ঢাকা, বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৬, ০১ রজব ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান শেষ করতে হবে ৫টায় ভুভুজেলা বাঁশি ও মুখোশ পরা নিষিদ্ধ

প্রকাশের সময় : ৪ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা : পহেলা বৈশাখের সব অনুষ্ঠান বিকেল ৫টার মধ্যে শেষ করতে বলেছে সরকার। বাংলা নববর্ষের প্রথম দিন সন্ধ্যা ৬টার পর ‘রাস্তা পরিষ্কার করতে’ মাঠে নামানো হবে পুলিশ। মুখোশে মুখ ঢেকে মঙ্গল শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ এবং ভুভুজেলা বা বিকট আওয়াজের বাঁশি ব্যবহারেও কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে।
আগামী ১৪ এপ্রিল বঙ্গাব্দ ১৪২২ এর প্রথম দিনের উৎসব ‘সুষ্ঠুভাবে উদযাপনে’ গতকাল রোববার সচিবালয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠকের পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মানুষের এই উৎসাহ উদ্দীপনায় আমরা বাধা দিতে পারছি না। কিন্তু, আমরা অনুরোধ করছি, ৫টার মধ্যে সব শেষ করতে হবে। ৬টার মধ্যে আমাদের পুলিশ, আমাদের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আমাদের এই সমস্ত পাবলিক প্লেস ক্লিয়ার করার জন্য সচেষ্ট থাকবেন এবং করার ব্যবস্থা নেবেন।
তিনি আরো বলেন, দেশের কোথাও বিকাল ৫টার পর খোলা জায়গায় নববর্ষের অনুষ্ঠান করা যাবে না। আর সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার গণজমায়েত খালি করতে হবে। সবাই যাতে নির্বিঘেœ বৈশাখী উৎসব করতে পারে- সেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এজন্য যা যা করার সবই করা হবে। ভুতুড়ে বাঁশি (ভুভুজেলা) বিকট একটা আওয়াজ করে। এই বিকট আওয়াজের বাঁশি- এইটা নিষিদ্ধ হবে। মঙ্গল শোভাযাত্রায়, এই যে ছোট ছোট মুখোশ দিয়ে মুখ বন্ধ করে মিছিলে বের হয়, এটা আমরা এবার নিয়ন্ত্রণ করব।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সারাদেশেই এ নির্দেশনা বাস্তবায়ন করার জন্য ইতোমধ্যে বিভিন্ন নিরাপত্তা বাহিনীর কাছে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে। বিশেষ করে অনুষ্ঠান স্থলে সিসিটিভি, ওয়াচ টাওয়ার, লস্ট অ্যান্ড ফাইন্ড ডেস্ক স্থাপন করা হবে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সাদা পোশাকে নিরাপত্তা কর্মীও মোতায়েন থাকবে। নিরাপত্তা রক্ষায় ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা বিভিন্ন জায়গায় অবস্থান করবেন বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।
তিনি বলেন, আগের মতো কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে না ঘটে, সেজন্য টিএসসিসহ অনুষ্ঠান স্থল থেকে জনসাধারণকে ৬টার মধ্যে সরিয়ে দেওয়া হবে। প্রয়োজনে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা অনুষ্ঠান স্থল ত্যাগে বাধ্য করবেন।
বৈঠকে জানানো হয়, বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের দিন রমনা পার্ক, বাংলা একাডেমি, টিএসসি, শাহবাগ মোড়, ধানম-ির রবীন্দ্র সরোবর এবং আশপাশের এলাকায় যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণে থাকবে। ওইদিন যানবাহন চলাচল সংক্রান্ত রোডম্যাপ অনুযায়ী গাড়ি চলাচল করবে। যেখানে-সেখানে গাড়ি পার্কিং করা যাবে না বলেও বৈঠক সূত্রে জানা যায়।
পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক, র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজির আহমেদসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতিনিধি ও মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন