ঢাকা শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ আশ্বিন ১৪২৭, ০৮ সফর ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন পালিত

প্রকাশের সময় : ১৮ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার মধ্য দিয়ে পালিত হলো বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৭তম জন্মদিন। জন্মদিনের আনুষ্ঠানিকতার শুরুতে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৭টায় তার প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় সেনাবাহিনীর একটি সুসজ্জিত দল গার্ড অব অনার দেয়। এরপর আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে নিয়ে আওয়ামী লীগের সভানেত্রী হিসেবে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানান বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা
দলের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমির হোসেন আমু ও তোফায়েল আহমেদ, সভাপতিম-লীর সদস্য ওবায়দুল কাদের ও মতিয়া চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, দীপু মনি ও জাহাঙ্গীর কবির নানকসহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের শীর্ষ নেতারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে যান।  তিনি সেখানে কিছু সময় কাটান।
প্রধানমন্ত্রী চলে যাওয়ার পর সকলের জন্য বঙ্গবন্ধু ভবন খুলে দেয়া হয়। আওয়ামী লীগের বিভিন্ন সহযোগী ও ভাতৃপ্রতিম সংগঠন এবং বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করে।
পরে প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টুঙ্গিপাড়ায় গিয়ে বঙ্গবন্ধুর মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
জন্মদিন উপলক্ষে গতকাল ভোরে বঙ্গবন্ধু ভবন ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ সারা দেশে দলটির সব কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।
১৯২০ সালের ১৭ মার্চ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্ম নেন জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমান। কালক্রমে তার হাত ধরেই বিশ্ব মানচিত্রে নতুন দেশ হিসেবে স্থান করে নেয় বাংলাদেশ।
১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট একদল সেনা কর্মকর্তার হাতে নিজ বাসভবনে সপরিবারে নিহত হন তিনি।
বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর মাজার প্রাঙ্গণে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল, শিশু সমাবেশ, আলোচনা সভা এবং গ্রন্থমেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনগুলো ছাড়াও বিভিন্ন সংগঠন বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে নানা কর্মসূচি পালন করেছে। সরকারিভাবেও নানা কর্মসূচি নেয়া হয়।
বঙ্গবন্ধুর স্মরণে শুক্রবার বিকালে শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে আওয়ামী লীগ।
জন্মদিনে বঙ্গবন্ধুর অবদান স্মরণ করে এক বাণীতে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর অসামান্য অবদানের জন্য আজ এদেশের মানুষের কাছে বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধু এক ও অভিন্ন সত্তায় পরিণত হয়েছে। সামগ্রিক বিচারে বঙ্গবন্ধু একজন ব্যক্তি নন, তিনি এক অনন্যসাধারণ ইতিহাস।
পৃৃথক বাণীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবন্ধুর অবিসংবাদিত নেতৃত্ব, সম্মোহনী ব্যক্তিত্ব ও ঐন্দ্রজালিক ভাষণ সমগ্র জাতিকে একসূত্রে গ্রথিত করেছিল, যার ফলে আমরা পেয়েছি স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ। বিকাশ ঘটেছে বাঙালি জাতিসত্তার। জাতির পিতা শুধু বাঙালি জাতিরই নয়, তিনি ছিলেন বিশ্বের সকল নিপীড়িত-শোষিত-বঞ্চিত মানুষের অধিকার আদায় ও মুক্তির অগ্রনায়ক।
বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে কেক কাটল পথশিশুরা
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিনে সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের আয়োজনে কেক কেটেছে পথশিশুরা।
‘শ্রেষ্ঠতম বাঙালি, শুদ্ধতম জাতীয়তাবাদী’ শিরোনামে বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহাসিক বটতলায় জাতীয় শিশু দিবসে এই আয়োজন করা হয়।
পায়রা উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ও আলোচনা পর্ব শেষে মঞ্চে আনা হয় একটি বড় আকারের কেক। সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের নেতারাসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার পথশিশুরা মিলে ওই কেক কাটে।
এরপর নেতারা পথশিশুদের হাতে তুলে দেন ত্রিশ লাখ শহীদের রক্তে অর্জিত লাল-সবুজ পতাকা। এ সময় মাইক থেকে ভেসে আসে Ñ ‘আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি।’
ফোরামের চেয়ারম্যান মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার মেজর জেনারেল (অব.) কেএম শফিউল্লাহ বীরউত্তম বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আমরা এই বাংলাদেশ পেতাম কি-না সন্দেহ হয়। তার জন্ম না হলে এখনও আমাদের পাকিস্তানের পদলেহন করতে হতো।
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু তার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলার জন্য আজীবন সংগ্রাম করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর আত্মাকে শান্তি দিতে হলে বাংলাদেশের উন্নয়ন করতে হবে।
ফোরামের মহাসচিব সাংবাদিক হারুন হাবীব বলেন, বঙ্গবন্ধু আমাদের এই দেশ দিয়েছেন। তারই অস্তিত্বের ওপর ভর করে, তারই নামে আমাদের সকল অপশক্তিকে প্রতিরোধ করতে হবে।
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর অস্তিত্ব শক্তির, ত্যাগের ও বিসর্জনের। তোমরা যেন সেই অস্তিত্বকে ধারণ কর, যেটার বলে বলীয়ান হয়ে তিনি ৪৫ বছর আগে বাংলাদেশ নামে একটি রাষ্ট্র দিয়েছেন।
সাংস্কৃতিক সংগঠক ম. হামিদ বলেন, এত বছর পরেও বঙ্গবন্ধুর শক্তি কমেনি। নতুন প্রজন্মের মধ্য দিয়ে তিনি আমাদের মাঝে আছেন। তার দেখানো পথেই এখন বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে।
এ সময় অন্যদের মধ্যে ফোরামের সহসভাপতি লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব.) আবু ওসমান চৌধুরী, সাবেক রাষ্ট্রদূত আনোয়ারুল আলম শহীদ, যুগ্ম মহাসচিব আবুল কালাম আজাদ পাটোয়ারী ও সদস্য ফারজানা শাহনাজ মজিদ অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।
বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে বিনা মূল্যে চক্ষু চিকিৎসা
এদিকে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে বিনা মূল্যে চক্ষু চিকিৎসা সেবা দিয়েছে প্রবীণ কল্যাণ সংস্থা।
গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক এই চক্ষু শিবির উদ্বোধন করেন। রাজধানীর টিঅ্যান্ডটি মহিলা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে স্থাপিত এই চক্ষু শিবিরে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের দিয়ে বিনা মূল্যে পরীক্ষা সেবা ও ওষুধ সরবরাহ করা হয়।
এছাড়া চোখের ছানি কাটতে সার্জারির জন্য হাসপাতালে নিতে রোগী বাছাই করা হয়।
বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে ঢাকা-৫ আসনের এমপি হাবিবুর রহমান মোল্লা গতকাল বিকালে যাত্রাবাড়ী পার্কে ৯৭ পাউন্ড ওজনের কেক কাটেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ডেমরা থানা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিন পাটোয়ারী, মাহফুজুর রহমান মোল্লাসহ স্থানীয় নেতাকর্মীরা।  
জন্মদিনের শুরুতে সকালে ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় আওয়ামী ওলামা লীগ। নেতৃত্ব দেন ওলামা লীগের সভাপতি মাওলানা ইলিয়াস হোসেন বিন হেলালী ও সাধারণ সম্পাদক মাওলানা দেলোয়ার হোসেন। পরে তারা সেখানে কোরআন তেলাওয়াত করে আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।
চট্টগ্রামে বর্নাঢ্য আয়োজনে উদযাপন
চট্টগ্রাম ব্যুরো : চট্টগ্রামে ব্যাপক এবং বর্নাঢ্য অনুষ্ঠানমালার মধ্যদিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন করা হয়েছে। আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ব্যাপক কর্মসূচি পালন করে। একইসঙ্গে জেলা প্রশাসনসহ সরকারী বিভিন্ন দপ্তরও দিনটি উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করেছে।
নগরীর দারুল ফজল মার্কেটে নগর আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা। এছাড়া কার্যালয়ে নগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এরপর শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে শুরু হয় শিশু-কিশোর সমাবেশ। সমাবেশে নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বক্তব্য রাখেন।
সকালে শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গনে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান বিভাগীয় কমিশনার মো. রহুল আমিন।  জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন পুস্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এরপর শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গন থেকে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বের হয় শিশু-কিশোর র‌্যালি। এর আগে সিএমপির কমিশনার মোহা.আব্দুল জলিল ম-লের নেতৃত্বে নগর পুলিশ ও চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মো. শফিকুল ইসলাম এবং জেলা পুলিশ সুপার একেএম হাফিজ আক্তার বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।
চসিকের কর্মসূচী
চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের কর্মসূচিতে ছিল বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, খতমে কোরআন, মিলাদ ও মোনাজাত, উপস্থিত বক্তৃতা, চিত্রাংকন ও রচনা প্রতিযোগিতা এবং আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ। সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন ভোরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। পরে মেয়র বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনের কেক কাটেন এবং মোনাজাতে শরিক হন। তিনি সিটি কর্পোরেশনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের উপস্থিত বক্তৃতার সময় উপস্থিত ছিলেন।
বরিশালে নানা কর্মসূচী
বরিশাল ব্যুরো : গতকাল সকালে বরিশাল টাউন হলের সামনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগসহ অঙ্গ সংগঠনে নেতাকর্মীরা। এ সময় মিষ্টিও বিতরণ করা হয়। উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক তালুকদার মোহাম্মদ ইউনুস এমপি, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আফজালুল করিম ও আওয়ামী লীগ নেতা কর্ণেল (অব.) জাহিদ ফারুক শামীম সহ স্থানীয় নেতাকর্মীরা।
এদিকে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে টাউন হলে বশ ও আলোচনা সভা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। জেলা প্রশাসক ড. গাজী মো. সাইফুজ্জামানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার মো. গাউস। অন্যদিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের  জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. এ কে এম মাহবুব হাসানের নেতৃত্বে শিক্ষক, কর্মচারীরা নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যানে স্থাপিত জাতির পিতার ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করা হয়।
রাজশাহীতে উদযাপন
রাজশাহী ব্যুরো : দিনটি উদযাপন উপলক্ষে এবার ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে রাজশাহী জেলা প্রশাসন। বৃহস্পতিবার সকালে কুমার পাড়ায় মহানগর আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান আওয়ামী লীগের কেন্দ্রিয় সদস্য ও নগর সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান ও সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকারসহ অন্যান্য নেতারা। এছাড়া সকাল থেকে মহানগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে মাইকযোগে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণ ও দেশাত্মবোধক গান প্রচার করা হয়।  
খুবিতে দিবস পালিত
খুলনা ব্যুরো : গতকাল খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে সকাল ৯ টায় জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণের মাধ্যমে দিবসের কর্মসূচি শুরু হয়। ভিসি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। এর পর শিক্ষক সমিতি, স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ এর পক্ষ থেকে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। সকাল সাড়ে ১০ টায় দ্বিতীয় একাডেমিক ভবন অডিটরিয়ামে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ভিসি।
না’গঞ্জে প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা
নারায়ণগঞ্জ থেকে স্টাফ রিপোর্টার : দিবসটি উপলক্ষে চাষাড়া বিজয়স্তম্ভে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন জেলা প্রশাসক আনিছুর রহমান মিঞা।  এরপর জেলা পুলিশ সুপার ড. খ. মহিদ উদ্দিন, ৩০০ শয্যা হাসপাতালের ত্বত্তাবধায়ক উপ-পরিচালক ডা: নীতিশ কান্তি দেবনাথ ও জেলা সিভিল সার্জন আশোতষ দাস শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এর পরপরই শ্রদ্ধা নিবেদন করে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীবৃন্দসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ।
ময়মনসিংহে জন্মবার্ষিকী পালিত
ময়মনসিংহ আঞ্চলিক অফিস : ময়মনসিংহে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী পালিত হয়েছে। জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার বিকেলে নগরীর রেলওয়ে কৃষ্ণচূড়া চত্বর থেকে মহানগর শ্রমিক লীগের উদ্যোগে বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের হয়। র‌্যালীর নেতৃত্ব দেন জেলা পরিষদ প্রশাসক অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা ও ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র ও জেলা আ’লীগ সদস্য মো: ইকরামুল হক টিটু।
এদিকে, মহানগর যুবলীগের উদ্যোগে কেক কাটেন যুবলীগ নেতা শাহীনুর রহমান।
দিনাজপুরে শ্রদ্ধার্ঘ অর্পণ
দিনাজপুর অফিস : বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন ও পুস্পার্পন করেন জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি, জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলমের নেতৃত্বে জেলা প্রশাসন ও সদর উপজেলা প্রশাসনের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ। এরপর পুলিশ সুপার মো. রুহুল আমিন’র নেতৃত্বে পুলিশ প্রশাসনের সকল কর্মকর্তা, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও জেলা পরিষদের প্রশাসক আজিজুল ইমাম চৌধুরীর নেতৃত্বে জেলা আওয়ামী লীগসহ অংগসংগঠনের নেতৃবৃন্দ পৃথকভাবে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ অর্পণ করেন।
রাজাপুরে এমপি বিএইচ হারুন
রাজাপুর (ঝালকাঠি) উপজেলা সংবাদদাতা :
ঝালকাঠি-১ (রাজাপুর-কাঁঠালিয়া) আসনের সংসদ সদস্য ও ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব বিএইচ হারুন বলেছেন, সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গলী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। বঙ্গবন্ধু ইসলামীক ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেছেন। যার মাধ্যমে প্রতিবছর সারাদেশের লাখ লাখ শিশু ইসলামী শিক্ষা গ্রহন করে ধর্মীয় জ্ঞান অর্জন করছে। তিনি গতকাল সন্ধ্যায় কানুদাশকাঠি ইসলামী কমপ্লেক্সে জেলা ইসলামীক ফাউন্ডেশন ও ইসলামীক মিশনের যৌথ উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর ৯৭তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আয়োজিত বর্নাঢ্য অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন