস্ফীতির ওপর এই প্রভাব পড়েছে। এতে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ওপর নতুন করে চাপ বাড়ছে। কারণ তারা মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। ভারতের পরিসংখ্যান বিভাগের প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, এক বছর আগের তুলনায় গত মাসে ভোক্তা মূল্যসূচক বেড়েছে সাত শতাংশ, যা ব্লুমবার্গের পূর্বাভাস ৬ দশমিক ৯০ শতাংশের চেয়ে বেশি। তাছাড়া জুলাইতে দেশটিতে মূল্যস্ফীতির হার ছিল ৬ দশমিক ৭১ শতাংশ। ভারত সরকারের তথ্য অনুযায়ী, আগস্টে খাদ্যের দাম ৭ দশমিক ৬২ শতাংশ বেড়েছে। একই সময়ে জ্বালানি তেল ও বিদ্যুতের দাম বেড়েছে ১০ দশমিক ৭৮ শতাংশ। পোশাক ও জুতার দাম বেড়েছে ৯ দশমিক ৯১ শতাংশ, আবাসনের দাম বেড়েছে ৪ দশমিক শ‚ন্য ৬ শতাংশ। এদিকে মার্কিন ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক টানা তৃতীয়বারের মতো মূল সুদের হার তিন-চতুর্থাংশ বা শ‚ন্য দশমিক ৭৫ শতাংশ পয়েন্ট বাড়িয়ে তিন থেকে তিন দশমিক দুই পাঁচ শতাংশ পর্যন্ত করেছে, যা ২০০৮ সালের পর সর্বোচ্চ। অপর দিকে, ডলারের বিপরীতে রুপির বিনিময় মান সর্বকালের সর্বনিম্নে পৌঁছেছে সম্প্রতি তিন দফা মানের পতনের পর আজ সোমবার আরেকবার রেকর্ড গড়েছে ভারতীয় মুদ্রা। প্রতি ডলারের বিনিময় মান সাড়ে ৮১ রুপিরও বেশি। বিশ্বব্যাপী ক্রমবর্ধমান ঋণের হার ও মন্দার কারণে এই পতন বলে বিশ্লেষকরা মন্তব্য করছেন। মূল্যস্ফীতির ইতিবাচক দিকগুলো কাজ না করা পর্যন্ত এই নিম্নমুখী প্রবণতা চলবে। ব্লুমবার্গ জানায়, গত শুক্রবার ডলারের বিপরীতে ৮০.৯৯ রুপি বিনিময় মানের তুলনায় আজ রেকর্ড ৮১.৫৫৮৭ রুপি ছুঁয়েছে। অন্যদিকে ভারতীয় সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, প্রাথমিক বাণিজ্যে মার্কিন ডলারের বিপরীতে দেশীয় মুদ্রা ৩৮ পয়সা কমে সর্বকালের সর্বনিম্ন ৮১.৪৭-এ দাঁড়িয়েছে। সপ্তাহের শেষের দিকে ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংক (আরবিআই) রুপির পতন ঠেকাতে কিছু পদক্ষেপ নেয়ার কথা রয়েছে। তবে ওই উদ্যোগ কতটা কাজ করবে তা নিয়ে পর্যবেক্ষকরা বিভক্ত। দুর্বল রুপিকে রক্ষা করতে ও দেশটির বাণিজ্য নিষ্পত্তির জন্য আরবিআই মি্প্রতি বাজারে হস্তক্ষেপ করেছে। এ কারণে গত কয়েক মাস ধরে ভারতের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ক্রমাগত হ্রাস পাচ্ছে। রুপির পতনের আরেকটি সম্ভাব্য কারণ হিসেবে এ বিষয়কেও ধরা হচ্ছে। পিটিআই,এনডিটিভি, ইকোনমিক টাইমস।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন