ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

বিশ্বের মহান ৫০ নেতার মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দশম

ফরচুন ম্যাগাজিনের তালিকা

প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : বিশ্বের মহান ৫০ জন নেতার তালিকা প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কভিত্তিক ব্যবসা-বাণিজ্যবিষয়ক ম্যাগাজিন ফরচুন। এর মধ্যে ২৩ জনই নারী। সার্বিক তালিকায় ১০ নম্বরে অবস্থান বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার।
ফরচুন সাময়িকীর নিজস্ব ওয়েবসাইটে গত বৃহস্পতিবার তালিকাটি প্রকাশ করা হয়। এতে স্থান পেয়েছেন রাজনীতিবিদ, ব্যবসায়ী, মানবহিতৈষী, শিল্পীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার এমন সব মানুষ, যারা বিশ্বকে বদলে দিতে নিজেরা ভূমিকা রেখে চলেছেন। নিজেদের কাজে অন্যদের অনুপ্রাণিত করছেন।
তালিকায় ১ নম্বরে রয়েছেন অনলাইনে কেনাকাটার জনপ্রিয় মার্কিন ওয়েবসাইট আমাজন ডটকমের প্রধান নির্বাহী (সিইও) জিফ্রে প্রিস্টন বেজস। তারপরের দুজনই নারী। ২ নম্বরে রয়েছেন জার্মানির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল। ৩ নম্বরে আছেন মিয়ানমারের ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) নেত্রী অং সান সু চি।
তালিকার প্রথম ১০ জনের মধ্যে পাঁচজনই নারী। ম্যার্কেল ও সু চি ছাড়া অন্য তিনজন হলেন জাতিসংঘের জলবায়ু পরিবর্তনবিষয়ক কাঠামো সনদের নির্বাহী সচিব ক্রিস্টিনা ফিগুয়েরেস (৭ নম্বর), মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের সহযোগী বিচারক রুথ ব্যাডার গিনসবার্গ (৯ নম্বর) ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
তালিকা প্রকাশ করে ফরচুন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিষয়ে বলেছে, তিনি নিজ দেশে নারীদের অধিকার এগিয়ে নিতে কাজ করে যাচ্ছেন। দেশের নারীদের জন্য আইনগত সুরক্ষা নিশ্চিত করেছেন। পাশাপাশি তিনি নারীদের অধিকতর শিক্ষা, আর্থিক স্বাধীনতা ও রাজনৈতিক ক্ষমতা দিতে কাজ করছেন।
ফরচুনের তালিকায় স্থান পাওয়া অন্য নারীদের মধ্যে রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সাউথ ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের রিপাবলিকান গভর্নর নিকি হ্যালি (১৭) ও নারীদের কম্পিউটার বিজ্ঞানে উৎসাহিত করতে কাজ করা অলাভজনক প্রতিষ্ঠান ‘গার্লস হু কোড’-এর সিইও রেশমা সৌজানি (২০)। রেশমা যুক্তরাষ্ট্রের ডেমোক্রেটিক রাজনীতির সঙ্গেও জড়িত। তিনি ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিক।
এর বাইরে যুক্তরাষ্ট্রের নারী স্কাউটের সিইও আনা মার্সিয়া চাভেজ (২৪), মার্কিন কংগ্রেসের গ্রন্থাগারের প্রথম আফ্রিকান-আমেরিকান প্রধান কার্লা হেইডেন (২৫), কৃষ্ণাঙ্গদের অধিকার রক্ষার আন্দোলন ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’-এর যৌথ প্রতিষ্ঠাতা অ্যালিসিয়া গার্জা, প্যাট্রিসিয়া কিউলরস ও ওপাল টোমেটি (২৭ নম্বর)। এছাড়া চীনের ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক চাই জিং (২৮) এ তালিকায় স্থান পেয়েছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন