ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ০৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

ইসলামী বিশ্ব

কুর্দিরা মার্কিন অস্ত্র ব্যবহার করছে : এরদোগান

কুর্দিদের উপর আক্রমণ বন্ধ করুন : ওবামা

প্রকাশের সময় : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : সিরিয়া পরিস্থিতি নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের মধ্যে ফোনালাপ হয়েছে। গত শুক্রবার অনুষ্ঠিত এ ফোনালাপে সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে সিরীয় সরকারি বাহিনীর অগ্রযাত্রায় উদ্বেগ প্রকাশ করে ওবামা তুরস্ক ও বিদ্রোহীদের বিপক্ষে উস্কানীমূলক কর্মকা- বন্ধের জন্য সিরিয়ার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। হোয়াইট হাউজের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ওবামা এরদোগানকে আশ্বস্ত করেছেন সিরিয়ান কুর্দিস পিপলস প্রোটেকশন ইউনিটস বা ওয়াইপিজিকে নতুন করে কোনো ভূখ- দখল করতে দেয়া হবে না। তিনি তুরস্কের প্রতিও কুর্দিদের ওপর গোলাবর্ষণ বন্ধ করে সংযম প্রদর্শনের জন্য আহ্বান জানান।
অপর এক খবরে বলা হয়, সিরীয় কুর্দি মিলিশিয়ারা বেসামরিক নাগরিকদের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের সরবরাহ করা অস্ত্র প্রয়োগ করেছে বলে দাবি করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। আঙ্কারায় গাড়িবোমা হামলার জন্য এই কুর্দিদেরই এর আগে দায়ি করেছেন তিনি। গত বুধবার তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় পার্লামেন্ট ভবন ও সেনা সদর দপ্তরের কাছে গাড়িবোমা বিস্ফোরণে অন্তত ২৮ জন নিহত হয়।
হতাহতদের মধ্যে বেশ কয়েকজন বেসামরিক নাগরিকও রয়েছে। এ হামলার সঙ্গে সিরিয়ান কুর্দিস পিপলস প্রোটেকশন ইউনিটস (ওয়াইপিজি)’র সরাসরি সম্পর্ক খুঁজে পাওয়া গেছে এবং তারা তুরস্কের মাটিতে থাকা কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি (পিকেকে) জঙ্গিদের কাছ থেকে সাহায্য-সহযোগিতা নিয়ে ওই হামলা চালিয়েছে বলে জানান তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী আহমেত দাভুতগলু। একই কথা বলেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগানও। তুরস্ক ওয়াইপিজি মিলিশিয়াদেরকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসাবে দেখলেও যুক্তরাষ্ট্রসহ তুরস্কের অন্যান্য মিত্র দেশ ইসলামিক স্টেটের (আইএস) বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ওয়াপিজিকে সমর্থন দিচ্ছে। দলটিকে যুক্তরাষ্ট্রের এ সমর্থনের কারণে নেটো মিত্র দেশ তুরস্কের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সংঘাতের ঝুঁকি সৃষ্টি হয়েছে। এরদোগান বলেছেন, সিরিয়ান কুর্দি ওয়াইপিডি’র সশস্ত্র শাখা ওয়াইপিজিকে সন্ত্রাসী সংগঠন বলতে যুক্তরাষ্ট্রের অস্বীকৃতির কারণে তিনি মনঃক্ষুণœœ। রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (3)
Dudu Miah ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:৩২ পিএম says : 1
সিরিয়ার ব্যায়াপারটা বড় জটিল? কাহাকে মারবে, কাহাকে রাখবে এখনও সিদ্দান্ত হয় নাই।। সব শেষে খেয়াল রাখতে হবে, যাতে ওবামা সাব, নারাজ না হয়।
Total Reply(0)
Salma ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১১:৩৭ এএম says : 0
I agree with Erdogan
Total Reply(0)
mosa ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১০:৫২ এএম says : 0
ma sha Allah
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন