ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

মেম্বার প্রার্থীর হাত কর্তন : বিএনপি সমর্থকদের মারপিট

প্রকাশের সময় : ২১ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : আগামীকাল প্রথম ধাপে দেশের বিভিন্ন জেলার ৭২১টি ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনকে ঘিরে সহিংসতা অব্যাহত রয়েছে। ভোলার লালমোহনে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে এক মেম্বার প্রার্থীর হাত কেটে বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা। সাতক্ষীরার কালীগঞ্জে বিএনপি কর্মীদের মারপিট করে ভোট দিতে না পাওয়ার জন্য হুমকি দিয়েছে আ’লীগের নেতাকর্মীরা। মাদারীপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থীর মাইক ভাঙচুর করে প্রচারণায় বাধা দিয়েছে ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা।
লালমোহনে মেম্বার প্রার্থীর হাত বিছিন্ন
লালমোহন উপজেলা (ভোলা) সংবাদদাতা : লালমোহন ধলীগৌরনগর ইউনয়িনের ৬নং ওয়ার্ডে মেম্বার প্রার্থী জাকির হোসেন ভুঁইয়াকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে বাম হাত কেটে বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে প্রতিপক্ষ গিয়াস উদ্দিন ভুঁইয়ার বাহিনী।
রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কবিরের দোকান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মুমূূর্ষু অবস্থায় জাকির হোসেন ভুঁইয়াকে লালমোহন হাসপাতালে এনে অপারেশন থিয়েটারে নেওয়া হলে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় হেলিকপ্টারে ঢাকা পাঠানো হয়েছে।
এদিকে জাকির হোসেন ভুঁইয়াকে কুপিয়ে হাত বিচ্ছিন্ন করার ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। জাকির হোসেনে ভুঁইয়া ওই এলাকার বেলায়েত ভুঁইয়ার ছেলে। গতবারও সে ওই ওয়ার্ডে মেম্বার নির্বাচিত হয়। এবারের নির্বাচনে তার আপন চাচাতো ভাই গিয়াস উদ্দিন ভুঁইয়া প্রতিদ্বন্দ্বী। প্রতিদিন তাদের মধ্যে এলাকায় উত্তেজনা সহিংসতা চলে। গত শুক্রবার জুমার নামাজের পর উভয় গ্রুপের সংঘর্ষে ২০ জন গুরুতর জখম হয়।
কালিগঞ্জে বিএনপি কর্মীদের মারপিট
সাতক্ষীরা থেকে স্টাফ রিপোর্টার : সাতক্ষীরার কালীগঞ্জের উপজেলার কুশলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপি চেয়ারম্যান প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মারপিট করে ভোট কেন্দ্রে না যাওয়ার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে কুশলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী শেখ এবাদুল ইসলাম এই অভিযোগ করেন।
এ সময় লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শেখ মেহেদী হাসান সুমন এবং তার পিতা উপজেলা আ’লীগ সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান শেখ ওয়াহেদুজ্জামান নির্বাচনী তফশিল ঘোষণার পর থেকেই বিএনপির কর্মী-সমর্থকদের হুমকি দিতে থাকে। গত ১৯ মার্চ সন্ধ্যায় রহিমপুর বাজার এলাকায় প্রচারণা চালানোর সময় বিএনপির চার কর্মীকে ব্যাপক মারপিট করেন তারা। একই দিন রাত ৭টার দিকে গোবিন্দপুর তরফদার পাড়ায় আমার আরো এক কর্মীকে মারপিট করে আটকে রাখে শেখ মেহেদী হাসান সুমনের লোকজন।
এরই ধারাবাহিকতায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শেখ মেহেদী হাসান সুমন এবং তার পিতা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান শেখ ওয়াহেদুজ্জামান ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে না যেতে ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন। আমার পোলিং এজেন্টদের ভোট কেন্দ্রে না যাওয়ার হুমকি দেওয়া হয়েছে।
চরফ্যাশনের বাড়িঘর হামলা ভাঙচুর
চরফ্যাশন উপজেলা সংবাদদাতা : চরফ্যাশন উপজেলার জাহানপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে ইউপির সদস্যের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে রাতের আঁধারে প্রতিপক্ষ প্রার্থীর সমর্থকের উপর হামলা চালিয়ে তার বসতঘর ভাঙচুর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে শশীভূষণ থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, শনিবার রাত ২টার সময় জাহানপুর ১নং ওয়ার্ডের ইউপির সদস্য বাকেরের নেতৃত্বে ১০/১২ জনের নেতৃত্বে একটি সন্ত্রাসী বাহিনী প্রতিপক্ষ আলাউদ্দিনের সমর্থক সিরাজ সর্দারের বসতঘরে আক্রমণ চালিয়ে তার ঘরের আসবাবপত্র ভাঙচুর করেছে। সিরাজ সর্দার জানান, নির্বাচন আসলেই বাকের সন্ত্রাসী কার্যক্রম আরম্ভ করে দেয়। অর্থের প্রভাবে বিভিন্ন অপকর্ম করে বেড়াচ্ছে। সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে দিচ্ছে। এ ব্যাপারে সিরাজ সর্দার বাদী হয়ে শশীভূষণ থানায় ১০ জনকে শনাক্ত করে আরো অজ্ঞাত আসামি করে অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে সিরাজ সর্দার জানিয়েছেন।
মাদারীপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রচারে বাধা
মাদারীপুর জেলা সংবাদদাতা : মাদারীপুর সদর উপজেলার রাস্তি, ছিলারচর ও খোয়াজপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরা তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সমর্থকদের উপর হামলা ও নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
রাস্তি ইউনিয়নের নির্বাচনী প্রার্থী মান্নান লস্কর অভিযোগ করে বলেন, সদর উপজেলার রাস্তি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে শুক্রবার রাতে পূর্বরাস্তি এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা করার সময় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী রাজু হাওলাদারের লোকজন মাইক ভেঙে ফেলে। প্রচারে নামলে আমার কর্মীদের হত্যা করে ফেলা হবে বলে হুমকি দিয়েছে। এতে আতঙ্কিত হয়ে পড়ছে কর্মীরা।
এদিকে শুক্রবার রাতে সদর উপজেলার ছিলারচর ইউনিয়নের চৌধুরীর হাট এলাকায় আওয়ামী লীগের সমর্থকরা স্বতন্ত্র প্রার্থী বাবুল সরদারের সমর্থক মো. মুজাফ্ফরকে মারধর করে। মারাত্মক আহত অবস্থায় মুজাফ্ফরকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের নির্যাতনের অভিযোগ
নাটোর জেলা সংবাদদাতা : নাটোরের লালপুর উপজেলার আব্দুলপুরে বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকের উপর পুলিশের নির্যাতনের জেরে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী আওয়ামী লীগ প্রার্থীর নির্বাচনী ক্যাম্প ভেঙে দিয়েছে। শনিবার রাতে আব্দুলপুর রেল স্টেশন এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী জানায়, চংধুপইল ইউনিয়নের নির্বাচনে আ’লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী মোজাম্মেল হকের সমর্থক রেজাউল করিমের সঙ্গে শনিবার বিকেলে ওসি আব্দুল হাইয়ের বাকবিত-া হয়। এ সময় রেজাউলকে চপেটাঘাত করেন ওসি। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা দেখা দেয়। পরে পরিস্থিতি শান্ত হওয়ার পর ওসি ফোর্সসহ এলাকা ত্যাগ করেন। এনিয়ে দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে চাপা উত্তেজনার একপর্যায়ে রাতে আব্দুলপুর রেল স্টেশন সংলগ্ন গোসাইপুর গ্রামের বিক্ষুব্ধ মানুষ আ’লীগ প্রার্থী আবু আল বেলালের নির্বাচনী অফিসে চড়াও হয়ে ভাঙচুর ও পোস্টার ছিঁড়ে ফেলে।
বিদ্রোহী প্রার্থী মোজাম্মেল হক জানান, লালপুর থানার ওসি আব্দুল হাইসহ পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তা তার সমর্থকদের মামলা ও গ্রেফতারের ভয় দেখাচ্ছে। প্রায় প্রতিদিনই কোনো না কোনো গ্রামে গিয়ে তার সমর্থকদের নৌকা প্রতীকের পক্ষে কাজ করার জন্য বলছে। অন্যথায় গ্রেফতারের ভয় দেখাচ্ছে। তিনি নিজেও পুলিশি নির্যাতনের ভয়ে রয়েছেন।
কেরানীগঞ্জে যুবলীগের নেতাকে অব্যাহতি
কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) উপজেলা সংবাদদাতা : ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর পক্ষে কাজ না করায় গতকাল রোববার সকালে হযরতপুর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক নুরুজ্জামান সেন্টুকে দল থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। কেরানীগঞ্জ মডেল থানা যুবলীগের আহ্বায়ক মনির হোসেন বলেন, হযরতপুর ইউনিয়নের যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক নুরুজ্জামান সেন্টু আওয়ামী লীগের প্রার্থীর পক্ষে কাজ না করে অন্য প্রার্থীর পক্ষে কাজ করছেন। তাকে বার বার বারন করা সত্ত্বেও সে অন্য প্রার্থীর পক্ষে দিন-রাত প্রচারণা চালাচ্ছেন। সে গঠনতন্ত্র বিরোধী কাজ করার অপরাধে তাকে দল থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন