সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯, ১৪ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

ইসলামী বিশ্ব

সউদিতে সন্ত্রাসবিরোধী জোটের সেনাপ্রধানদের বৈঠক অনুষ্ঠিত

প্রকাশের সময় : ২৯ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : সউদি আরব নেতৃত্বাধীন ৩৯ দেশের সন্ত্রাসবিরোধী জোটের সেনাপ্রধানরা রোববার রিয়াদে এক বৈঠকে মিলিত হন। গত বছরের ডিসেম্বরে এই জোট গঠন করা হয়েছিল। জোটের সদস্যদেশগুলো পারস্পরিক তথ্য আদান-প্রদান, সহিংস মতাদর্শ দমনে পাস্পরিক সহায়তা ও প্রয়োজনে সেনা মোতায়েনের ব্যাপারে ঐক্যমত পোষণ করে জোট গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। সউদি নেতৃত্বাধীন এ জোটে আফ্রিকার ক্ষুদ্র দেশ কমোরোসের মতো দেশের পাশাপাশি আঞ্চলিক পরাশক্তি তুরস্কের মতো শক্তিশালী দেশও অন্তর্ভুক্ত আছে।
সউদি বিগ্রেডিয়ার জেনারেল আহমেদ আল-আসিরি বলেন, সন্ত্রাসবিরোধী যুদ্ধে জোটের কার্যক্রম বৃদ্ধির পরামর্শের জন্য সদস্য রাষ্ট্রগুলোর সেনাপ্রধানদের বৈঠক আহ্বান করা হয়েছে। আলোচনার পর তিনি বলেন, আমরা মাত্রই জোটটির ভিত্তি স্থাপন করছি। কোনো সুনির্দিষ্ট বিষয়বস্তু নিয়ে এখনো আলোচনা হয়নি।
সউদি আরবসহ এই জোটের বেশকিছু সদস্যরাষ্ট্র ইরাক ও সিরিয়ায় আইএসের সাথে যুদ্ধে লিপ্ত মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোটের অন্তর্ভুক্ত। এছাড়া ইয়েমেনে ইরান সমর্থিত হুতি বিদ্রোহীদের সাথে যুদ্ধেও সউদি আরব উপসাগরীয় আরব জোটের নেতৃত্ব দিচ্ছে। আসিরি বলেন, নতুন জোটের জন্য রিয়াদ হেডকোয়ার্টার নির্মাণ করবে ও অর্থসংস্থান করবে। জাতিসংঘের অনুমোদিত ও স্বীকৃত পন্থায় সন্ত্রাসবিরোধী এই জোট পরিচালিত হবে বলেও তিনি জানান। তিনি আরো জানান, খুব শীঘ্রই সদস্যরাষ্ট্রগুলোর প্রতিরক্ষামন্ত্রীরাও বৈঠকে মিলিত হবেন।
উল্লেখ্য, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে, বিশেষ করে মধ্যপ্রাচ্যে ব্যাপকভাবে জঙ্গি তৎপরতা বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষিতে সউদি আরবের উদ্যোগে সন্ত্রাসবিরোধী জোট গঠন করা হয়। বিবিসি, জোটের সদস্য দেশগুলোর নিজস্ব নিরাপত্তা নির্বিঘœ রাখার পাশাপাশি আঞ্চলিক নিরাপত্তার মতো বিষয়গুলোও এই জোটের কর্মতৎপরতার আওতাভুক্ত। প্রসঙ্গত বলা যায় যে, প্রবল শক্তি নিয়ে ইসলামী স্টেট বা আইএসের প্রায় অপ্রতিরোধ্য উত্থানের কারণে গোটা মধ্যপ্রাচ্য এলাকায় নিরাপত্তা চরমভাবে হুমকির মুখে পড়েছে। রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন