শুক্রবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১৪ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

আগুন পিঁপড়া ফ্লোরিডা থেকে ব্রিসবেনে

প্রকাশের সময় : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেন বিমানবন্দরে আটক একঝাঁক আগুনে পিঁপড়া নিয়ে নানা কৌতুহলের সৃষ্টি হয়েছে। দেশটির জৈব নিরাপত্তা বিভাগের কর্মকতা ও বিশেষজ্ঞরা ভেবেই কুল-কিনারা পাচ্ছেন না যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা থেকে এতদূর পাড়ি দিয়ে এই পিঁপড়া এলো কি করে! কর্মকতারা আগুনে পিঁপড়াগুলো নিয়ে ব্যাপক গবেষণা করছেন। জানা যায়, ইতিপূর্বে দানবাকৃতির এই বিষাক্ত পিঁপড়া মার্কিন মল্লুকে ছড়িয়ে পড়ার হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন বিশেষজ্ঞরা। গবেষকরা বলছেন, ট্র্যাপ্লজ অ্যান্ট নামের এ সব পিঁপড়া আকারে ৯ দশমিক ৫ মিলিমিটার পর্যন্ত হতে পারে এবং এ পিঁপড়ার মুখের দাঁড়া ১৮০ ডিগ্রি পর্যন্ত খুলতে পারে। এ দাঁড়া কেবল শিকারই ধরতে না, কিংবা কেবল খাবার খেতেই ব্যবহার করে না বরং এর সহায়তায় এ পিঁপড়া এক লাফে কয়েক ইঞ্চি পাড়ি দিতে পারে। এ কারণে এ পিঁপড়াকে রকেট অ্যান্টও বলা হয়। এ প্রজাতির চার ধরনের পিঁপড়া এ পর্যন্ত শনাক্ত করা গেছে যুক্তরাষ্ট্রে। চার প্রজাতির সবাই অবশ্য আমেরিকায় আগ্রাসন চালাচ্ছে না। ওডোনটোম্যাকাস হেমাটোডাস নামের প্রজাতিই এ কাজে এগিয়ে আছে। ১৯৫৬ সালে প্রথম এ পিঁপড়াকে আলাবামায় দেখা গিয়েছিল বলে জানা গেছে। বর্তমানে এ পিঁপড়া প্রজাতিকে মার্কিন উপকূলীয় অঞ্চলে দেখা যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের পূর্বের ফ্লোরিডার পেন্সাকোলা এলাকায় এ পিঁপড়া দেখা যায় সবচেয়ে বেশি। উল্লেখ্য, বিষাক্ত আগুনে পিঁপড়ার বৈজ্ঞানিক নাম পেসুডোমাইরমেক্স ট্রিপলারিনাস। এ পিঁপড়া সাধারণত মধ্য ও দক্ষিণ আমেরিকার অরণ্যে ট্রিপলারিস গাছে বাস করে। তাদের কামড়ে যেকোনো প্রাণীর মৃত্যু হতে পারে। এএফপি, রয়টার্স।
সংশোধনী : গতকাল এই সংক্রান্ত একটি খবরে ভুলবশত অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেন বিমানবন্দরের স্থলে যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবন্দর ছাপা হয়েছে। আসলে এটি হবে অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেন বিমানবন্দর। এই অসতর্কতা জনিত ত্রুটির জন্য আমরা দুঃখিত।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন