ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

‘মরতে হয় মরবো, জাতীয়করণ আনবো’

আন্দোলনে শিক্ষকরা, অসুস্থ- ১৩১ গুরুতর- ৩২

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম

প্রচন্ড শীতের মধ্যেও জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে একদফা দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন শিক্ষকরা। এমপিওভূক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমুহ জাতীয়করণের দাবিতে টানা ১৫ দিন ধরে এই আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে ৬টি শিক্ষক কর্মচারি সংগঠনের জোট ‘বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াজোঁ ফোরাম’।
গত ১০ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া অবস্থান কর্মসূচির পর ১৫ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া আমরণ অনশন কর্মসূচিতে জাতীয়করণের ১ দফা দাবিতে সারা দেশ থেকে হাজার হাজার শিক্ষক কর্মচারি প্রতিদিন যোগ দিচ্ছেন বলে জানা গেছে।
গতকাল বুধবার আন্দোলনরত লিয়াজো ফোরামের নেতৃবৃন্দ তাদের বক্তব্যে বলেন, আমরণ অনশনের আজ ১০ম দিন অতিবাহিত হবার পরও সরকারের তরফ থেকে কোনো ইতিবাচক সারা পাওয়া যায়নি। তাই বেসরকারি শিক্ষক সমাজ বাধ্য হয়েই আমরণ অনশনের পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহে ৩ দিনের ধর্মঘট পালন করছেন। ‘আমরা মরতে হয় মরবো তবুও জাতীয়করণ আনবো।’
শিক্ষকদের এ আন্দোলন কর্মসূচিতে গতকাল বুধবার পর্যন্ত ১১৩ জন শিক্ষক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে জানিয়েছেন লিয়াজোঁ ফোরামের আহŸায়ক আব্দুল খালেক। এর মধ্যে চাপাই নবাবগঞ্জের মামুনুর রশিদ, চাঁদপুরের অহিদ, বরগুনার আসাদুজ্জামান সহ ২৭ জন গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে জানান তিনি।
আমরণ অনশন কর্মসূচিতে বিভিন্ন পর্যায়ে বক্তব্য রাখেন জোটের আহŸায়ক আব্দুল খালেক, উপদেষ্টা রফিকুল ইসলাম, আবুল বাসার, জসিম উদ্দিন, যুগ্ন আহŸবায়ক সাইদুল হাসান সেলিম, জিএম শাওন, প্রেস সচিব এনামুল ইসলাম মাসুদ, যুগ্ন মহাসচিব রেহান উদ্দিন প্রমুখ।
এদিকে একদফা দাবিতে ২১ জানুয়ারি থেকে চতুর্থ দিনের মত অনশন কর্মসূচি পালন করছে বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক সমিতি। সংগঠনের মহাসচিব কামাল হোসেন বলেন, ‘২০১৩ সালের ৯ জানুয়ারি ২৬,১৩৯ টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পর সকল শর্ত পূরণ করা সত্তে¡ও ৪ হাজারের অধিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের আওতায় আনা হয়নি।’ বাদপরা এ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের আওতায় আনার জোর দাবি জানান তিনি।
তাদের চলমান এ কর্মসূচিতে বুধবার পর্যন্ত ৫ জন গুরুতরসহ ১৭ জন অসুস্থ হয়েছে বলে জানান সংগঠনের সভাপতি মামুনুর রশিদ কামাল।
অপরদিকে অনশনের নামে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আহŸবান জানিয়েছেন বাংলাদেশ নব জাতীয়করণকৃত ও বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি। গতকাল বুধবার সকালে বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের সভাপতি কামাল উদ্দিন বলেন, বাদপড়া ৬ হাজার বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণে সরকারের নির্দেশনা পাওয়ার পরও একটি কুচক্রী মহল সরকারের ভাবমূর্তী নষ্ট করার জন্যে অনশনের নামে বিশৃঙ্খলা করার পায়তারা করছে। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্যে সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জোর দাবি জানান তারা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন